• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Containment zone returning in Bengal: একদিনে আক্রান্ত প্রায় হাজার, কলকাতা নিয়ে চিন্তায় নবান্ন, ফিরছে কন্টেইনমেন্ট জোন

Containment zone returning in Bengal: একদিনে আক্রান্ত প্রায় হাজার, কলকাতা নিয়ে চিন্তায় নবান্ন, ফিরছে কন্টেইনমেন্ট জোন

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

এ দিন করোনা নিয়ন্ত্রণে কলকাতার নগরপাল সহ বিভিন্ন জেলার জেলাশাসক ও পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী (Containment zone returning in Bengal)৷

  • Share this:

#কলকাতা: গত কয়েকদিনের প্রবণতা বজায় রেখেই রাজ্যের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়ল (Coronavirus update in Bengal)৷ এ দিন দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯৭৪৷ শুধুমাত্র কলকাতাতেই একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ২৬৮৷ পরিস্থিতি নিয়ে যথেষ্টই উদ্বিগ্ন নবান্ন (Nabanna)৷

এ দিন করোনা নিয়ন্ত্রণে কলকাতার নগরপাল সহ বিভিন্ন জেলার জেলাশাসক ও পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী ৷ সেই বৈঠকেও কলকাতায় কঠোর ভাবে করোনা সংক্রান্ত যাবতীয় বিধিনিষেধ প্রয়োগের জন্য পুলিশ কমিশনারকে নির্দেশ দেন তিনি৷ পাশাপাশি যে এলাকাগুলিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য ভাবে বাড়ছে, সেখানে ফের কঠোর ভাবে কন্টেইনমেন্ট জোন চালু করার নির্দেশও দিয়েছেন মুখ্যসচিব (Coronavirus update in Kolkata)৷

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, একদিনে রাজ্যে নতুন করে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের৷ তবে রাজ্য প্রশাসন সবথেকে বেশি চিন্তিত কলকাতাকে নিয়ে৷ কারণ সেখানে একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আড়াইশো ছাড়িয়েছে৷ আক্রান্তদের মধ্যে অনেকেরই করোনার দু'টি ডোজেরই টিকা নেওয়া রয়েছে৷ কলকাতার পরই নতুন করে আক্রান্তের নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর চব্বিশ পরগণা৷ সেখানেও চব্বিশ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা দেড়শো ছুঁই ছুই৷ এ ছাড়াও হাওড়া, হুগলি এবং দক্ষিণ চব্বিশ পরগণাতেও লক্ষ্যণীয় ভাবে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা৷

আরও পড়ুন: সঙ্গে মা নেই, কলকাতায় ক্যানসার আক্রান্ত শিশুর বেড পাওয়া নিয়ে চূড়ান্ত হয়রানি!

এই পরিস্থিতিতে এ দিন পুলিশ প্রশাসনের কর্তাদের একগুচ্ছ নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব৷ প্রথমত, যে এলাকাগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে সেখানে অবিলম্বে কঠোর ভাবে কন্টেইনমেন্ট জোন চালু করার কথা বলা হয়েছে৷ পাশাপাশি, নাইট কারফিউয়ের ক্ষেত্রেও কড়া মনোভাব নিতে বলা হয়েছে পুলিশ কর্তাদের৷ মাস্ক পরা নিয়েও কড়া নজরদারি চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব৷ পাশাপাশি টিকাকরণের গতি বৃদ্ধির উপরেও জোর দিতে বলা হয়েছে৷

এ ছাড়াও, আক্রান্ত রোগীদের দ্রুত চিহ্নিতকরণ, বিভিন্ন হাসপাতালে নতুন আক্রান্ত এবং চিকিৎসাধীনদের জন্য সমস্ত কোভিড পরিষেবা যথাযথ ভাবে রয়েছে কি না, সেই নজরদারি বাড়ানোরও নির্দেশ দিয়েছে নবান্ন৷

তবে নবান্ন সবথেকে বেশি উদ্বিগ্ন কলকাতার পরিস্থিতি নিয়ে৷ এ দিনের বৈঠকেও তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন মুখ্যসচিব৷ কলকাতায় করোনা সংক্রান্ত যাবতীয় স্বাস্থ্য বিধি এবং বিধিনিষেধ যাতে কঠোর ভাবে লাগু করা হয়, তা নিশ্চিত করার জন্য কলকাতার নগরপালকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব৷

বিশেষত রেস্তোরাঁগুলিতে যাতে পঞ্চাশ শতাংশ আসনের বেশি মানুষের জমায়েত না হয়, মানুষ যাতে মাস্ক পরেন, এই বিষয়গুলি নিয়ে কড়া নজরদারি চালাতে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব৷ মানুষ মাস্ক ঠিকমতো পরছেন কি না, সেই সংক্রান্ত রিপোর্টও নবান্নে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে নগরপালকে৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published: