মেনুতে রয়েছে ধোনি খিচড়ি, কোহলি খামান; এই রেস্তোরাঁয় গেলে পাবেন ৫ ফুট লম্বা মোতেরা থালি!

মেনুতে রয়েছে ধোনি খিচড়ি, কোহলি খামান; এই রেস্তোরাঁয় গেলে পাবেন ৫ ফুট লম্বা মোতেরা থালি!

মেনুতে রয়েছে ধোনি খিচড়ি, কোহলি খামান; এই রেস্তোরাঁয় গেলে পাবেন ৫ ফুট লম্বা মোতেরা থালি!

একটু অন্য রকম ভাবে বিখ্যাত হয়ে উঠল এক গুজরাতি থালি। ক্রিকেটের ২২ গজ নেমে এল খাবারের প্লেটে।

  • Share this:

#আহমেদাবাদ: নানা ধর্ম, বর্ণের দেশ ভারতে খাবারের মধ্যেও একাধিক বৈচিত্র্য রয়েছে। উত্তর থেকে দক্ষিণে হোক কিংবা পূর্ব থেকে পশ্চিমে, দেশের নানা প্রান্তে খাদ্য ব্যঞ্জনের বিস্তর বিভাজন রয়েছে। এক একটি খাবারের জন্য প্রসিদ্ধ এক একটি স্থান। তবে এবার একটু অন্য রকম ভাবে বিখ্যাত হয়ে উঠল এক গুজরাতি থালি। ক্রিকেটের ২২ গজ নেমে এল খাবারের প্লেটে। এবার আহমেদাবাদের ম্যারিয়ট (Mariott) রেস্তোরাঁ হাজির করল ৫ ফুট লম্বা মোতেরা খালি। মেনুতে রয়েছে ধোনি খিচড়ি, কোহলি খামান থেকে শুরু করে নানা খাবার।

প্রায়শই ট্রেন্ডে থাকে থালি চ্যালেঞ্জ। আপাতত মোতেরা থালি চ্যালেঞ্জে মজেছেন সবাই। তবে এই চ্যালেঞ্জ একটু অন্য রকম। কারণ, চ্যালেঞ্জে অংশগ্রহণকারী প্রতিযোগীকে মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই ৫ ফুট লম্বা এই সুবিশাল থালি শেষ করতে হবে। এক্ষেত্রে অবশ্য পরিবারের সদস্য কিংবা বন্ধুদের সাহায্য নিতে পারেন সংশ্লিষ্ট অংশগ্রহণকারী। এখানেও একটি শর্ত রয়েছে। চার জনের বেশি ভাগ বসাতে পারবেন না থালিতে। ইতিমধ্যেই এই চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন পার্থিব পটেল (Parthiv Patel)।

এই মুহূর্তে রেস্তোরাঁয় আসা সবার কাছে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে মোতেরা থালি। প্লেয়ারদের নামের সঙ্গে মিলিয়ে নানা মেনুর নাম দেওয়া হয়েছে। থালির ব্যঞ্জনে রয়েছে কোহলি খামান (Kohli Khaman), পাণ্ড্য পাত্রা (Pandya Patra), ধোনি খিচড়ি (Dhoni Khichdi), ভুবনেশ্বর ভর্তা (Bhuvaneshwar Bharta), রোহিত আলু রসিলা (Rohit Aloo Rashila), শার্দূল শ্রীখণ্ড (Shardul Shrikhand), বাউন্সার বাসুন্দি (Bouncer Basundi), হ্যাট্রিক গুজরাতি ডাল (Hattrick Gujarati dal), বুমরা ভিন্ডি শিমলামির্চ (Bhumra Bhindi Simlamirch) , হরভজন হান্ডভো (Harbhajan Handvo)।

এই বিশাল থালায় মূল মেনুর সঙ্গে স্ন্যাকস, রুটি, আচার, মিষ্টি থেকে শুরু করে নানা ছোট ছোট ডিশও রয়েছে। তাই ২২ গজের নেশার মতো এই মোতেরা থালির নেশাও বড় অদ্ভুত। জিভে জল এনে দেয়।

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একের পর এক ঐতিহাসিক জয় পেয়েছে ভারত। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তরুণ ভারতীয়রা বহু বছরের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। প্রতিকূল পরিস্থিতি ও চোটের মাঝেও টেস্ট সিরিজ জিতেছে। দেশে ফিরে অব্যহত রয়েছে সেই জয়ের ধারা। ইতিমধ্যে ইংরেজদের ধরাশায়ী করে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠেছে ভারত। সেই সূত্রেই 'ক্রিকেট রাস' (Cricket Raas) নামে একটি উৎসবের মধ্য দিয়ে উদযাপন করা হয়েছে এই সাফল্যকে। উল্লেখ্য, 'ক্রিকেট রাস' উৎসবের মধ্য দিয়েই প্রথমবার প্রকাশ্যে আসে গুজরাতের এই জনপ্রিয় থালি।

Published by:Debalina Datta
First published:

লেটেস্ট খবর