Jagdeep Dhankhar : ইয়াস-প্রস্তুতি নিয়ে মমতা-প্রশংসায় পঞ্চমুখ ধনখড়! নবান্ন যাওয়ার আগেই ট্যুইটবার্তা

মমতা-প্রশংসায় পঞ্চমুখ ধনখড়

ইয়াস (Cyclone Yaas)এর প্রস্তুতি নিয়ে মমতার সরকারের (Mamata Banerjee) ভূমিকার প্রশংসা করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Jagdeep Dhankhar)।

  • Share this:

    #কলকাতা : ঘূর্ণিঝড় ইয়াস (Cyclone Yaas)এর প্রস্তুতি নিয়ে মমতার সরকারের (Mamata Banerjee) ভূমিকার প্রশংসা করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Jagdeep Dhankhar)। সেইসঙ্গে ট্যুইটে জানালেন, নবান্নের কন্ট্রোল রুমে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন তিনি৷ মঙ্গলবার বিকেল ৪টেয় আলিপুর আবহাওয়া দফতরে যান রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সেখানকার অধিকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন। এদিন পরে নবান্ন গিয়ে কন্ট্রোল রুম ঘুরে দেখেন ধনখড়।

    এদিন বিকেলে হাওয়া অফিসে পৌঁছে যান জগদীপ ধনখড়। দীর্ঘক্ষণ হাওয়া অফিসের পূর্বাঞ্চলের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরে ছিলেন তিনি। ধনখড় জানান, তিনি প্রতিমূহূর্তে ইয়াস-পরিস্থিতির খোঁজ খবর নিচ্ছেন। সেখানেই রাজ্যের ‘ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস’-এর প্রসঙ্গ টেনে আনেন তিনি। রাজ্যপাল বলেন, ‘‘কোভিড পরিস্থিতির মধ্যে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস চিন্তা বাড়াচ্ছে। তার উপর রাজ্যের ভোট পরবর্তী হিংসার সমস্যা তো রয়েছেই।’’

    আলিপুরের আবহাওয়া দফতর থেকে বেরিয়ে ‘ইয়াস’ মোকাবিলায় রাজ্যের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করে রাজ্যপাল বলেন, "আমফানের মতো পরিস্থিতি তৈরি হোক কেউ আমরা চাই না। তবে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় যেভাবে কেন্দ্র-রাজ্য একসঙ্গে যেভাবে কাজ করছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। সব কাজেই এভাবে সমন্বয় রাখা প্রয়োজন।”

    আলিপুর আবহাওয়া দফতরে রাজ্যপাল আলিপুর আবহাওয়া দফতরে রাজ্যপাল ছবি : ট্যুইটার

    ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় নবান্নের কন্ট্রোল রুমে ঠিক কী ভাবে কাজ হচ্ছে, তা দেখতেই এদিন সন্ধ্যায় সেখানে যান রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সেখানেই বৈঠক করেন তিনি। রাজ্যপাল জানান, ইতিমধ্যেই তিনি নৌ সেনা, ইস্টার্ন কম্যান্ড, সেনাবাহিনীর সঙ্গে কথা বলেছেন। তাঁর সঙ্গে মুখ্যসচিব এবং মুখ্যমন্ত্রীর কথা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন রাজ্যপাল।

    রাজ্যপাল বলেন, “বিভিন্ন বাহিনীর সঙ্গে সঙ্গে রাজ্য সরকার পুরোদমে সক্রিয়তা দেখাচ্ছে। মানুষের যাতে কোনও সমস্যা না হয় তাই নিয়ে আমি মুখ্যসচিবের সঙ্গে কথা বলেছি। এখন আধুনিকতার জেরে পূর্বাভাস বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই একেবারে সঠিক হয়। আমি সব খবর নিয়ে আপনাদের পরবর্তী পদক্ষেপ জানাব।”

    প্রসঙ্গত, আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, বাংলায় ইয়াসের দাপট সবচেয়ে বেশি পড়বে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায়। আছড়ে পড়ার সময় পূর্ব মেদিনীপুরে ঝড়ের বেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১৪৫ কিমি। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ঝড়ের বেগ হবে ঘণ্টায় ৯০-১০০ কিমি। কলকাতা, হাওড়া, হুগলিতে ঝড়ের বেগ হতে পারে ঘণ্টায় ৭০-৮০ কিমি। তবে, আমফানের মতো প্রভাব এই রাজ্যে পড়বে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: