মা-সদ্য বিবাহিতা স্ত্রীয়ের আর্তি ‘বাড়ি ফিরে চল শানু’, কালীপুজোর আগেই চির ছুটিতে অমিতাভ

মা-সদ্য বিবাহিতা স্ত্রীয়ের আর্তি ‘বাড়ি ফিরে চল শানু’, কালীপুজোর আগে চির ছুটিতে অমিতাভ

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Oct 15, 2017 10:07 AM IST
মা-সদ্য বিবাহিতা স্ত্রীয়ের আর্তি ‘বাড়ি ফিরে চল শানু’, কালীপুজোর আগেই চির ছুটিতে অমিতাভ
নিজস্ব চিত্র
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Oct 15, 2017 10:07 AM IST

 #কলকাতা: কালীপুজোর ছুটির আগেই ছুটি হয়ে গেল এস আই অমিতাভ মালিকের। এ বার অন্যভাবে বাড়ি ফেরা। দু'চোখে প্রবল ঘুম নিয়ে, কফিনবন্দি হয়ে। মধ্যমগ্রামের বাড়ির সামনে উপচে পড়া ভিড়। পুলিশের গান স্যালুট। তারপর সবশেষ নিমতলা শ্মশানে ৷ এখনও অমিতাভর মৃত্যু মানতে পারছে না পরিবার।

চোখের সামনে অমিতাভর দেহ। কিন্তু, আসলে সে অনেক দূরে চলে গিয়েছে। এই সত্যিটাই মানতে পারছে না বিউটি। গত ১২ মার্চ সাত পাকে পরিণতি পায় বহুদিনের প্রেমের সম্পর্ক। এখনও কত কথা বাকি অমিতাভ-বিউটির। তার সব কথা এখন বদলে গিয়েছে কান্নায়। স্বামীর নিথর দেহের উপর আছড়ে পড়ে সদ্য ২৩-এ পা দেওয়া বিউটির এখন একটাই কথা, 'শানু তুমি বাড়ি ফিরে চলো। তোমায় ছাড়া আমি বাঁচব না।'

পুলিশের চাকরিতে ছুটি কম। তা নিয়ে অনুযোগ ছিল বিউটির। আক্ষেপ কম ছিল না অমিতাভরও। দীপাবলির ছুটিতে বাড়ি ফেরার কথা। কিন্তু, তার আগেই ছুটি হল। পাহাড় থেকে বছর ২৭-এর তরুণ অমিতাভ ফিরল কফিনবন্দি হয়ে।

মহিলা পুলিশকর্মী ও ডাক্তাররা কফিনের সামনে থেকে বারেবারেই সরিয়ে দিয়েছেন বিউটিকে। কিন্তু, বাঁধ মানছে না শোক। কখনও কফিন আঁকড়ে স্বামীর ঘুম ভাঙানোর আর্তি। কখনও বা শোক বদলে গিয়েছে প্রতিশোধের আগুনে। ডিজির কাছে বিউটির অনুযোগ, ‘আমি চাই গুরুঙের মাথাতেও গুলি লাগুক ৷ গুরুং মাথায় গুলি খেলে শান্তি পাবে অমিতাভ ৷’

দীপাবলির আগেই উধাও আলোর রোশনাই। লাগেজ হাতে আর বাড়ি ফিরবে না অমিতাভ। এই সত্যিটাই এখন ধীরে ধীরে গোটা পরিবারকে গ্রাস করছে।

First published: 09:58:05 AM Oct 15, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर