কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

জুনেই মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক? পরীক্ষাসূচি অনুমোদনের জন্য প্রস্তাব গেল স্কুল শিক্ষা দফতরে

জুনেই মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক? পরীক্ষাসূচি অনুমোদনের জন্য প্রস্তাব গেল স্কুল শিক্ষা দফতরে

অনুমোদন এলে শীঘ্রই মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এবং উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফের নোটিফিকেশন জারি করা হতে পারে।

  • Share this:

#কলকাতা: তাহলে কি বিধানসভা ভোটের পরে জুনেই হচ্ছে ২০২১-এর মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক? অন্তত সেই সম্ভাবনাটাই প্রবল উজ্জ্বল। বিধানসভা ভোটের পর মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা হতে পারে সেই সম্ভাবনা গত সেপ্টেম্বর মাস থেকেই চলছিল। চলতি সপ্তাহেই সেই সম্ভাবনা আরও প্রকট হল।  কোন কোন দিনে কোন কোন বিষয়ের পরীক্ষা হবে সেই সংক্রান্ত প্রস্তাব আকারে গেল স্কুল শিক্ষা দফতরের মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এবং উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফে। স্কুল শিক্ষা দপ্তর সূত্রে এমনটাই খবর। সূত্রের খবর কবে কোন কোন বিষয়ে পরীক্ষা হবে সেই পরীক্ষাসূচি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হতে পারে। অনুমোদন এলে শীঘ্রই মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এবং উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফের নোটিফিকেশন জারি করা হতে পারে। যদিও এই বিষয় নিয়ে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ বা উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি কেউ কথা বলতে চাননি।

চলতি সপ্তাহেই কতটা সিলেবাসের উপর ২০২১-এর মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হবে সেই বিষয়ে বিস্তারিত নোটিফিকেশন করেছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এবং উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকে ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ সিলেবাস কাটছাঁটের ঘোষণা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সেই অনুযায়ী কোন কোন অধ্যায় পরীক্ষাতে থাকবে এবং কোন কোন অধ্যায় থাকবে না সেই বিষয়ে বিষয়ভিত্তিক নোটিফিকেশন করেছে দুই বোর্ড। পরীক্ষার সিলেবাস এর নোটিফিকেশন করলেও কবে পরীক্ষা নেওয়া হবে সেই বিষয়ে অবশ্য শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় কোন মন্তব্য করতে চাননি।

সূত্রের খবর, সিলেবাস সংক্রান্ত নোটিফিকেশন করার পরপরই দুই বোনের কাছ থেকে পরীক্ষা সূচি নিয়ে প্রস্তাব জমা দিতে বলা হয়। সেই মোতাবেক মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এবং উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ কবে কোন বিষয়ের পরীক্ষা নেওয়া যেতে পারে সেই সংক্রান্ত পরীক্ষা সূচি জমা দিয়েছে স্কুল শিক্ষা দপ্তরে বলেই জানা গেছে। সে ক্ষেত্রে জুন মাসেই পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তাব গেছে স্কুল শিক্ষা দপ্তরে বলেই সূত্রের খবর।

এদিকে সিলেবাসে কাটছাঁট করা হলেও বাকি সিলেবাস অবশ্য ক্লাসরুমে পড়ানো হয়নি। গত মার্চ মাস পর্যন্ত স্কুল চালু থাকায় দশম শ্রেণির ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ সিলেবাস শেষ করা গেছিল। কিন্তু করণা পরিস্থিতিতে তারপর থেকে স্কুল বন্ধ থাকায় দ্বাদশ শ্রেণী অর্থাৎ আগামী বছর যারা উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবেন সেই ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস রুমে ক্লাস করানো যায়নি।

একাংশের ধারণা জুন মাসে যদি মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক হয় তাহলে দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের বিশেষ ক্লাস করানো যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে যতটুকু সিলেবাসের উপর পরীক্ষা হবে ততটুকু সিলেবাস এর উপর বিশেষ ক্লাস করিয়ে তবেই পরীক্ষার পথে হাঁটতে পারে রাজ্য সরকার। যদিও জুন মাসে শেষমেষ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হবে কিনা সে ব্যাপারে  চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নির্ভর করছে মুখ্যমন্ত্রী ও বলে স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর। সেক্ষেত্রে আগামী সপ্তাহের মধ্যেই  পরীক্ষাসূচি নোটিফিকেশন চূড়ান্ত হয়ে করা হতে পারে বলে সূত্রের খবর।

- সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Arka Deb
First published: November 28, 2020, 3:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर