corona virus btn
corona virus btn
Loading

বছরের শেষ দিনে ইকো পার্ক থেকে চিড়িয়াখানা সর্বত্রই উপছে পড়া ভিড়

বছরের শেষ দিনে ইকো পার্ক থেকে চিড়িয়াখানা সর্বত্রই উপছে পড়া ভিড়
Kolkata Zoo

বছরের শেষ দিনে ইকো পার্ক থেকে চিড়িয়াখানা সর্বত্রই উপছে পড়া ভিড়

  • Share this:

 #কলকাতা: আজ বছরের শেষ দিন। উৎসবের মেজাজে তিলোত্তমা। উপরি পাওনা হিসেবে আজ রবিবার হওয়ায়, উৎসবের মেজাজ আরও বেড়েছে। চিড়িয়াখানা, ভিক্টোরিয়া থেকে বিনোদন পার্ক। সর্বত্রই সকাল থেকে মানুষের ঢল।

শীত পড়ুক আর নাই বা পড়ুক বড়দিনের পর এবার বর্ষবরণের পালা ৷ নিউ ইয়ার ইভের সন্ধেয় মায়াবী আলোর চাদরে নিজেকে মুড়ে ফেলার আগেই তিলোত্তমা মেতেছে উৎসবের আনন্দে ৷ পৌষালী শীতের কামড় বড়দিনে অধরা থাকলেও সকাল থেকে শহরে শুরু বর্ষবরণের প্রস্তুতি ৷

শীতের কলকাতায় চিড়িয়াখানার আকর্ষণ চির নতুন। বহুবার দেখেও যেন আশ মেটেনা। সেই ছোটবেলায় বাবা, মায়ের হাত ধরে বাঘ, সিংহ দেখতে আসার স্মৃতি যেন প্রতিবারই নতুন করে ফিরে আসে এখানে এলে। ভিড় শুরু হয়েছিল আগে থেকেই। তবে বড়দিনের পর ৩১ ডিসেম্বরে তা যেন বাঁধ ভাঙল।

সকাল থেকেই চিড়িয়াখানার সামনে লম্বা লাইন। শিম্পাঞ্জি বাবু এবারও সুপারহিট। ভিড় বাঘ, হাতি দেখতেও। নতুন আসা অতিথিদের খুনসুটিতেও মন মজেছিল অনেকের। জাঁকিয়ে শীত না পড়লেও উৎসবে খামতি ছিল না কারোরই। ক্যাঙারু, সিংহ, জাগুয়ার, মাউস ডিয়ারদের সঙ্গেই আজ দিনভর কাটতে চলেছে আট থেকে আশির।

শুধুই পশুপাখি দেখা নয়। ঘোরাঘুরির ফাঁকে মাঠে বসে জমিয়ে পিকনিক। চিড়িয়াখানা ছাড়া এ আনন্দ আর কোথায় ? বাড়ি থেকে খাবার এনে জমিয়ে ভোজ। মাঠেই একটু গড়িয়ে নেওয়া। মাঝে অবশ্য বাদ যায়নি খেলাধুলো।

অ্যানাকোন্ডা এখনও আসেনি। তবু তার নামেই ভিড় বাড়ছে চিড়িয়াখানায়।নতুন আর পুরনো পশুপাখি দেখতে ছিল উপচে পড়া ভিড়। হালকা ঠান্ডায় আইসক্রিম। কখনও ক্যামেরার ফ্ল্যাশ, কখনও সেলফি। বড়দিন উপলক্ষে পরিবার ও বন্ধুদের নিয়ে শৈশব খুঁজলেন অনেকেই।

শুধু চিড়িয়াখানাই নয়, বেলা গড়াতে না গড়াতেই বছর শেষের দিনটার আনন্দ চেটেপুটে নিতে ভিড় জমেছে ইকো পার্ক থেকে নিকো পার্ক, বিড়লা প্ল্যানেটোরিয়াম থেকে ভিক্টোরিয়া ৷ দিন পেরিয়ে রাত গড়ালেই শুরু আরও একটা বছর ৷ পুরনো বছর বিদায় জানিয়ে নতুনকে স্বাগত জানাতে তৈরি সকলে ৷

First published: December 31, 2017, 11:18 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर