• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Jagdeep Dhankhar: বড় খবর! আচার্য পদ থেকে সরছেন ধনখড়? সংঘাতের তীব্র আবহ রাজ্যে

Jagdeep Dhankhar: বড় খবর! আচার্য পদ থেকে সরছেন ধনখড়? সংঘাতের তীব্র আবহ রাজ্যে

সংঘাত চরমে

সংঘাত চরমে

Jagdeep Dhankhar: রাজ্যপালের উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে আইনে সংশোধন করলেও তা নিয়ে রাজ্য রাজ্যপাল সংঘাত হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: আচার্য পদ থেকে সরানো হচ্ছে রাজ্যপালকে? শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু এমনটাই ইঙ্গিত দিলেন শুক্রবার। উপাচার্য নিয়োগ থেকে শুরু করে একাধিক ইস্যু নিয়ে বারে বারে রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাত ক্রমশ তীব্র হয়েছে। কখনো রাজ্যের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের ডাকা, আবার কখনো বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে বৈঠক করতে চাওয়া। আবার কখনো উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে রাজ্যের পাঠানো নাম  অনুমোদন না করা। বারবার রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাত হয়েছে।

রাজ্যপালের উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে আইনে সংশোধন করলেও তা নিয়ে রাজ্য রাজ্যপাল সংঘাত হয়েছে। এমনকি দার্জিলিংয়ের হিল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে ও রাজ্যের রাজ্যপাল সংঘাত প্রকট হয়েছে। সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কার্শিয়াং এর প্রশাসনিক বৈঠকের বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে প্রসঙ্গ উঠেছিল। হিল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়োগের জন্য রাজ্যপালের কাছে নাম পাঠানো হলেও সেই উপাচার্যের নাম অনুমোদন করা হয়নি বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয় একাধিকবার রাজ্যপালের কাছে ফাইল পাঠানো হয়েছিল বলে উচ্চ শিক্ষা দপ্তর সূত্রে খবর। হিল বিশ্ববিদ্যালয় পাশাপাশি রাজ্যের একাধিক নয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়োগ নিয়োগ রাজ্যপালের কাছে ফাইল পাঠানো হলেও সেই ফাইল ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে রাজ ভবন থেকে বলে বারবার সরব হয়েছে উচ্চ শিক্ষা দপ্তর।

আরও পড়ুন: মামীর সঙ্গে ভাগ্নের পরকীয়া, শুধু সন্দেহের বশেই দুর্গাপুর দেখল এক হাড়হিম ঘটনা!

বিধানসভা নির্বাচনের আগে ও রাজ্যের রাজ্যপাল সংঘাত তীব্রতর হয়েছিল। শুক্রবার শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু সেই প্রসঙ্গ টেনে নিয়ে এসে বলেন "উনি শিক্ষাক্ষেত্রে ক্রমশ বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছেন। তাই আমরা ওনাকে আচার্যের পদ থেকে সরানোর ভাবনা চিন্তা করছি। উনার বদলে মুখ্যমন্ত্রীকে বসানো যায় নাকি সেই বিষয়ে ও ভাবনা চিন্তা হচ্ছে। এই বিষয়ে আইনজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়া হচ্ছে।"প্রসঙ্গত সম্প্রতি বেসরকারি উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় সঙ্গে সাক্ষাৎ করা নিয়ে রাজ্য রাজ্যপাল সংঘাত বড় জায়গায় পৌঁছায়।

আরও পড়ুন: রাজধানীতে 'স্টোনম্যান'! দিল্লির হত্যাকাণ্ডের নৃশংসতায় আঁতকে উঠছে গোটা দেশ

২০ ডিসেম্বর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ চেয়ে বিভিন্ন উপাচার্যদের আমন্ত্রণপত্র পাঠায় রাজভবন। কিন্তু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় তারা আসতে পারবেন না। তারপর ২৩ শে ডিসেম্বর অর্থাৎ গত কাল ফের বৈঠক ডাকেন রাজ্যপাল। কিন্তু সেই বৈঠকেও গরহাজির থাকলেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যরা। শুক্রবার সকালেই টুইট করে তা নিয়ে সরব হন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর। সবমিলিয়ে শিক্ষামন্ত্রী এ দিনের মন্তব্যে রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাত যে আরো বাড়লো তাতে কোন সন্দেহ নেই।

Published by:Suman Biswas
First published: