Narada Scam Biman Banerjee: 'সহায়' রাজ্যপাল, ফিরহাদ-সুব্রতদেরদের গ্রেফতারে অধ্যক্ষের অনুমতিই নেয়নি CBI!

বেআইনি অনুমতি ধনখড়ের?

সোমবার নারদ কাণ্ডে (Narada Case) ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim), শোভন চট্টোপাধ্যায় (Sovan Chatterjee), সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee) ও মদন মিত্রকে (Madan Mitra) গ্রেফতার করেছে CBI।

  • Share this:

    #কলকাতা: ক্ষমতা না পাওয়ার প্রতিহিংসা! সোমবার নারদ কাণ্ডে (Narada Case) ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim), শোভন চট্টোপাধ্যায় (Sovan Chatterjee), সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee) ও মদন মিত্রকে (Madan Mitra) গ্রেফতার করেছে CBI। আর এরপরই পুরোদমে আসরে নেমে পড়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। পৌঁছে গিয়েছেন সিবিআই দফতরে। কিন্তু এদিন নারদ কাণ্ডে রাজ্যের ২ মন্ত্রী-সহ ৩ বিধায়ক ও এক প্রাক্তন বিধায়কের গ্রেফতারির পরই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে, এই গ্রেফতারি কি 'অবৈধ'?

    এদিন ফিরহাদ হাকিম, মদন মিত্ররা গ্রেফতার হতেই বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়দের যেভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে, তা সম্পূর্ণভাবে বেআইনি।' এ প্রসঙ্গে তিনি কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশের কথা উল্লেখ করে বলেন, 'কলকাতা হাইকোর্ট জানতে চেয়েছিল, কাউকে গ্রেফতার করার ক্ষেত্রে অধ্যক্ষের অনুমতি নেওয়া হয়েছে কিনা। আমি জানিয়েছিলাম, আমাদের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ নেই। আমাকে কোনও চিঠিও দেওয়া হয়নি। এ বিষয়ে সিবিআই কিছু জানতেও চায়নি। এই গ্রেফতার সম্পূর্ণ বেআইনি।'

    প্রসঙ্গত, বিধানসভার কোনও সদস্যকে গ্রেফতার করতে হলে অধ্যক্ষের অনুমতির যেমন প্রয়োজন হয়, তেমনি লোকসভা ও রাজ্যসভার সদস্যদের ক্ষেত্রে লোকসভার অধ্যক্ষ ও চেয়ারম্যানের অনুমতি নেওয়া হয়। কিন্তু ফিরহাদ, মদন, সুব্রতদের গ্রেফতারির প্রসঙ্গে বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'মাসখানেক ধরে হাইকোর্টে এই মামলার শুনানি চলছিল। আমরা জানিয়ে দিয়েছিলাম, আমাদের কাছে কোনও রকম অনুমতি চাওয়া হয়নি।' ফিরহাদ, মদনদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়ার ক্ষেত্রে রাজ্যপালের অনুমতি নিয়েছিল সিবিআই।

    কিন্তু সেই অনুমতি নিয়েই এদিন প্রশ্ন তুলেছেন বিমান বাবু। বলেন, 'হাইকোর্ট যেখানে স্পিকারের অনুমতি নিতে বলছে, সেখানে আশ্চর্যজনকভাবে রাজ্যপাল চার্জশিটের অনুমতি দিলেন। অথচ তিনি যখন এই কাজ করলেন, তখন আমি স্পিকার পদে কাজ করছি। তাই আমার অনুমতি না নিয়ে যেভাবে রাজ্যপালের অনুমতি নেওয়া হল, তা সম্পূর্ণ বেআইনি।' প্রসঙ্গত, রাজ্যপাল গত ১০ মে ওই চারজনের বিরুদ্ধে চার্জশিটের অনুমতি দেন।

    Published by:Suman Biswas
    First published: