• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • WEST BENGAL PANCHAYAT DEPARTMENT CAN ORGANISED PURI RATHA YATRA BHOG AS HOME DELIVERY SB

Puri Ratha Yatra Bhog: ঘরে বসেই স্বাদ নিতে চান পুরীর ভোগের? ব্যবস্থা করে দেবে রাজ্য পঞ্চায়েত দফতর!

ঘরেই বসেই ভোগের স্বাদ পান

Puri Ratha Yatra Bhog: আজ ঘরে বসেই অর্ডার করলে পেয়ে যাবেন পুরীর ভোগের স্বাদ। কী কী থাকছে স্পেশাল মেনুতে? থাকছে খিচুড়ি, ডালমা, লুচি, পটল রসা, পাঁপড়, জিভে গজা, রসবালি, ছানাপোড়া।

  • Share this:

#পুরী: আজ রথের রশিতে টান পড়বে৷ যদিও করোনা আবহের জেরে বেশ কিছু বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে৷ তবে ঘরে বসেই রথের দিন স্বাদ বদলানোর উপায় আছে। সৌজন্যে রাজ্য পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতর। আজ তাই ঘরে বসেই অর্ডার করলে পেয়ে যাবেন পুরীর ভোগের স্বাদ। কী কী থাকছে স্পেশাল মেনুতে? থাকছে খিচুড়ি, ডালমা, লুচি, পটল রসা, পাঁপড়, জিভে গজা, রসবালি, ছানাপোড়া। কী ভাবে মিলবে এই স্পেশাল মেনু? ফোন করতে হবে বা হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ দিতে হবে। নম্বরগুলি হল ৬২৯০২৫৫৮৫৯, ৮১৭০৮৮৭৭৯৪ ও ৯১৬৩১২৩৫৫৬।

সোজা রথ ও উলটো রথের দিন বাদে যদি দুপুরের খাবার চান তাহলে জানাতে হবে আগের দিন রাত ১০টার মধ্যে। আর যদি ডিনার করতে চান তাহলে জানাতে হবে দুপুর ১টার মধ্যে ওই দিনেই। খরচ কেমন? প্রতি প্যাকেট খরচ ধরা আছে ২৭৫ টাকা। আলাদা করে কোনও টাকা দিতে হবে না ডেলিভারি চার্জ বাবদ। রাজ্যের পঞ্চায়েত দফতরের অধীনস্থ কমপ্রিহেনসিভ এরিয়া ডেভলপমেন্ট করপোরেশন এই স্পেশাল মেনু তৈরির দায়িত্ব নিয়েছে।

পঞ্চায়েত দফতরের পরিচালনাধীন যে সব স্বনির্ভর গোষ্ঠী রয়েছে তাদের থেকে কেনা হবে সবজি। মূলত সরকারি উদ্যোগে থাকা খামার থেকেই এগুলি কেনা হবে৷ যারা এই সব রান্নায় সিদ্ধহস্ত তারাই এই সব পদ  বানাবেন। তাই পূর্ব মেদিনীপুর ও ওড়িশা  থেকেই নিয়ে আসা হচ্ছে পাচকদের৷ কারণ ছানাপোড়া, জিভে গজা আর পটলের রসার স্বাদ একমাত্র তাঁরাই দিতে পারবেন৷ কোথায় কোথায় পাওয়া যাবে? এই স্পেশাল মেনু মিলবে ডানলপ থেকে বিমানবন্দর ১ নং গেট৷ গড়িয়ার কামালগাজি মোড় থেকে ঠাকুরপুকুর। নবান্ন সন্নিহিত এলাকাতেও যাঁরা থাকেন, তাঁরাও এই স্পেশাল মেনু পেয়ে যাবেন। রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, করোনা বিধি নিষেধে অনেকেই যেতে পারছেন না পুরীতে। মানুষ ঘর বন্দি হয়ে আছেন। তাই সেই স্বাদ হোম ডেলিভারির ব্যবস্থা করা হল। আশা করি 'জয় জগন্নাথ' বলে মানুষ এতে উৎসাহ দেখাবেন।

Published by:Suman Biswas
First published: