West Bengal Assembly Election 2021: 'লিঙ্কম্যান' লালু, মমতাকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস তেজস্বীর

West Bengal Assembly Election 2021: 'লিঙ্কম্যান' লালু, মমতাকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস তেজস্বীর

মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের সঙ্গে দেখা করলেন তেজস্বী যাদব।

যদিও প্রশংসা, কৃতজ্ঞতা পর্বের মাঝেও বিরোধীদের কটাক্ষ, 'এ রাজ্যে আরজেডি সাহায্য করবে তৃণমূলকে। বিদায় আসন্ন বলেই এসব করতে হচ্ছে।'

  • Share this:

    #কলকাতা: লোকসভা ভোটে 'সেক্যুলার ফ্রন্ট' ফর্মুলা কাজ করেনি। কিন্তু তাতে কী, বিধানসভা ভোটে নিজের গড় রক্ষায় এবার আরজেডি -র সঙ্গে 'জোট ' বাঁধলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার মমতার সঙ্গে দেখা করতে নবান্নে চলে আসেন তেজস্বী যাদব। বিহারে ক্ষমতা দখল করতে না পারলেও তেজস্বীর 'তেজ' আলাদা মাত্রা যোগ করেছে জাতীয় রাজনীতিতেও। সেই সূত্রেই এবার এরাজ্যে মমতার ডাকে সাড়া দিয়ে 'সর্বত' সাহায্যের আশ্বাস দিয়ে গেলেন লালু পুত্র। যদিও এ রাজ্যে আরজেডি প্রার্থী দেবে কিনা জানতে চাওয়া হলে তেজস্বী বলেন, 'তৃণমূল লড়া মানেই আমরা লড়া। আমরা মমতা বন্দোপাধ্যায় সঙ্গে আছি। করোনা পরিস্থিতিতে উনি যেভাবে কাজ করেছেন তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়।' যদিও প্রশংসা, কৃতজ্ঞতা পর্বের মাঝেও বিরোধীদের কটাক্ষ, 'এ রাজ্যে আরজেডি সাহায্য করবে তৃণমূলকে। বিদায় আসন্ন বলেই এসব করতে হচ্ছে।'

    সোমবার বিকেল চারটেয় নবান্নে তেজস্বীর সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে ছিলেন বিধায়ক ও প্রাক্তন মন্ত্রী শ্যাম রজক। তেজস্বীর মূল লক্ষ্য ও মমতা মূল লক্ষ্য এক হওয়ায় লড়াইয়ে 'মমতাদিদি'-কে পূর্ণ সমর্থনের আশ্বাস দিয়েছেন আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব। মমতার সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন লালু-পুত্র। তিনি বলেছেন, 'তৃণমূল লড়া মানেই আমরা লড়া। লালুজির আদেশেই আমরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আছি। মমতাদিদির সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক ভালো। করোনা পরিস্থিতিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে ভাবে কাজ করেছেন তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তাও এর সমালোচনা করে চলেছেন। বিহারের জোট বন্ধনের সঙ্গে এখানে তৃণমূলের সঙ্গে আমাদের সম্পর্কের কোনও প্রভাব পড়বে না। আমরা সমস্ত সাহায্য করব এখানে তৃণমূলকে। এখানকার ভাষা, সংস্কৃতি, সভ্যতা বাঁচাতে হবে বিজেপির হাত থেকে।'

    অপরদিকে, তেজস্বীকে ধন্যবাদ জানিয়ে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন মমতাও। গতবার বিহারের নির্বাচনে তেজস্বীর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার কথা থাকলেও বিজেপি কৌশলে সেই সম্ভাবনা নষ্ট করেছে, সে বিষয়ে ফের অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। মমতার কথায়, 'লালু প্রসাদ যাদবকে জেলে আটকে রেখে মানসিক অত্যাচার করা হচ্ছে। কারণ ওরা জানে লালুজি বাইরে থাকলে বিজেপি সরকার গঠন করতে পারত না। বিহারে আসলে জিতেছে তেজস্বী। ওরা জিতত, বদমাইশি করে জিততে দেয়নি। বিহারে সরকার তেজস্বীরা গঠন করবে আশা করছি শীঘ্রই।'

    যদিও তৃণমূল-আরজেডির মধ্যে কোনও আসন সমঝোতা হল কি না, তা নিয়ে একটি শব্দও উচ্চারণ করলেন না মমতা কিংবা তেজস্বী। সোমবার এসেছিলেন কলকাতায়। মঙ্গলবার ফিরে যাবেন লালু-পুত্র। তার আগে মমতার আশীর্বাদ নিতে ও সমর্থন দিতেই নবান্নে যাওয়া বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। এর আগেও তাঁরা একে অপরের সমর্থনে পাশে দাঁড়িয়েছিলেন।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: