স্কুলে যাওয়ার আগে প্রত্যহ নাচ! ডাউন সিনড্রোমে আক্রান্ত শিশুর ভিডিও দেখে আপ্লুত নেটিজেনরা

এক বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন বাচ্চা রোজ নিয়ম করে এই টোটকা মেনে নিজেকে উৎসাহিত করে। স্কুলে যাওয়ার আগে প্রতি দিন সে একটু করে নেচে নেয়, যাতে সারা দিন ক্লান্তি না আসে। আর তার এই অভ্যেসেই মজেছেন নেটিজেনরা।

এক বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন বাচ্চা রোজ নিয়ম করে এই টোটকা মেনে নিজেকে উৎসাহিত করে। স্কুলে যাওয়ার আগে প্রতি দিন সে একটু করে নেচে নেয়, যাতে সারা দিন ক্লান্তি না আসে। আর তার এই অভ্যেসেই মজেছেন নেটিজেনরা।

  • Share this:

প্রতি দিনের ব্যস্ততায় নিজেকে সময় দেওয়া, নিজেকে আনন্দে মাতিয়ে রাখা অনেকেরই সম্ভব হয় না। কিন্তু অফিসে যাওয়ার আগে বা কাজে বসার আগে যদি নিজেকে একটু চার্জড আপ করে নেওয়া যায়, তাহলে মন্দ হয় না। অনেক মনোবিদরাই বলে থাকেন, এমন হলে কাজে মন বসে এবং কাজ ভালো হয়। পাশাপাশি মানসিক চাপ বা মানসিক অবসাদ হওয়ার সম্ভাবনা কমে।

শুধু চাকরিজীবী বা ব্যবসায়ী নয়, পড়ুয়া থেকে বৃদ্ধ সকলের জন্যই এই টোটকা দারুণ কাজে আসে। গান শুনে বা নাচ করে নিজেকে চার্জড আপ করা যায়। এছাড়াও যেটা করতে ভালো লাগে, সেটা যদি করা যায়, তাহলেও কিন্তু মন ভালো থাকে।

আমরা এই টোটকা মানতে না পারলেও এক বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন বাচ্চা কিন্তু রোজ নিয়ম করে এই টোটকা মেনে নিজেকে উৎসাহিত করে। স্কুলে যাওয়ার আগে প্রতি দিন সে একটু করে নেচে নেয়, যাতে সারা দিন ক্লান্তি না আসে। আর তার এই অভ্যেসেই মজেছেন নেটিজেনরা।

সম্প্রতি @thehouseofwheeler নামের একটি Instagram পেজ থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়। যাতে দেখা যায়, একজন বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন শিশু ট্রেগ হুইলার (Treg Wheeler) আমেরিকার রক ব্যান্ড ডার্টি হেডসের (Dirty Heads) ভ্যাকেশন (Vacation) গানে নাচছে।

একটি আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে গানের তালে কোমর নাচাচ্ছে ট্রেগ। যা দেখে আপ্লুত নেটিজেনরা ভালোবাসায় ভরিয়ে দেয় তাকে। ভিডিওটি শেয়ারের সঙ্গে সঙ্গেই কয়েক হাজার লাইক ও কমেন্ট পড়ে। শেয়ারও হয় অগুনতি। বহু মানুষ লেখেন, তার আত্মবিশ্বাস দেখে অবাক হতে হয়। অনেকে আবার লেখেন, ওর ইতিবাচক মনোভাবকে বাহবা জানাই। অনেকে আবার ট্রেগের জামা ও এক্সপ্রেশনের প্রশংসাও করেন।

ভিডিও থেকে জানা গিয়েছে, প্রি-স্কুলে পড়ে এই খুদে এবং স্কুলে যাওয়ার আগে রোজ এই কাজ করে সে। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে গানের তালে নিজেকে একবার নাচিয়ে নেয়। তার পর স্কুলে যায় সে।

এদিকে জানা যায়, ভিডিওটি ট্রেগের মায়ের প্রোফাইল থেকেই শেয়ার করা হয়। যা বহু মা'কে এবং ট্রেগের মতোই বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন শিশুকে আত্মবিশ্বাস জোগাবে। এবং ট্রেগের মতোই নিজের প্রতিভা উজাড় করে নিজের সমস্যাকে দূরে রেখে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে!

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: