বন্ধুত্বের নামে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁদ, নেট দুনিয়ার অন্দরে অন্ধকারে ইয়ংজেন

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Feb 03, 2017 07:29 PM IST
বন্ধুত্বের নামে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁদ, নেট দুনিয়ার অন্দরে অন্ধকারে ইয়ংজেন
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Feb 03, 2017 07:29 PM IST

#কলকাতা: আইও ক্লাব। নেট দুনিয়ায় বন্ধুত্ব পাতানোর ক্লাব। সদস্য সংখ্যা কয়েক কোটি। পছন্দমতো বন্ধু খুঁজে নিতে এখানে ভিড় করেন নেটিজেনরা। বন্ধুত্ব হয়। আবার কখনও কখনও সোশ্যাল মিডিয়ায় বন্ধুত্বের এই ফাঁদেই চরম মূল্য দিতে হয় আকাঙ্খা শর্মা, মৌসুমী বর্মণদের। একাকিত্ব কাটাতে ভারচুয়াল বন্ধুদের ওপরই ভরসা রাখার প্রবণতা এখন ভাইরাল। যেটা আশঙ্কা, তা হল এই বন্ধুত্বের ব্যাপারে কোনও তথ্য থাকে না তৃতীয় ব্যক্তির কাছে।

আইও ক্লাব। পিএনএ স্কোয়ারের মতো ক্লাব জনপ্রিয়তায় পাল্লা দেবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বা মোহনবাগানের সঙ্গে। বাস্তবে অবশ্য এদের কোনও অস্তিত্বই নেই। ভার্চুয়াল বন্ধু পেতেই এইসব ক্লাবে নাম লেখানোর হিড়িক। নাম, পরিচয় কোনও কিছুই দরকার নেই। সামাজিক যোগাযোগ কমে আসাতেই কি বন্ধুত্বের খোঁজে ভারচুয়াল দুনিয়ার ওপর নির্ভরতা বাড়ছে ফেসবুক - হোয়াটস অ্যাপে ফ্রেন্ড রিকোরেস্ট দেখাতে হবে ৷

অফিস হোক বা বাড়ি। শহর হোক বা গ্রাম। নিজের  কথা, অনুভূতি অন্যের সঙ্গে ভাগ করে নেওয়ার সুযোগ প্রায় নেই। একাকিত্ব অসহ্য হয়ে উঠলে ভরসা সেই সোশ্যাল মিডিয়া।

না পরিচয়। না পরিচিতি। অথচ ঘণ্টার পর ঘণ্টার চ্যাট। ভাইচুয়াল দুনিয়ায় বন্ধুত্বের ফাঁদে পা দিয়ে অনেক সময়ই চরম ঝুঁকি নেওয়াটাই এখন দস্তুর।

নেটদুনিয়ায় বন্ধুত্ব যেন বিপদের কারণ হয়ে না ওঠে। সামান্য কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখলেই তা নিশ্চিত করা সম্ভব। অচেনা বন্ধুর ডাকে সাড়া দিলেও তার পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হতে হবে। বন্ধুত্ব ও বন্ধুদের বিষয়ে জানিয়ে রাখতে হবে পরিবারকে। বিপদ এড়াতে এটুকু সতর্কতা মাস্ট।

First published: 07:29:18 PM Feb 03, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर