• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • পথ দুর্ঘটনা রুখতে আরও কঠোর হচ্ছে রাজ্য সরকার

পথ দুর্ঘটনা রুখতে আরও কঠোর হচ্ছে রাজ্য সরকার

File Photo ( Getty Images)

File Photo ( Getty Images)

পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে এবার থেকে ৩০২ ধারায় খুনের মামলা দায়ের করতে চলেছে রাজ্য সরকার।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: পথ দুর্ঘটনা রুখতে আরও কড়া হচ্ছে রাজ্য সরকার। পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে এবার থেকে ৩০২ ধারায় খুনের মামলা দায়ের করতে চলেছে রাজ্য সরকার। আহত হলে দায়ের হবে ৩০৭ ধারায় খুনের চেষ্টার মামলা। পথ নিরাপত্তা নিয়ে শীতকালীন অধিবেশনেই বিল আনতে চলেছে রাজ্য সরকার।

    মহিষাদলে গাড়ির ধাক্কায় ছাত্রীর মৃত্যুর পর, পথদুর্ঘটনায় ৩০২ ধারায় খুনের মামলা করার নির্দেশ দেন ডিজি। উল্টো পথে হেঁটে খড়দার ঘটনায় দায়ের হয় অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা। মঙ্গলবার ডিজির নির্দেশেই সিলমোহর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

    পথ নিরাপত্তায় আগামী ডিসেম্বরেই পাবলিক সেফটি অ্যান্ডডেভেলপমেন্ট বিল আনতে চলেছে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি আরও কঠোর হতে চলেছে পথ আইন।
    কঠোর হচ্ছে পথ আইন - মদ্যপান করে গাড়ি চালানো বা নিয়ম ভঙ্গে কঠোর পদক্ষেপ - ৩ বার নিয়মভঙ্গে লাইসেন্স বা পারমিট বাতিল - দুর্ঘটনা প্রবণ এলাকা ও রাস্তার মোড়ে আরও বেশি করে সিসিটিভি ও ওয়াচ টাওয়ার - পথ নিরাপত্তা নীতি পালন নিয়ে ন্যাশনাল হাইওয়ে অথরিটিকে আবেদন - আরটিও ভেঙে তৈরি হচ্ছে স্টেট হাইওয়ে রোড সেফটি অথরিটি - অথরিটির চেয়ারম্যান মুখ্যসচিব - অথরিটিতে জেলাশাসক ও পুলিশ সুপাররা - গ্রিন করিডরের জন্য বিশেষ পরিকল্পনা - সাঁতরাগাছি মডেলে বিভিন্ন গাড়ির জন্য পৃথক লেন - রাস্তার ধারে বিল্ডিং মেটিরিয়াল রাখা নয় - আগামী ১ মাস পথ নিরাপত্তা নিয়ে কর্মসূচি - শিশুদের মাথায় হেলমেট থাকা আবশ্যক - লাইসেন্সের জন্য পরীক্ষা দেওয়ার সময় ভিডিও রেকর্ডিং - শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে রাস্তার ধারে পার্কিং নয় - পার্কিংয়ের জন্য পার্কোম্যাট তৈরির পরিকল্পনা - ৫০টি আইটিআইতে ড্রাইভিং স্কুল - রোড ট্যাক্সের ওপর ৫% সেস বসাবে রাজ্য - ভিনরাজ্যের গাড়ি এদেশে এলে রেজিস্ট্রেশন বাঞ্ছনীয়

    আইন সংশোধন করে নতুন আইন আনবে রাজ্য সরকার। আজ ‘সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ নিয়ে উচ্চ পদস্থ পুলিশকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, পরিবহণ দফতর ও পুলিশ আলাদা আলাদা করে আইন করবে।। তার জন্য বিধানসভায় আগামী শীতকালীন অধিবেশনে বিল আনছে রাজ্য সরকার। দুর্ঘটনায় কেউ মারা গেলে তার বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করা হবে।  আহত হলে খুনের চেষ্টার মামলা করা হবে। (৩০২ ও ৩০৭ ধারায়)। মদ্যপান করে গাড়ি চালানো, মোটর ভেহিক্যালস আইন না মেনে গাড়ি চালানো, যা যা নিয়ম মানা উচিত তা না মানলে তার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেবে রাজ্য সরকার। পুলিশ প্রশাসনকে তেমনই নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্য সরকার। তিন বার কোনও গাড়িচালক নিয়ম ভাঙলে তার লাইসেন্স বা পারমিট বাতিল করা হবে।

    ন্যাশনাল হাইওয়ে অথরিটির কাছেও রাজ্য সরকার আবেদন করছে, তাদের এক্তিয়ারে থাকা রাস্তায় যেন পথ নিরাপত্তা ঠিকঠাক পালন করা হয়। এছাড়া হাইওয়ে-সহ সমস্ত রাস্তায়, দুর্ঘটনাপ্রবণ এলাকায় আরও বেশি করে সিসিটিভি ও ওয়াচ টাওয়ার বসানো হবে। ভেঙে দেওয়া হচ্ছে আরটিও। তার বদলে স্টেট রোড সেফটি অথরিটি তৈরি করা হচ্ছে। মুখ্যসচিব চেয়ারম্যান। তার নেতৃত্বে এই অথরিটি কাজ করবে। জেলায় থাকবেন জেলাশাসক ও পুলিশ সুপাররা। নতুন বিল হচ্ছে পাবলিক সেফটি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিল। বিভিন্ন রাস্তায় গ্রিন করিডরের পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। সাঁতরাগাছিকে মডেল করে বিভিন্ন গাড়ির জন্য আলাদা আলাদা লেন করে দেওয়া হবে। মানুষকে সচেতন করার জন্য পথে অন্যান্য কর্মসূচি চলবে।

    আগামী এক মাস ধরে এর প্রচার চলবে। রাস্তার ধারে বিল্ডিং মেটিরিয়াল পড়ে থাকায় অনেক সময় দুর্ঘটনা ঘটে। তার জন্য পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্য রাজ্যের গাড়ি এরাজ্যে এলে রেজিস্ট্রেশন করাতে হবে। শিশু ও স্কুলের বাচ্চাদের মাথায় যাতে হেলমেট থাকে তা দেখতে শিক্ষামন্ত্রীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গাড়ি চালানোর লাইসেন্স পাওয়ার ক্ষেত্রে নিয়ম আরও কড়া হচ্ছে। লাইসেন্স পরীক্ষা দেওয়ার সময় ভিডিও রেকর্ডিং হবে। ৫০টি আইটিআইয়ে ড্রাইভিং স্কুল করার পরিকল্পনা। শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পার্কিং করা হয়। সেখানে পার্কোম্যাট বা পার্কিং প্লাজা তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। রোড ট্যাক্সের ওপর ৫ শতাংশ সেস বসাবে রাজ্য সরকার।

    First published: