Home /News /life-style /
Beauty Tips: যৌবন চিরস্থায়ী হবে আপনার মুখে, ত্বক হবে ঝকঝকে উজ্জ্বল, জাদু করবে হায়ালুরোনিক অ্যাসিড

Beauty Tips: যৌবন চিরস্থায়ী হবে আপনার মুখে, ত্বক হবে ঝকঝকে উজ্জ্বল, জাদু করবে হায়ালুরোনিক অ্যাসিড

Beauty Tips: benefits of hyaluronic acid- Photo -representative

Beauty Tips: benefits of hyaluronic acid- Photo -representative

ত্বকের সমস্ত দাগ, সূক্ষ রেখা এবং বলিরেখা নিরাময় করে। ত্বককে করে তোলে কোমল এবং বাউন্সি।উপকার জানলেও ব্যবহার করবেন আপনিও!

  • Share this:

#কলকাতা: হায়ালুরোনিক অ্যাসিড। প্রতিটা ফেস ক্রিম, প্রতিটা সিরামে এই উপাদানটা থাকে। এটা জাদু ওষুধের মতো। ত্বকের সমস্ত দাগ, সূক্ষ রেখা এবং বলিরেখা নিরাময় করে। ত্বককে করে তোলে কোমল এবং বাউন্সি।

হায়ালুরোনিক অ্যাসিড, ওরফে হায়ালুরোনান শরীরে প্রাকৃতিকভাবে উৎপাদিত হয়। এটা জল ধরে রাখে তাই ত্বকের হাইড্রেটরও বলা হয়। এর জন্যই ত্বক আর্দ্র থাকে। বিশেষজ্ঞরা এই উপাদানটাকে এ+ ময়শ্চারাইজার আখ্যা দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, এটা ত্বককে তাৎক্ষণিকভাবে মসৃণ করে তুলতে পারে।

তারুণ্যময় এবং পুষ্টিকর ত্বক: হায়ালুরোনিক অ্যাসিড শরীরেই রয়েছে। কিন্তু বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এর উৎপাদন হ্রাস পেতে থাকে। তাছাড়া প্রখর সূর্যালোকেও হায়ালুরোনিক অ্যাসিডের উৎপাদন ব্যহত হয়। এ জন্য হায়ালুরোনিক অ্যাসিডের সিরাম ব্যবহার করা যায়। এটা সূক্ষ রেখা এবং বলিরেখা কমাতে কার্যকর।

আরও পড়ুন- Weather Alert: একটু বাদেই কলকাতায় ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি, ১২ রাজ্যে তুমুল বৃষ্টি জানাল আইএমডি, আজকের ওয়েদার আপডেট

ত্বককে হাইড্রেটেড রাখে, উজ্জ্বল করে: অনেকেই শুষ্ক এবং খসখসে ত্বকের সমস্যায় ভোগেন। তাঁদের জন্য এটা অব্যর্থ। হায়ালুরোনিক অ্যাসিড ত্বকের বাইরের স্তরকে তাৎক্ষণিক ভাবে হাইড্রেটেড করে। ফলে ত্বক উজ্জ্বল এবং চকচকে মনে হয়।

দ্রুত ক্ষত নিরাময় করে: হায়ালুরোনিক অ্যাসিড প্রাকৃতিকভাবে ত্বকে উপস্থিত। তবে কেটে ছড়ে গেলে বা ঘা হলে এর ঘনত্ব বৃদ্ধি পায়। তাই ক্ষতগুলি দ্রুত নিরাময় করে। কারণ অ্যাসিড শরীরকে আরও রক্তনালী তৈরি করার জন্য সংকেত পাঠাতে থাকে।

আরও পড়ুন-  Achinta Sheuli: বার্মিংহ্যামে উঠল তেরঙ্গা, ‘জন গণ মন’ গাইছিলেন সোনা জয়ী অচিন্ত্য, দেখুন

সব ধরনের ত্বকে: হায়ালুরোনিক অ্যাসিড নিঃসন্দেহে ত্বকের জন্য সেরা ময়েশ্চারাইজার। এটি অতিরিক্ত আর্দ্রতা ধরে রাখতে পারে। প্রায় সব ধরনের ত্বকের জন্যই উপযুক্ত। কিন্তু এর থেকে সেরাটা পেতে হলে, কোন ধরনের পণ্য ব্যবহার করা হচ্ছে, সেটা ময়েশ্চারাইজার নাকি সিরাম, সেটা বুঝতে হবে।

ময়েশ্চারাইজার হিসেবে: পরিষ্কার, এক্সফোলিয়েটিং এবং সিরাম লাগানোর পর দিনে দুবার ময়েশ্চারাইজারের সঙ্গে হায়ালুরোনিক অ্যাসিড মিশিয়ে ত্বকে লাগাতে হবে। এক সপ্তাহের মধ্যে হাতেনাতে ফল মিলবে।

সিরামের জন্য: মুখ পরিষ্কার করার পর ভেজা ত্বকে কয়েক ফোঁটা হায়ালুরোনিক অ্যাসিড সিরাম লাগাতে হবে। মনে রাখতে হবে, শুকনো অবস্থায় নয়। ত্বক যেন সামান্য ভেজা থাকে। তবেই ভালো ফ মিলবে। কারণ অ্যাসিডের বিক্রিয়ার জন্য আর্দ্রতার প্রয়োজন। সিরাম লাগানোর পর হালকা হাতে মুখে মাসাজ করতে হবে। তারপর লাগাতে হবে ময়েশ্চারাইজার। এটা কালো দাগ, বলিরেখা কমানোর পাশাপাশি ত্বকে প্রাকৃতিক আভা এনে দেবে।

Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: Beauty tips, Lifestyle

পরবর্তী খবর