মোবাইল ফোনে পর্ন দেখেন? আপনি তাহলে বিপদের মুখে...

দেখার সময় মাথায় আর কিছুই আসে না ৷ গুগুলে নাম লিখে লিখে একের পর এক পর্ন ছবিতে চোখ রাখেন ৷ হাতের মুঠোয় অ্যানড্রয়েড

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Jan 25, 2017 04:41 PM IST
মোবাইল ফোনে পর্ন দেখেন? আপনি তাহলে বিপদের মুখে...
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Jan 25, 2017 04:41 PM IST

#কলকাতা: দেখার সময় মাথায় আর কিছুই আসে না ৷ গুগুলে নাম লিখে লিখে একের পর এক পর্ন ছবিতে চোখ রাখেন ৷ হাতের মুঠোয় অ্যানড্রয়েড ফোন আসার পর এই অভ্যাসে কাবু অনেকেই ৷ কিন্তু জানেন কি? আপনার অজান্তেই আপনার এই অভ্যাস ডেকে আনতে পারে বিপদ ৷ কীভাবে? পড়ে নিন

১) আপনি কী নিয়মিত মোবাইলে পর্ন দেখছেন? আপনার মোবাইল মেমোরিতে অজান্তেই জমা হয়ে যাচ্ছে প্রচুর ভাইরাস ৷ যা কিনা ধীরে ধীরে নষ্ট করে দিতে পারে আপনার অ্যান্ড্রয়েড সফটওয়্যারগুলোকে ৷ আর বেশিমাত্রায় এটা ঘটে থাকে, আপনি যদি পর্ন সম্পর্কীত অ্যাপ ডাউনলোড করেন, তাহলে বিপত্তিটা আরও বাড়বে ৷ তবে এটা ভাবার কোনও কারণ নেই, যে গুগলে সার্চ করে নীল ছবি দেখলে, বিপদ মুক্ত হবেন ৷ সেখানেও রয়েছে আরেক বিপদ ৷ যার নাম পর্ন টিকিট ৷ যা কিনা অজান্তেই আপনার ফোনের মধ্যে ঢুকে দুর্বল করে দেয় আপনার সফটওয়্যার ৷

২) ইন্টারনেটে কোনও কিছুই বিনামূল্যে পাওয়া যায় না ৷ তাই এটা ভাবাটা একেবারেই বোকামি ৷ নয় আপনার ক্যাশ যাবে, নয় আপনার ডাটা ৷ কিন্তু তার ওপরে বিপদ ডাকতে পারে হ্যাকাররা ৷ আপনার মোবাইলে ঢুকে তথ্য নিয়ে আপনাকের ব্ল্যাকমেল করাটা হ্যাকারদের কাছে বা হাতের খেলা !

আরও পড়ুন 

অন্যান্য প্রাণীর চেয়ে মানুষই ‘সেক্স’ করে নিয়মিত ! জানেন কেন?

Loading...

৩) ইন্টারনেটে আপনি কী করছেন, কী দেখছেন, আপনার প্রত্যেকটি পদক্ষেপে নজর রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের ৷ আপনি যে কোম্পানির ইন্টারনেট ব্যবহার করেন, সেই কোম্পানির কাছে রেজিস্ট্রার হচ্ছে আপনার ইন্টারনেট ব্যবহারের সব তথ্য ৷ তাই ভবিষ্যতে দেশ যদি পর্ন নিয়ে কোনও আইনি প্রতিবন্ধকতার আইন আনে, তাহলে আপনাকে ধরতে সময় লাগবে মাত্র ৫ মিনিট ৷

৪) অনেকে মনে করেন ইন্টারনেট হিস্ট্রি ডিলিট করলেই, আর কোনও ঝামেলা নেই৷ কিন্তু জানেন কি? ব্যাকআপে থেকে যায় সব কিছুই ৷ হিস্ট্রি ডিলিট বলে আদতে কিছুই হয় না ৷

৫) মোবাইল ফোনে নীল ছবি দেখলে, ফোন ভাইরাস আক্রান্ত হয় সবচেয়ে বেশি ৷ আর সবার আগে দুর্বল হয়ে পড়ে আপনার ফোনের ব্যাটরি ৷

First published: 04:39:38 PM Jan 25, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर