• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বর্ষবরণের রাতে কনকনে ঠান্ডায় কাঁপবে কলকাতা, রাজ্যে জুড়েই জাঁকিয়ে শীত

বর্ষবরণের রাতে কনকনে ঠান্ডায় কাঁপবে কলকাতা, রাজ্যে জুড়েই জাঁকিয়ে শীত

কলকাতায় সকালের দিকে কুয়াশা থাকলেও বেলা বাড়লে আকাশ পরিষ্কার হবে, এমনটাই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। ফলে দিনভর ঠাণ্ডা রেশ জারি থাকবে শহরে। শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। শুক্রবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল বৃহস্পতিবার বিকালে ২৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৮৮ শতাংশ , সর্বনিম্ন ৪৮ শতাংশ।

কলকাতায় সকালের দিকে কুয়াশা থাকলেও বেলা বাড়লে আকাশ পরিষ্কার হবে, এমনটাই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। ফলে দিনভর ঠাণ্ডা রেশ জারি থাকবে শহরে। শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। শুক্রবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল বৃহস্পতিবার বিকালে ২৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৮৮ শতাংশ , সর্বনিম্ন ৪৮ শতাংশ।

  • Share this:

#কলকাতা: বর্ষবরণে আরো একবার কনকনে ঠান্ডার স্পেল। শৈত্যপ্রবাহে কাঁপছে দিল্লিসহ উত্তর পশ্চিম ভারত। উত্তর পশ্চিম ভারতের হিমালয় সংলগ্ন রাজ্যগুলিতে তুষারপাত চলছে। উত্তর-পশ্চিম ভারত থেকে শীতল হাওয়া এসে আরও একবার কাঁপাবে বাংলাকে। বৃহস্পতি ও শুক্রবার কনকনে ঠান্ডার আরো একটি স্পেল পেতে চলেছে বাংলা। রাজ্যের বেশকিছু জেলায় এই দু' দিন শৈত্যপ্রবাহের পরিস্থিতি থাকবে। বাংলায় বর্ষশেষ ও বর্ষবরণের রাতে হাড় কাঁপানো ঠান্ডা হবে বলেই অনুমান আবহাওয়াবিদদের।

কলকাতায় আজ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২ ডিগ্রির নীচে রয়েছে। আজ সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম। সকালে কুয়াশা হলেও পরে পরিষ্কার আকাশের সম্ভাবনা। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় তাপমাত্রা স্বাভাবিকের ২ থেকে ৪ ডিগ্রি নীচেই থাকবে। আগামী কয়েকদিন জাঁকিয়ে ঠান্ডার পরিস্থিতি। বুধবার সামান্য বাড়তে পারে তাপমাত্রা। ৪৮ ঘণ্টা পর থেকে তাপমাত্রা আরও কিছুটা নামবে।

নতুন বছরের শুরুতেই কলকাতার  তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রির কাছাকাছি থাকতে পারে। বৃহস্পতিবার থেকেই উত্তরে হাওয়া বইবে। তাপমাত্রা কমে যাওয়া এবং উত্তরের শীতল হাওয়ায় রাজ্যে কনকনে শীতের পরিস্থিতি তৈরি হবে।

আজ থেকে উত্তর-পশ্চিম ভারতের তাপমাত্রা কমবে। পঞ্জাব, হরিয়ানা চন্ডীগড় দিল্লি, উত্তরাখণ্ডে শৈত্য় প্রবাহের সর্তকতা রয়েছে। আগামী দু' দিন শৈত্যপ্রবাহ থাকবে এই রাজ্যগুলিতে। বৃহস্পতি বা শুক্রবার কোল্ড ডে-র পরিস্থিতি হতে পারে পঞ্জাব সহ উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে।

Biswajit Saha

Published by:Debamoy Ghosh
First published: