Home /News /kolkata /
World Bank Loan to West Bengal: রাজ্যকে এক হাজার কোটির ঋণ দিল বিশ্বব্যাঙ্ক, সরকারি সুবিধে পাবেন আরও বেশি মানুষ

World Bank Loan to West Bengal: রাজ্যকে এক হাজার কোটির ঋণ দিল বিশ্বব্যাঙ্ক, সরকারি সুবিধে পাবেন আরও বেশি মানুষ

রাজ্য সরকারকে এক হাজার কোটি ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাঙ্ক৷

রাজ্য সরকারকে এক হাজার কোটি ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাঙ্ক৷

এর ফলে স্বাস্থ্য সাথী, কন্যাশ্রী (Kanyashree), রূপশ্রীর মতো প্রকল্পগুলি চালাতে সরকারের আরও সুবিধা হবে বলেই মনে করা হচ্ছে (World Bank Loan to West Bengal)৷

  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্য সরকার পরিচালিত সামাজিক প্রকল্পগুলিকে স্বীকৃতি দিয়ে এক হাজার কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাঙ্ক (World Bank Loan to West Bengal)৷ গরিব এবং সমাজের প্রান্তিক শ্রেণির মানুষের পাশে দাঁড়াতে রাজ্য সরকার যাতে আরও সুসংহত ভাবে সমাজ উন্নয়নমূলক প্রকল্পগুলি চালাতে পারে, তা নিশ্চিত করতেই এই ঋণ দেওয়া হয়েছে বলে রাজ্য সরকারের প্রকাশিত বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে৷

এর ফলে স্বাস্থ্য সাথী, কন্যাশ্রী (Kanyashree), রূপশ্রীর মতো প্রকল্পগুলি চালাতে সরকারের আরও সুবিধা হবে বলেই মনে করা হচ্ছ৷ গত ১৯ জানুয়ারি এই ঝণ অনুমোদন করেছে বিশ্বব্যাঙ্ক৷

আরও পড়ুন: করোনা কালে মদ বিক্রি থেকেই কোষাগারে ২৩ হাজার কোটি! রাজ্যে নয়া রেকর্ড

এই মুহূর্তে রাজ্য সরকারের অধীনে চারশোরও বেশি সামাজিক প্রকল্প চালু রয়েছে৷ 'জয় বাংলা' নামের প্রকল্পের অধীনে রাজ্যের সব সামাজিক প্রকল্পগুলিকে নিয়ে এসেছে রাজ্য৷ প্রবীন নাগরিক, মহিলা, আদিবাসী, তপশিলি জাতি- উপজাতির মতো সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষকে চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় সুবিধে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা চলছে৷ পাশাপাশি, দুয়ারে সরকার (Duare Sarkar) কর্মসূিচর মাধ্যমে সহজেই মানুষের কাছে বিভিন্ন সামাজিক প্রকল্পের সুবিধে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে৷

আরও পড়ুন: শুক্রের বারবেলায় 'লক্ষ্মী' এল বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের ঘরে!

এই ঋণ হাতে আসার ফলে নিজেদের পরিচালিত প্রকল্পগুলিকে আরও বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে বলেও বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে৷ বিবৃতিতে বলা হয়ছে, এই ঋণ হাতে আসায় মানুষ যাতে আরও সহজে সামাজিক প্রকল্পের সুবিধে পান, তা নিশ্চিত করতে পারবে সরকার৷ টেলি মেডিসিনের মাধ্যমে মানুষকে চিকিৎসায়, সাহায্য করা, বয়স্ক এবং প্রতিবন্ধ্বীদের জন্য আরও বেশি করে সুযোগ সুবিধা, ডিজিটাল পেমেন্টের মাধ্য মানুষের কাছে আর্থিক সুবিধে আরও সহজে পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে৷

রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই সামাজিক প্রকল্পের উপরে জোর দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সবুজ সাথী, কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, স্বাস্থ্য সাথীর মতো বিভিন্ন প্রকল্প শুরু করেন তিনি৷ সম্প্রতি চালু হয়েছে লক্ষ্মীর ভান্ডারের মতো জনপ্রিয় প্রকল্প৷ রাজ্যের বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে, এই ঋণ আসলে মুখ্যমন্ত্রীর দৃরদৃষ্টিকে বিশ্বব্যাঙ্কের স্বীকৃতি৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

পরবর্তী খবর