• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • কলকাতা
  • »
  • WEST BENGAL CM MAMATA BANERJEE SENDS LETTER TO PM MODI FOR EXEMPTION OF O2 CONCENTRATORS CYLINDERS AND COVID RELATED DRUGS FROM CUSTOMS DUTY OR GST SB

Mamata to Modi: কোভিড সরঞ্জামে কর কেন? রবিবারও মোদির ঠিকানায় মমতার পত্রাঘাত!

ফের চিঠি মমতার

করোনা আবহে রাজ্যের জন্য সাহায্য চাওয়ার সূত্রে সেই চিঠির অধিকাংশ হলেও একে মমতার সুক্ষ্ম রাজনীতি বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

  • Share this:

    #কলকাতা: গত বুধবার শপথ গ্রহণ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয়বার শপথগ্রহণ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। আর তারপর থেকেই দিন প্রতি প্রায় একটি করে চিঠি তিনি পাঠানো শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (Narendra Modi)। করোনা আবহে রাজ্যের জন্য সাহায্য চাওয়ার সূত্রে সেই চিঠির অধিকাংশ হলেও একে মমতার সুক্ষ্ম রাজনীতি বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। রবিবারও বাদ রইল প্রধানমন্ত্রীকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর চিঠি লেখা। আর রবিবাসরীয় চিঠিতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী করোনা পরিস্থিতিতে অক্সিজেন সরবরাহ বৃদ্ধি করা থেকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জামের উপর কর ছাড়ের দাবি তুলেছেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

    এদিনের চিঠিতে মমতা লিখেছেন, 'আমরা সবরকমভাবে চেষ্টা চালাচ্ছি করোনা পরিস্থিতির সামলানোর। রাজ্যের মানুষ যাতে দরকারের সময় অক্সিজেন ও সমস্ত প্রয়োজনীয় ওষুধ পান, তা নিশ্চিত করার চেষ্টা চলছে। এই পরিস্থিতি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনও এগিয়ে এসেছেন মানুষকে সময়মতো অক্সিজেন পৌঁছে দিতে। কিন্তু অক্সিজেন ও ওষুধের চাহিদা ও সরবরাহের মধ্যে বিপুল ফারাক লক্ষ্য করা যাচ্ছে রাজ্যে। রাজ্যের কিছু করার নেই, তাই কেন্দ্রের কাছে অনুরোধ, করোনার জন্য যে চিকিৎসা সরঞ্জাম প্রয়োজন হয়, সেই সমস্ত কিছুতে কর ছাড় দেওয়া হোক। একইসঙ্গে জীবনদায়ী ওষুধ ও সরঞ্জামের সরবরাহের ক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট সীমা তুলে দেওয়া হোক। তাতে আমরা করোনার মোকাবিলা করতে এগিয়ে থাকব।'

    প্রসঙ্গত, গত শুক্রবারই রাজ্যের অক্সিজেনের বিষয়েও মোদিকে চিঠি লিখেছিলেন মমতা। রাজ্যে অক্সিজেনের চাহিদা ও জোগানের পরিসংখ্যান দিয়ে তিনি লিখেছিলেন, 'করোনা পরিস্থিতি প্রতিদিন মারাত্মক আকার নিচ্ছে। তাই অক্সিজেনের চাহিদাও ব্যাপক হারে বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় অক্সিজেনের চাহিদা ছিল ৪৭০ মেট্রিক টন। অথচ রাজ্য এখন গড়ে দিনে অক্সিজেন পাচ্ছে মাত্র ৩০৮ মেট্রিক টন।' মমতা চিঠিতে উল্লেখ করেন, 'আগামী ৭-৮ দিনে ৫৫০ মেট্রিন টন অক্সিজেন দরকার পড়বে। তাই কেন্দ্র যাতে রাজ্যে উৎপাদিত অক্সিজেন আর না নেয়, এবং প্রয়োজনীয় অক্সিজেন সরবরাহ করা হয়।'

    রীতিমতো পরিসংখ্যান দিয়ে মমতা লিখেছিলেন, শুধুমাত্র গত ১০ দিনে বাংলা থেকে অন্য রাজ্যে যাওয়া অক্সিজেনের পরিমান ২৩০ মেট্রিক টন থেকে বেড়ে হয়েছে ২৬০ মেট্রিক টন। কিন্তু বাংলার জন্য বরাদ্দ সেই ৩০৮ মেট্রিক টন অক্সিজেন। অথচ বাংলার প্রতিদিন অক্সিজেনের প্রয়োজন পড়ছে এখনই ৫৫০ মেট্রিক টন।'

    Published by:Suman Biswas
    First published: