ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের জের, ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার স্কুল-কলেজে সোমবার ছুটি ঘোষণা রাজ্যের

ঝড়ে লন্ডভন্ড পূর্ব মেদিনীপুরের একাধিক ব্লক ৷ দিঘা-নয়াচরের বিভিন্ন ব্লক ক্ষতিগ্রস্ত

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Nov 09, 2019 09:37 PM IST
ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের জের, ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার স্কুল-কলেজে সোমবার ছুটি ঘোষণা রাজ্যের
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Nov 09, 2019 09:37 PM IST

#কলকাতা: ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের জের, ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার স্কুল-কলেজে সোমবার ছুটি ঘোষণা রাজ্যের। কলকাতায়ও বুলবুলের জেরে তুমুল বৃষ্টি,  বেড়েছে ঝড়ের দাপট । ঘণ্টায় ৫০ কিমি বেগে ঝড় বইছে, সর্বোচ্চ ৬০-৭০ কিমি বেগে ঝড় বইতে পারে। দুই পরগনা, পূঃ মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেও চলছে ভারী বৃষ্টির তাণ্ডবলীলা।

আজ, শনিবার, সন্ধে ৭.৩৭ মিনিটে ১২০ কিমি বেগে সাগরদ্বীপে আছড়ে পড়ে  বুলবুল ৷ আপাতত সাগরদ্বীপ-বকখালির মাঝে বুলবুলের অবস্থান ৷ ঝড়ে একাধিক কাঁচাবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে ৷ বুলবুলের জেরে বিমান পরিষেবা ১২ ঘণ্টার জন্য বন্ধ রেখেছে কলকাতা বিমানবন্দর।

ঝড়ে লন্ডভন্ড পূর্ব মেদিনীপুরের একাধিক ব্লক ৷ দিঘা-নয়াচরের বিভিন্ন ব্লক ক্ষতিগ্রস্ত ৷ ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত নন্দীগ্রাম ও খেজুরির একাধিক মাটির বাড়ি ৷ রামনগর ২, কাঁথি ১, ২, ৩ ব্লক ঝড়ে তছনছ হয়ে গিয়েছে ৷ খেজুরি ২, নন্দীগ্রাম ১, নয়াচর দ্বীপও বুলবুলের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৷

কন্ট্রোল রুম খুলে তদারকিতে ব্যস্ত মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী ৷ একাধিক স্কুলে শিবির খুলে ত্রাণ বন্টণ করা হচ্ছে ৷ শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে ৷ অনেক কাঁচাবাড়ির চাল উড়ে গিয়েছে ৷ প্রশাসন সূত্রে খবর, উদ্ধারকাজ জোরকদমে শুরু হয়েছে ৷

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের মোকাবিলায় সকাল থেকেই তৎপর নবান্ন। পরিস্থিতি তদারকির দায়িত্বে মুখ্যসচিব। নবান্নের কন্ট্রোলরুম থেকে পরিস্থিতির ওপর নজর রাখেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লক্ষাধিক মানুষকে অনেক আগেই অন্যত্র সরানো হয়।

Loading...

বুলবুল মোকাবিলায় ২৪ ঘণ্টার নজরদারি চলছে। নবান্নের কন্ট্রোলরুমে হাজির ছিলেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে কন্ট্রোলরুম থেকেই পরিস্থিতির ওপর নজরদারি চালান আধিকারিকরা। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় সোমবার স্কুল-কলেজ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার নবান্নর সভাঘরে মন্ত্রীদের নিয়ে পর্যালোচনা বৈঠক ছিল মুখ্যমন্ত্রীর। বাতিল করা হয়েছে সে বৈঠকও। উপকূলীয় এলাকা থেকে নিরাপদ জায়গায় সরানো হয়েছে বাসিন্দাদের।

First published: 09:28:30 PM Nov 09, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर