একটানা ওয়ার্ক ফ্রম হোমে চোখে অস্বস্তি? চোখ ঠিক রাখবে এই তিন ঘরোয়া টোটকা

অনেকেই এখন চোখে ব্যথা অনুভব করেন। এমনকী চোখ দিয়ে জল পড়ে বা চুলকায়।

অনেকেই এখন চোখে ব্যথা অনুভব করেন। এমনকী চোখ দিয়ে জল পড়ে বা চুলকায়।

  • Share this:

#কলকাতা:

চলছে ওয়ার্ক ফ্রম হোম। মানে দিনের অধিকাংশ সময়ই ল্যাপটপ বা কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে থাকা। আর অবসরের সঙ্গী তো মুঠোফোন রয়েছেই। এখন যেহেতু জুতো সেলাই থেকে চন্ডীপাঠ সব কিছুই মুঠোফোনের দ্বারা সম্ভব তাই ওটাই আমাদের সবসময়ের সঙ্গী। সুবিধা তো হচ্ছেই। এই যেমন খাবার ওর্ডার থেকে ওষুধ, নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সবকিছু কিনতেই মুঠোফোন। আবার সিনেমা দেখা, ওয়েবসিরিজ বা খবর সবকিছুই দেখা হচ্ছে সেখানে। একদিকে কিন্তু সত্যিই আমাদের খুবই সুবিধা হচ্ছে। কিন্তু অন্যদিকটা কি ভেবে দেখেছেন? আপনার চোখের অবস্থাটা ঠিক কী হচ্ছে?

সাধারণ সময়ে বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে দেখা হলে কিছুটা সময় দূরে থাকে স্মার্টফোন। আবার কোথাও বের হলে হাঁটাহাঁটির সময় আমরা সাধারণত স্মার্টফোন ব্যবহার করি না। কিন্তু বর্তমানে তো সে সবের কোনও সূয়োগ নেই। এমনকী বন্ধু বান্ধবদের সঙ্গে দেখা হচ্ছে স্মার্টফোনের মাধ্যমে। এই পরিস্থিতিতে চোখ কী ভাবে ভালো রাখবেন তার উপায় রইল এই প্রতিবেদনে।

অনেকেই এখন চোখে ব্যথা অনুভব করেন। এমনকী অনেকের চোখ দিয়ে জল পড়ে বা চোখ চুলকায়। এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি কী ভাবে? অনেকেই হয় তো এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে চোখের ড্রপ বা বিভিন্ন ওষুধ ব্যবহার করেন। কিন্তু ওষুধ ছাড়াও এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি সম্ভব। আসুন আলোচনা করা যাক।

ঘরেই থাকে এমন কিছু টোটকা ব্যবহার করা যেতে পারে।

ঠান্ডা জল- দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার বা মোবাইলের স্ক্রিনের সামনে তাকিয়ে থাকলে চোখে ব্যথা হওয়া খুবই স্বাভাবিক। এই পরিস্থিতি তৈরি হলে খুব অল্প সময় অন্তর অন্তর চোখে ঠান্ডা জলের ঝাপটা দিন। এর ফলে চোখের তাপমাত্রা কমবে এবং অস্বস্তি থেকে মুক্তি পাবেন। তবে এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে শুধু একবার চোখ ধুয়ে নিলেই হবে না। প্রায় ১ থেকে দেড় মিনিট ধরে চোখে জলের ঝাপটা দিতে হবে।

গোলাপ জল- আমরা সবাই জানি যে কোনও জ্বালা কমাতে গোলাপ জল খুবই উপকারী। এমনকী চোখের ভিতর যদি কোনও বড় ধরনের সমস্যা থাকে তাহলে গোলাপ জলের দ্বারা তা কমানো সম্ভব। এমনকী চোখের ব্যথা কমাতেও খুবই উপকারী গোলাপ জল। কী ভাবে ব্যবহার করবেন? খুবই সহজ- সাধারণ জলের সঙ্গে মিশিয়ে নিন গোলাপ জল। এর পর তুলো ভিজিয়ে আস্তে আস্তে চোখের মধ্যে লাগান। ভেজানো তুলো কিছুক্ষণ চোখের পাতার উপরেও রাখতে পারেন।

বেসিল এবং মিন্ট পাতা- তুলসী এবং পুদিনা পাতা চোখের জন্য খুবই উপকারী। একটি পাত্রে সারা রাত বেসিল ও পুদিনা পাতা ভিজিয়ে রেখে দিন। সকালে উঠে সেই জলটি দিয়ে চোখ ধুতে পারেন। চোখের ব্যথা অনেকটাই কমবে।

First published: