• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • FACEBOOK CONFIRMS BAN OF TALIBAN RELATED CONTENT IN THIS SOCIAL MEDIA PLATFORM TC SANJ

Facebook : ফেসবুকে নিষিদ্ধ হল তালিবান 'কনটেন্ট'! সচেতন মার্ক জুকারবার্গ...

'তালিবানে' নিষেধাজ্ঞা ফেসবুকের

Facebook : আফগানিস্তানে তালিবান সম্পর্কিত যে কোনও কনটেন্টকে রিভিউ করবার জন্য সংশ্লিষ্ট কিছু কর্মীদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

মুম্বই :  আফগানিস্তান তালিবানদের দখলে আসার পর থেকে যা ঘটনা ঘটে চলেছে তা রীতিমতো ভয়ঙ্কর ও সকলকে প্রভাবিত করার মতো। গোটা বিশ্বে এখন এই নিয়েই আলোচনা চলছে। এরই মাঝে সোশ্যাল মিডিয়া জায়েন্ট Facebook-এর বড় সিদ্ধান্ত। তালিবান সংক্রান্ত যে কোনও কনটেন্ট এবার থেকে Facebook-এ নিষিদ্ধ। ইতিমধ্যে, সেই নিয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছে Facebook।

Facebook-এর তরফে জানানো হয়েছে, আফগানিস্তানে তালিবান সম্পর্কিত যে কোনও কনটেন্টকে রিভিউ করবার জন্য সংশ্লিষ্ট কিছু কর্মীদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তাঁরা এই সম্পর্কিত যে কোনও কনটেন্ট যাচাই করে নিচ্ছেন এবং সেগুলিকে প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে দিচ্ছেন। এছাড়াও বহু বছর ধরে নিজেদের বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য তালিবানরা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে এসেছে। তাই আগামী দিনে এই সমস্ত কনটেন্ট খুঁজে বের করা ভীষণ চ্যালেঞ্জিং বলে মনে করছে Facebook।

Facebook-এর এক মুখপাত্র BBC-কে বলেছেন, “US-এর আইন অনুযায়ী তালিবান গোষ্ঠীকে সন্ত্রাসবাদী বলে ঘোষণা করা হয়েছে। তাই তালিবানকে সমর্থন করা, তার প্রতিনিধিত্ব করা ও এই সংক্রান্ত কোনও রকম কনটেন্ট Facebook-এ রাখা যাবে না। সেই মতো আমরা আমাদের কাজ শুরু করেছি। আফগানিস্তানের পশতু ভাষা বোঝেন এমন স্থানীয়রা বিশেষজ্ঞদের সাহায্য আমরা নিচ্ছি, যাঁরা এই কর্মকাণ্ডটাকে সঠিকভাবে পরিচালনা করবেন।”

সূত্রের খবর, তালিবানরা Facebook ছাড়াও, Whatsapp, Instagram-এর মতো সামাজিক মাধ্যমগুলিকে ব্যবহার করছে তথ্য আদানপ্রদানের জন্য। যেহেতু, এই প্ল্যাটফর্মগুলি Facebook-এর মালিকানাধীন, তাই US নীতির মধ্যে এই সোশ্যাল মিডিয়াগুলো পড়ছে। ফলে, এই প্ল্যাটফর্মগুলি থেকেও তালিবান কনটেন্ট মুছে ফেলার কাজ শুরু করা হবে। Facebook ছাড়াও অন্যান্য সোশ্যাল মাধ্যম বিশেষত Twitter কী ব্যবস্থা নেয় তা এখনও জানা যায়নি। তবে BBC-র প্রশ্নের উত্তরে Twitter-এর মুখপাত্র জানিয়েছেন, সন্ত্রাসবাদী কোনও কার্যকলাপকে তাঁদের প্ল্যাটফর্ম মান্যতা দেয় না। YouTube এখনও এবিষয়ে কোনও কথা বলেনি। আশা করা হচ্ছে, খুব শীঘ্রই কোনও সমাধান সূত্র বেরিয়ে আসবে। তবে Facebook জানতে পেরেছে ইদানিং Whatsapp-এ তালিবানদের বার্তা প্রেরণের সংখ্যা বেড়েছে। যা নিয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: