চাপ নেওয়া নয়, চাপ কমানো ! এই দীপাবলিতে মিষ্টি এবং সুস্বাদু খাবারের জন্য টিপস

চাপ নেওয়া নয়, চাপ কমানো ! এই দীপাবলিতে মিষ্টি এবং সুস্বাদু খাবারের জন্য টিপস
মনে রাখবেন, রান্নাঘরে অতিরিক্ত পরিশ্রম করলে দীপাবলি ভাল হয় না

মনে রাখবেন, রান্নাঘরে অতিরিক্ত পরিশ্রম করলে দীপাবলি ভাল হয় না

  • Share this:

    ২০২০ সাল বিশ্বের জন্য একটি ভিন্ন বছর। এতটুকু বলা যায় যে এই বছরটি খুবই কঠিন, যেহেতু আমরা অভূতপূর্ব এবং কঠিন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছি। এই মহামারী আমাদের সবাইকে প্রভাবিত করেছে- কাজ বদলে গেছে, স্কুল বদলে গেছেএবং এখন আমরা যেভাবে আমাদের উৎসব উদযাপন করি তাও পরিবর্তন করতে হবে, অন্তত এই বছরের জন্য। আমরা এতদিন ধরে যেভাবে দীপাবলি উদযাপন করে এসেছি এবারে সেই রকম হবে না এবং সেটি একটু দুঃখজনক হতে পারে। সর্বোপরি, আমরা সবাই কি সারা বছর এই গুরুত্বপূর্ণ উৎসবের জন্য অপেক্ষা করি না? কিন্তু তার মানে এই নয় যে আমরা ২০২০ সালের দীপাবলিতে হাল ছেড়ে দিচ্ছি। এই পরিস্থিতি উদ্ধারের উপায় আছে এবং এখনও সুস্থ এবং নিরাপদ উপায়ে দীপাবলি উপভোগ করার উপায় আছে।

    আমার মতে, খাবার অর্থাৎ - ভাল খাবার- এই বছর দীপাবলি সর্বোচ্চভাবে উপভোগ করার একটি কার্যকর এবং বাস্তবসম্মত উপায়! সবাই খেতে ভালবাসে, এবং আমি এখনো এমন একজনের সাথেও দেখা করিনি যে উৎসবের আনন্দ উপভোগ করতে ভালোবাসে না, বিশেষ করে দীপাবলির সময়ে। এই বছর, বাড়িতে ততটা মিষ্টি এবং সুস্বাদু খাবার রান্না করা সম্ভব নাও হতে পারে, কিন্তু তার মানে এই নয় যে আপনাকে খোলা (আলগা) মিষ্টি কিনতে হবে যেহেতু সেগুলি বেশিরভাগই অস্বাস্থ্যকর।

    আপনাকে শুধু নিশ্চিত করতে হবে যে আপনি সঠিক জিনিসটি বেঁচে নিচ্ছেন। আপনাকে এমন খাবার বেছে নিতে হবে যাবেশি স্বাস্থ্যকর, নিরাপদ এবং অবশ্যই সুস্বাদু। সর্বোপরি, দীপাবলি কি সুস্বাদু খাবারের সমার্থক নয়? এবং মহামারী থাকুক বা না থাকুক, এটা পরিবর্তন করার কোন কারণ নেই।


    এই দীপাবলি উদযাপনের জন্য চাপ না নিয়ে চাপ কমানোর জন্য এবং খুব মজা করার জন্য তিনটি উপায়ের কথা বলা হলো

    এটি সাধারণ রাখুন

    আপনার দীপাবলির পণ্যগুলি - উভয় মিষ্টি এবং সুস্বাদু প্রস্তুতিকে অতিরিক্ত জটিল করবেন না। মনে রাখবেন, রান্নাঘরে অতিরিক্ত পরিশ্রম করলে দীপাবলি ভাল হয় না।

    তার বদলে, অন্যভাবে চিন্তা করুন। আপনাকে সব মিষ্টি আর সুস্বাদু খাবার একেবারে শূন্য থেকে বানাতে হবে না। শুধুমাত্র কয়েকটা আইটেম নির্বাচন করুন যা আপনি এবং আপনার পরিবার ভালোবাসে এবং সেগুলি রান্না করার ওপরেই মনোযোগ দিন।

    অন্যথায়, আপনি প্যাক করা খাবার যেমন ভাল মানের আইসক্রিম এবং সুস্বাদু খাবার কিনতে পারেন। এগুলো খোলা মিষ্টির চেয়ে ভালো এবং এই বছর উৎসবে একটি স্বাগত সংযোজনও হতে পারে। মনে রাখবেন, জেইসব পণ্যগুলি স্বাস্থ্যকরভাবে প্যাক করা হয় আপনি জানেন শুধুমাত্র সেগুলোই কিনবেন যাতে আপনি এবং আপনার পরিবার কোন চিন্তা ছাড়াই সেগুলি উপভোগ করতে পারে।

    এই দীপাবলিতে 'নিরাপদ' থাকুন

    আমরা প্রায়ই দীপাবলির সময় 'নিরাপত্তা' কে এমন কিছু হিসেবে ভাবি যা শুধুমাত্র আতশবাজির সাথেই সম্পর্কিত। এই বছর, নিরাপত্তার একটি নতুন অর্থ আছে - সুস্বাস্থ্য এবং পরিচ্ছন্নতা। নিজের বিপদ চাইলে তবেই এটা উপেক্ষা করতে পারেন। এটিই খোলা মিষ্টি বা সুস্বাদু খাবারের তুলনায় প্যাকেটজাত খাবারকে একটি কার্যকর বিকল্প বানিয়ে তোলে। নামকরা ব্র্যান্ড এবং নির্মাতারা সাধারণত সতর্কতা অবলম্বন করে যাতে কোন হাত খাদ্যের সংস্পর্শে না আসে - তাই আপনার হাতই হয় প্রথম হাত যা খাদ্যের সংস্পর্শে আসে! তাই এই খাবারগুলি খাওয়া নিরাপদ হয়। তাই, এই দীপাবলিতে অনেক প্রকারের সুস্বাদু খাবার, আইস-ক্রিম, প্যাক করা ফল এবং বাড়িতে বানানো মিষ্টির ভান্ডার মজুত করে রাখুন যাতে পছন্দ আরো আকর্ষণীয় এবং বৈচিত্র্যময় হয়ে ওঠে।

    আপনাকে অবশ্যই সবসময় পুষ্টির লেবেলগুলো গুলো যত্ন সহকারে পড়তে হবে, এবং সবকিছু উপভোগ করুন - মিষ্টি এবং সুস্বাদু খাদ্য- পরিমিতভাবে। দায়িত্বশীলভাবে দীপাবলি উপভোগ করা এবং এই গুরুত্বপূর্ণ উৎসবের সময় এবং তার পরে সচেতনভাবে নিরাপদ এবং সুস্থ থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

    স্বাস্থ্যকর বিকল্পগুলি পছন্দ করুন

    যদি এই মহামারী আমাদের একটি শিক্ষা দেয়, তাহলে তা হলো সুস্থ থাকা এবং আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বজায় রাখার প্রয়োজনীয়তা। সৌভাগ্যক্রমে, সুসাস্থ্য বজায় রাখার জন্য আপনাকে সুস্বাদু খাবার নিয়ে কোন আপস করতে হবে না। আপনাকে শুধু রান্নাঘরে কিছু স্মার্ট এবং স্বাস্থ্যকর অদলবদল করতে হবে। উদাহরণস্বরূপ, ভাজা খাদ্যের পরিবর্তে সেঁকা খাবার বেছে নিন এবং যদি আপনাকে কোনো ভাজা খাবার খেতেই হয়, তাহলে নিশ্চিত করুন যে আপনি এটি বাড়িতে রান্না করে খান, যাতে আপনি উপাদান এবং তেলের মান সম্পর্কে নিশ্চিত থাকতে পারেন। এছাড়াও, প্যাক করা কোনো খাবার কেনার সময়, উপাদানের তালিকা পরীক্ষা করার জন্য সাবধানে লেবেল পড়তে মনে রাখবেন, এবং শুধুমাত্র স্বাস্থ্যকর এবং আরো পুষ্টিকর খাবার বেছে নিন। সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করার জন্য এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।

    Written By Kavita Devgan, Nutritionist, Columnist and Speaker

    এটি একটি পার্টনারড পোস্ট

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: