লাইফস্টাইল

corona virus btn
corona virus btn
Loading

লাঞ্চের আগে এই হালকা কয়েকটা স্ন্যাক্সই নিয়ন্ত্রণে থাকবে আপনার ব্লাড সুগার

লাঞ্চের আগে এই হালকা কয়েকটা স্ন্যাক্সই নিয়ন্ত্রণে থাকবে আপনার ব্লাড সুগার

কী কী স্ন্যাকস রাখতে পারেন আপনার ডায়াবেটিস ডায়েটে, জেনে নিন

  • Share this:

বিশ্বে স্বাস্থ্যে বর্তমানে একটি গভীর চিন্তার বিষয় হল ডায়াবেটিস। যা রক্তে প্রচুর পরিমাণ সুগারের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। এ ক্ষেত্রে আপনার শরীর পর্যাপ্ত ইনসুলিন উৎপাদন করতে পারে না। এই পরিস্থিতির পুরোপুরি সমাধান করা না গেলেও নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। চিকিৎসকদের পরামর্শ, ডায়াবেটিস রোগীদের ফাইবার ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া খুব জরুরি। এর পাশাপাশি নির্দিষ্ট সময় অন্তর খাবার খাওয়াটাও খুব জরুরি। এ ক্ষেত্রে একটি যথাযথ ব্রেকফাস্ট আর লাঞ্চের মাঝে খেয়াল রাখতে হবে ঠিকঠাক স্ন্যাকসের দিকেও। যা একঘণ্টা-দু'ঘণ্টা অন্তর অন্তর আপনার ক্যালোরি ও পুষ্টির মাত্রা ঠিক রাখতে সাহায্য করবে। আসুন দেখে নেওয়া যাক, আপনি কী কী স্ন্যাকস রাখতে পারেন আপনার ডায়াবেটিস ডায়েটে।

নানা রকমের বীজ ও বাদাম দিয়ে তৈরি করুন স্ন্যাকস -চিনে বাদাম, কাজু বাদাম, কুমড়োর বীজ, তিলের বীজ, আখরোট দিয়ে বাড়িতেই একটি পুষ্টিকর স্ন্যাক্স তৈরি করে ফেলুন। এর জেরে ফাইবারের পাশাপাশি প্রোটিন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের চাহিদাও মিটবে। তবে এই সমস্ত উপাদান পরিমাণ মতো মেশাতে হবে। কারণ অতিরিক্ত কোনও কিছু আবার হজমে সমস্যা করতে পারে।

পালং শাক ও বাঁধাকপির জুস -কোনও কিছুর জুস বের করার সময় অধিকাংশ ক্ষেত্রে ওই সবজির ফাইবার উপাদানটি বেরিয়ে যায়। তাই অনেক ক্ষেত্রেই গোটা সবজি খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। যাই হোক, সপ্তাহে এক-দু'বার এই ধরনের জুস পান করা যেতেই পারে। তবে দেখতে হবে এটি যেন ফ্রেশ হয়। বাড়িতে তৈরি করা গেলে সব চেয়ে ভালো হয়। এ ক্ষেত্রে আপনি কিছুটা জল দিয়ে পালং শাক এবং বাঁধাকপি পাতা মিশিয়ে জুস তৈরি করতে পারেন।

গাজর ও হামাস - গাজর ধুয়ে, তার খোসা ছাড়িয়ে, তাকে হামাসে ডুবিয়ে স্ন্যাকস তৈরি করা যেতে পারে। যদি গাজর খুব একটা ভালো না লাগে, তা হলে শশাকেও ব্যবহার করতে পারেন। আপনার স্ন্যাকস হিসেবে মন্দ নয় এটি।

টম্যাটো ও ধনেপাতার স্যালাড- আপনার স্ন্যাকসের তালিকায় রাখুন লো-ক্যালরি স্যালাড। এ ক্ষেত্রে টম্যাটোকে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিয়ে কেটে ফেলুন। এর পর তার সঙ্গে ধনেপাতা মিশিয়ে স্যালাড তৈরি করে নিন। এ বার স্যালাডে অল্প লেবুর রস আর গোলমরিচ দিন। বেশ ভালোই লাগবে খেতে।

মরশুমি ফল ও চাট মশলা - যে কোনও স্থানীয় মরশুমি ফল স্ন্যাক্স হিসেবে খাওয়া যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে যে ফলগুলির গ্লাইকেমিক ইনডেক্স কম ও ফাইবারের পরিমাণ বেশি, সেই মরশুমি ফলগুলিকে স্ন্যাক্স হিসেবে খাওয়া যেতে পারে। এটি আপনার রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে। এ ক্ষেত্রে স্বাদ বাড়াতে অল্প পরিমাণ কোনও চাট মশলা মিশিয়ে নিতে পারেন।

Published by: Ananya Chakraborty
First published: October 21, 2020, 3:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर