• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • WEST BENGAL GOVERMENT GIVES REPORT ON SUVENDU ADHIKARIS SECURITY SB

Suvendu Adhikari Security: হাইকোর্টে পেশ শুভেন্দুর 'চাঞ্চল্যকর' নিরাপত্তা রিপোর্ট! কী রয়েছে তাতে? 

শুভেন্দুর নিরাপত্তায় কী হবে?

Suvendu Adhikari Security: রাজ্যের যুক্তি, গোয়েন্দা রিপোর্ট থাকায় এতদিন রাজ্যের নিরাপত্তা পেয়ে আসছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। ২০ ডিসেম্বর ২০২০-তে শুভেন্দু অধিকারীর নিরাপত্তা নিয়ে যৌথ পর্যালোচনা হয় কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে।

  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্যের ১৯ ক্যাবিনেট মন্ত্রীর নিরাপত্তা বলয় শুভেন্দু অধিকারীর থেকে কম। বিরোধী দলনেতার নিরাপত্তা নিয়ে রাজ্য সরকার যথেষ্ট ওয়াকিবহাল। অতিরিক্ত নিরাপত্তার প্রয়োজন নেই, হাইকোর্টে রিপোর্ট দিয়ে জানালেন রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল। শুক্রবার শুভেন্দুর নিরাপত্তা মামলার রায়। রাজ্যের বিরোধী দলনেতার সামগ্রিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত রিপোর্ট বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে পেশ করল রাজ্য।

রাজ্যের যুক্তি, গোয়েন্দা রিপোর্ট থাকায় এতদিন রাজ্যের নিরাপত্তা পেয়ে আসছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। ২০ ডিসেম্বর ২০২০-তে শুভেন্দু অধিকারীর নিরাপত্তা নিয়ে যৌথ পর্যালোচনা হয় কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে। ২১ ডিসেম্বর, ২০২০-তে ঠিক হয়, কেন্দ্র জেড ক্যাটিগরি নিরাপত্তা দেবে শুভেন্দুকে। এরপরই শুভেন্দুকে দেওয়া নিরাপত্তা তুলে নেয় রাজ্য। বৃহস্পতিবার আদালতে অ্যাডভোকেট জেনারেল আরও জানান,  ২৮ কেন্দ্রীয় জওয়ানের নিরাপত্তা বলয়ে থাকেন শুভেন্দু অধিকারী। বুলেটপ্রুফ গাড়িতে চড়েন তিনি। কেন্দ্র নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করবে জানানোয় রাজ্য তার সুরক্ষা ব্যবস্থা প্রত্যাহার করেছে।

রাজ্যের ৫ জন ক্যাবিনেট মন্ত্রী জেড ক্যাটাগরি নিরাপত্তা পান। রাজ্যের ২ জন মন্ত্রী ওয়াই প্লাস নিরাপত্তা পান। রাজ্যের ১৭ জন মন্ত্রী ওয়াই ক্যাটাগরি নিরাপত্তা পান। রাজ্যের ১৯ জন মন্ত্রীর নিরাপত্তার চাদর বিরোধী দলনেতার থেকেও কম। সময় অনুযায়ী গোয়েন্দা রিপোর্টে পাওয়া তথ্যের ওপর নিরাপত্তার বিষয়টি নির্ভর করে। রাজ্যের বিরোধী দলনেতার নিরাপত্তা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার মতন কোনও কিছুই নেই, রাজ্য সে বিষয়ে যথেষ্ট ওয়াকিবহাল।

এজি কিশোর দত্তের পাল্টা শুভেন্দু আইনজীবী সৌম্য মজুমদার আদালতে বলেন,  ২ মে বিধানসভার জয়ের শংসাপত্র আনতে গেলে আক্রান্ত হন শুভেন্দু অধিকারী। স্থানীয় জন সমাবেশের ক্ষেত্রে রাজ্য কোনও নিরাপত্তা বন্দোবস্ত করেনি তাই আক্রান্ত হন শুভেন্দু অধিকারী। মাওবাদী হুমকি এখনও রয়েছে শুভেন্দু অধিকারী উপর। পাইলট কার ও রুট লাইনিং না হওয়ার কারণে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে রাজ্যের বিরোধী দলনেতাকে। পাল্টা অ্যাডভোকেট জেনারেল জানান,  নন্দীগ্রাম গণণা কেন্দ্রে শুভেন্দু আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় পুলিশ তদন্ত করে ইতিমধ্যেই চার্জশিট পেশ করেছে। গুরুত্বপূর্ণ পদের ব্যক্তির পদমর্যাদা ও গোয়েন্দা রিপোর্টের ধরণের উপর নিরাপত্তা বলয়ের বাড়া-কমা নির্ভর করে। মামলাকারীর অহেতুক আতঙ্কের কিছুই নেই। সওয়াল-জবাব পর্বে বিচারপতি শিবকান্ত প্রসাদে'র মন্তব্য, " শক্তিশালী গণতন্ত্রেই থাকে শক্তিশালী বিরোধী দল। ২০০৮-০৯ সালে যে সময়কার গোয়েন্দা রিপোর্ট প্রসঙ্গ আনা হচ্ছে, আমরা সবাই জানি সেসময় কী কী ঘটেছিল।" এরপরেই বিচারপতি শুভেন্দু নিরাপত্তা মামলার সওয়াল-জবাব পর্ব শেষ করেন। শুক্রবার দুপুর দুটোয় এই মামলার রায়দান করবে হাইকোর্ট।

Published by:Suman Biswas
First published: