রং ঘন নীল, ক্যানসার-প্রতিরোধক এই বিরল ও বহুমূল্য হলুদ আগে কখনও দেখেছেন?

রং ঘন নীল, ক্যানসার-প্রতিরোধক এই বিরল ও বহুমূল্য হলুদ আগে কখনও দেখেছেন?
হলুদ। রান্নাঘরের এই ভেষজগুণসম্পন্ন মশলা দারুণ কার্যকরী। প্রাচীনকাল থেকেই আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে এর একাধিক উপকারিতার কথা বলা হয়েছে

হলুদ। রান্নাঘরের এই ভেষজগুণসম্পন্ন মশলা দারুণ কার্যকরী। প্রাচীনকাল থেকেই আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে এর একাধিক উপকারিতার কথা বলা হয়েছে

  • Share this:

#কলকাতা: হলুদ। রান্নাঘরের এই ভেষজগুণসম্পন্ন মশলা দারুণ কার্যকরী। প্রাচীনকাল থেকেই আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে এর একাধিক উপকারিতার কথা বলা হয়েছে। শুধু রান্না নয়, একাধিক রোগের চিকিৎসার হলুদের জুড়ি মেলা ভার। হলুদ রং তো সবার পরিচিত। কিন্তু এই নীল রঙের হলুদ কখনও দেখেছেন? এই বিশেষ প্রজাতির হলুদের নাম হল ব্ল্যাক টারমারিক। চিকিৎসকদের কথায়, ক্যানসার-সহ একাধিক রোগে ম্যাজিকের মতো কাজ করে বিরল ও বহুমূল্য এই হলুদ।

সম্প্রতি, ব্ল্যাক টারমারিকের (Black Turmeric) একটি ছবি শেয়ার করেছেন IFS অফিসার শ্বেতা বড্ডু (Swetha Boddu)। ছবিটি পোস্ট করার পর তিনি জানিয়েছেন, সাধারণ হলুদের থেকে অনেক দামি এই হলুদ। এর রং নীল। এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট থাকে। এর জেরে ক্যানসার-সহ একাধিক দুরারোগ্য ব্যাধিতে দারুণ উপকারী এই বিশেষ ধরনের হলুদ।

ড. দীপা শর্মা নামে এক ট্যুইট ব্যবহারকারী জানিয়েছেন এই আয়ুর্বেদিক মহৌষধি গাছকে করচুর (Karchur) বলা হয়। এর বিজ্ঞানসম্মত নাম কারকিউমা জেডোয়ারিয়া (Curcuma Zedoaria)। এই হলুদের মাধ্যমে ইনফ্ল্যামেশন, জ্বর, গাঁটে ব্যথা, ত্বকের রোগ, বমি-বমি ভাব, পেটে ব্যথা, কফ-কাশি-সহ একাধিক সমস্যায় উপকার মেলে। এর পাশাপাশি মেনস্ট্রুয়াল সাইকেল নিয়মিত রাখতে দারুণ কার্যকরী এই ভেষজ হলুদ। মূত্রনালীর নানা রোগ সারাতেও এর ভূমিকা অপরিসীম। অন্য এক ট্যুইট ব্যবহারকারী জানিয়েছেন, এই ভেষজ উদ্ভিদের নাম কারকিউমা ক্যাশিয়া (Curcuma Caesia)। সাধারণ হলুদ ও এই নীল রঙের হলুদের মধ্যে পার্থক্যও বুঝিয়েছেন তিনি।

Diaspora Co নামে একটি ইনস্টাগ্রাম (Instagram) পেইজেও এই ব্ল্যাক টারমারিক বা বিশেষ ধরনের হলুদের ছবি শেযার করা হয়েছে। ছবি সূত্রে জানা গিয়েছে, বিজয়ওয়াড়া এলাকায় পাওয়া গিয়েছে এই হলুদ। তবে, ওষুধ তৈরিতে অত্যন্ত প্রয়োজনীয় এই গাছের চাষ করা না কি খুব কঠিন। তা ছাড়া উৎপাদনের পরিমাণও কম।

View this post on Instagram

A post shared by Diaspora Co (@diasporaco)

এক ইনস্টাগ্রাম ইউজার খানিকটা অবাক হয়ে লেখেন, ব্ল্যাক টার্মারিক! না ব্লু  টার্মারিক? এই বিশেষ প্রজাতির হলুদ নিয়ে গবেষণা করা ও চাষ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি। একজনের তো এই বিষয়ে কোনও ধারণাই ছিল না। এই রকম হলুদের ছবি দেখে নিজের অবাক হওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি। এই ধরনের হলুদ কী ভাবে চাষ করা যেতে পারে, সেই বিষয়ে অনেকে জানতে চেয়েছেন। এগুলি কোথায় পাওয়া যায়, কী ভাবে বাড়ির টবে চাষ করা যাবে, তা নিয়েও কৌতূহলের শেষ নেই!

Published by:Akash Misra
First published: