• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • মন খারাপ? গলা শুনেই বলে দেবে এই যন্ত্র!

মন খারাপ? গলা শুনেই বলে দেবে এই যন্ত্র!

depression, Representative Image

depression, Representative Image

একাকিত্ব এমন এক মারাত্মক জিনিস যার ফলে মানুষ আত্মহত্যার পথও বেছে নেন। আর বয়সকালে একাকিত্ব তো আরও মারাত্মক। যার হাত থেকে রেহাই পাওয়া অনেকের পক্ষেই খুব কঠিন হয়ে পড়ে।

  • Share this:

#কলকাতা: আপনি হয়তো মনমরা হয়ে রয়েছেন। বেশ একটা মন ভাল করা গান শুনতে ইচ্ছা হল আপনার সেই মুহূর্তটায়। কাছে থাকা অ্যালেক্সাকে নির্দেশ দিলেন, 'অ্যালেক্সা , ডেসপাসিটো চালাও। মন ভাল লাগছে না'। সঙ্গে সঙ্গে অ্যালেক্সা গান বাজানো শুরু করল। কিন্তু অ্যালেক্সার মতন আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স কি আপনাকে বলে দিতে পারবে, সত্যিকারের মন খারাপে কখন ভোগেন আপনি? একাকিত্ব এমন এক মারাত্মক জিনিস যার ফলে মানুষ আত্মহত্যার পথও বেছে নেন। আর বয়সকালে একাকিত্ব তো আরও মারাত্মক। যার হাত থেকে রেহাই পাওয়া অনেকের পক্ষেই খুব কঠিন হয়ে পড়ে।

ইউসি সান দিয়েগো স্কুল অফ মেডিসিন-এর গবেষকরা সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণাপত্রে আলোচনা করেছেন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের একাকিত্ব তাঁর গলার আওয়াজ শুনে আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্সের বুঝতে পারার বিষয়টা। আমেরিকান জার্নাল অফ জেরিয়াট্রিক সাইকিয়াট্রি-তে প্রকাশ পাওয়া এই গবেষণাপত্রে মানুষের সামাজিক দুঃখবোধের গভীরতা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

এই গবেষণাপত্রের সঙ্গে জড়িত একজন গবেষক জানান, ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং অথবা এনএলপি-র মাধ্যমে কথা শুনে বোঝা সম্ভব মানুষ কতটা অবসাদ বা দুঃখবোধের শিকার। মানুষের করা বিশ্লেষণেও এতটা সঠিকভাবে বলা সম্ভব নয়। তা ছাড়া কোনও ব্যক্তির মাধ্যমে এই বিশ্লেষণ করার ব্যাপারে অনেক অসুবিধা দেখা দিতে পারে। যদি সেই ব্যক্তির ঠিক মতন প্রশিক্ষণ না থাকে, তা হলে তিনি এই কাজ ভাল করে করতে পারবেন না।

আসলেই গলা শুনে বোঝা সম্ভব মানুষ কতটা দুঃখে রয়েছে। গবেষণাটি ঠিক পথে নিয়ে যেতে এনএলপি-র সাহায্য নেওয়া হয়েছে। ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং পদ্ধতিতে মানুষ কতটা দুঃখে রয়েছে তা বলে দেওয়া সম্ভব। এই আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স পদ্ধতি ব্যবহার করে, কোনও মানুষের গলার আওয়াজ শুনেই বলে দেওয়া সম্ভব তিনি সাইকোসিস অথবা বাইপোলার ডিজঅর্ডারে আক্রান্ত কি না। আইবিএম-এর বানানো ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং-এ কারও নেওয়া ইন্টারভিউ ফেললেই তা ট্রান্সক্রাইব হওয়া শুরু করে এবং জানান দিতে পারে ব্যক্তি কোন মানসিক রোগের শিকার।

এই আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স পদ্ধতিতে কোনও ব্যক্তির একাকিত্ব ৯৪% অবধি নির্ভুল ভাবে জানানো সম্ভব। গবেষণায় জানানো হয়েছে, এমনকি কোনও কোনও আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স সিস্টেম ইতিবাচক চেতনার মাধ্যমে কারও মনখারাপ দূর করতেও সক্ষম। যার ফলে মানুষ উদ্বেগ কাটিয়ে উঠে সামাজিক ভাবে আবার ঠিক হয়ে ওঠে।

Published by:Pooja Basu
First published: