West Bengal Covid Update: করোনায় দুশ্চিন্তা সব উত্তর ২৪ পরগনাকে ঘিরে, সুস্থ হয়ে উঠছে বাকি বাংলা

বাংলার কোভিড চিত্র

West Bengal Covid Update: গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ও সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা প্রায় কাছাকাছি। গত একদিনে করোনা মুক্ত হয়েছেন ৫ হাজার ১৭০ জন।

  • Share this:

    কলকাতা: সুস্থতার পথে এগিয়ে চলছে বাংলা। দিন কয়েক আগেও যেখানে সংক্রমণ ছিল প্রায় কুড়ি হাজার, তা এখন এসে ঠেকেছে পাঁচ হাজারে। একইসঙ্গে স্বস্তি দিয়ে কমছে দৈনিক মৃত্যু সংখ্যাও। রাজ্য সরকারের কোভিড বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ২৭৪ জন। সেই সঙ্গে মৃত্যু হয়েছে ৮৭ জনের। আর গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ও সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা প্রায় কাছাকাছি। গত একদিনে করোনা মুক্ত হয়েছেন ৫ হাজার ১৭০ জন।

    আর তারই সঙ্গে বাংলায় সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৯৭.৮৩ শতাংশ। কিন্তু এই আশাজনক পরিস্থিতিতেও রাজ্য সরকারের কাছে মাথাব্যথা হয়ে দাঁড়াচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনা। এই জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯৬৬ জন ও মৃত্যু হয়েছে ২৪ জনের। যা কলকাতার থেকে অনেকটাই বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় মহানগরীতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৪ জনের। বুধবার রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের পরিসংখ্যান ছিল ৫ হাজার ৩৮৪ । মৃত্যু হয়েছিল ৯৫ জনের। সেই তুলনায় কিছুটা কমেছে সংক্রমণ ও মৃত্যু।

    প্রসঙ্গত, এখনও পর্যন্ত বাংলায় মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ লক্ষ ৪৮ হাজার ১০৪ জন। আর মোট মৃত্যু হয়েছে ১৬ হাজার ৬৪২ জনের। বাংলায় মোট সংক্রমণের হার কিছুটা কমে হয়েছে ১১.০৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টাতেও সংক্রমণের হার কমে হয়েছে ৮.১৩ শতাংশ।

    কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা ছাড়াও পূর্ব মেদিনীপুরে ৪৭৬, নদিয়ায় ৩৪২, হুগলিতে ৩৩৪, দার্জিলিংয়ে ৩২৫, হাওড়ায় ৩২৪, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৩১৬, পশ্চিম মেদিনীপুরে ৩০৪ ও জলপাইগুড়িতে ২৮৮ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন গত ২৪ ঘণ্টায়।

    বাংলার করোনা পরিস্থিতি যখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে বলে মনে করা হচ্ছে, তখন গোটা দেশে সংক্রমণ কমলেও মৃত্যুর সংখ্যা রীতিমতো রেকর্ড ছুঁয়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৬ হাজার ১৪৮ জন। যা দেশের কোভিড পরিসংখ্যানে আজ পর্যন্ত রেকর্ড। এর আগে কোভিডে একদিনে এত মৃত্যু দেখেনি দেশ।

    কিন্তু কেন এই রেকর্ড মৃত্যু? বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশ বলছে, করোনার নতুন ডেলটা প্রজাতি আগের থেকে অনেক বেশি সংক্রামক। আর এই নতুন প্রজাতির কারণেই মৃত্যুকোলে ঢলে পড়ছে বহু মানুষ।

    Published by:Suman Biswas
    First published: