Home /News /life-style /

Covid 19: স্নায়ুরোগীদের করোনা নিয়ে ভয়ের কারণ আছে? কী করবেন তাঁরা, বললেন চিকিৎসক

Covid 19: স্নায়ুরোগীদের করোনা নিয়ে ভয়ের কারণ আছে? কী করবেন তাঁরা, বললেন চিকিৎসক

গ্রাফিক ছবি

গ্রাফিক ছবি

Covid 19: বলছেন চিকিৎসক দর্পনারায়ণ হাজরা, অ্যাসোসিয়েট স্পেশালিস্ট, ইমার্জেন্সি ডিপার্টমেন্ট, ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সেস কলকাতা।

  • Share this:

    #কলকাতা: স্নায়ুর রোগের ওষুধ চলছে যাঁদের, তাঁদের অনেকেই ভাবছেন, করোনা হলে তাঁরা কী করবেন! নিয়মিত ওষুধ খাবেন? নাকি করোনার কারণে ওষুধের কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে? এ ছাড়া কোভিড পরবর্তী সমস্যা কতটা প্রভাব ফেলতে পারে শরীরে। আক্রান্ত হওয়ার দুশ্চিন্তায় প্যানিক অ্যাটাক হলেও বা কী করবেন সাধারণ মানুষ? বলছেন চিকিৎসক দর্পনারায়ণ হাজরা, অ্যাসোসিয়েট স্পেশালিস্ট, ইমার্জেন্সি ডিপার্টমেন্ট, ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সেস কলকাতা।

    কোভিড আক্রান্তের স্নায়ুরোগের ওষুধ চলবে স্বাভাবিক নিয়মে?

    কোভিড এমন একটা রোগ, যে এটার থ্রম্বোটিক ঝোঁক দেখা দিচ্ছে। এখন যতটা গবেষণা হয়েছে, ডেল্টার উপর নির্ভর করে হয়েছে। তার ভিত্তিতেই এই কথাটা বলা চলে। ফলে শুধু নিউরোলজিক্যালি নয়, হার্ট অ্যাটাক, সেরিব্রাল স্ট্রোকের ক্ষেত্রে এর একটা ঝুঁকির দিক রয়েছে। এ দিকে, কোভিডের চিকিৎসার কোনও নির্দিষ্ট ওষুধ তো এখনও বার হয়নি। ককটেল অ্যান্টিবায়োটিক প্রয়োগ বন্ধ করা হয়েছে, রেমডিভিসিরও এখনও প্রমাণিত ওষুধ নয়। কিছু ওষুধের মাধ্যমে আইসিইউ-তে থাকার পরিমাণ হয়ত কমেছে বা প্রাণের ঝুঁকি কমিয়েছে। তাই নিউরোলজিক্যাল যে ওষুধ থাকে, সেগুলো যেমন চলবে তেমনই চলা উচিত। সঙ্গে কোভিডের উপসর্গ অনুসারী ওষুধ, মানে জ্বর হলে প্যারাসিটামল সঙ্গে যদি কোনও অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া থাকে, তাহলে তাই। এ ছাড়া যদি কোনও কো-ইনফেকশনের জন্য ওষুধ খেতে হয়, তাহলে তাই। এই দুটোর ওষুধ পাশাপাশি চলতে পারে, দুটো আলাদা রকমের চিকিৎসা। করোনার টিকা নিতেও অসুবিধা নেই।

    আরও পড়ুন - Panchang 11 January: পঞ্জিকা ১১ জানুয়ারি: দেখে নিন নক্ষত্রযোগ, শুভ মুহূর্ত, রাহুকাল এবং দিনের অন্য লগ্ন!

    প্যানিক অ্যাটাক হলে কী করতে হবে?

    এই রোগটা এমনই যে সাধারণ মানুষের ভয়ের কারণ রয়েছে। লোকে ভয় পাচ্ছে কারণ এর কোনও ওষুধ এখনও বাজারে আসেনি। সাপোর্টিভ কেয়ার চলছে। সেই কারণে যাঁরা প্যানিক করছেন, তাঁদের বাড়িতে বোঝাতে হবে। দরকার পড়লে তাঁদের কোভিড বিধি মেনে চলায় জোর দিতে হবে। বলতে হবে যাতে তাঁরা নিয়মিত মাস্ক ব্যবহার করেন। যাতে স্যানিটাইজার, হ্যান্ড ওয়াশ ব্যবহার করেন।

    আরও পড়ুন - Bollywood Gossip: সলমান খানের নতুন গার্লফ্রেন্ড, সুন্দরী বললেন ‘নাইস গাই’!

    কোভিড পরবর্তী সমস্যা কাদের ভোগাতে পারে বেশি?

    যাঁদের বয়স ৬০-এর বেশি, যাঁরা নিয়মতি ধূমপান করেন, কো-মর্বিডিটি আছে, যেমন ডায়াবিটিস, হাইপারটেনশন, যাঁদের লিভারের রোগ আছে, যাঁদের ক্রনিক কিডনি ডিজিজ রয়েছে, সিওপিডি বা অ্যাস্থমা এঁদের মর্বিডিটি বেশি। কোভিড ফুসফুসে এফেক্ট করছে। কোভিড পরবর্তী নিউমোনাইটিস বা ফুসফুস ফাইব্রোসিস দেখা যায় মডারেট বা সিভিয়ার করোনা আক্রান্তের ক্ষেত্রে। এর চিকিৎসা হবে ভবিষ্যতে করতে হবে, কতটা কার শরীরে ক্ষতি হয়েছে, তার উপর নির্ভর করে।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Coronavirus

    পরবর্তী খবর