corona virus btn
corona virus btn
Loading

৯০ কিলোমিটার বেগে ঝড়, অঝোরে বৃষ্টি!‌ আমফানের ফলে চরম দুর্ভোগের আশঙ্কা

৯০ কিলোমিটার বেগে ঝড়, অঝোরে বৃষ্টি!‌ আমফানের ফলে চরম দুর্ভোগের আশঙ্কা

ঘূর্ণিঝড় ‘‌আমফান’‌ পরিণত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এর গতিবেগ ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে

  • Share this:

#‌কলকাতা:‌ ঘূর্ণিঝড় আমফানের প্রভাবে মঙ্গল ও বুধবার গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে। ৮০ থেকে ৯০ কিলোমিটার ঘন্টায় গতিবেগে ঝড়ো হাওয়া বইবে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের উপকূলের জেলাগুলিতে। কলকাতা সহ উপকূল ও উপকূল সংলগ্ন ৭ জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সোমবার থেকে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে মানা করা হয়েছে। ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গের মৎস্যজীবীদের জন্য রয়েছে চরম সতর্কবার্তা। যাঁরা সমুদ্রে আছেন তাঁদের রবিবারের মধ্যেই উপকূলে ফেরার নির্দেশ দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ বাংলাদেশের মতো উত্তর বঙ্গোপসাগর সংলগ্ন উপকূলে এই ঝড়ের প্রভাব বেশি পড়বে বলে আবহাওয়াবিদদের অনুমান। যদিও ঘূর্ণিঝড় আমফান স্থলভাগে কোথায় প্রবেশ করবে তা নিয়ে এখনও কিছু জানাতে পারেনি আবহাওয়া দপ্তর।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সোমবার থেকেই আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে এ রাজ্যে। সোমবার অন্ধ্র ও উড়িষ্যা উপকূলে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। মঙ্গলবার ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গের উপকূলে ও বুধবার পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উপকূলে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। সঙ্গে ৮০ থেকে ৯০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইবে।

এ রাজ্যে সব থেকে বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা বুধবার। মঙ্গলবার উপকূলের জেলাগুলিতে ৬৫ থেকে ৮৫ কিলোমিটার ঘন্টায় গতিবেগে ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। ৭০ থেকে ১১০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে উপকূলের জেলাগুলিতে। মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি ও সঙ্গে ঝড়ো হাওয়া বইবে উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণা, কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুরে। বুধবার বৃষ্টির প্রভাব বাড়বে উপকূলের জেলাগুলিতে। সঙ্গী ঝড়ো হাওয়া। হাওয়ার গতিবেগ ৭০ থেকে ৯০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়বে। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টির সম্ভাবনা বুধবার।

শনিবার সন্ধ্যায় গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে আন্দামান সাগর সংলগ্ন দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে। এদিকে শনিবার এই এই নিম্নচাপের টানে দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ু প্রবেশ করছে আন্দামান-নিকোবরে। আবহাওয়াবিদরা জানাচ্ছেন আগামী ৪৮ ঘণ্টায় বর্ষা প্রবেশ করবে আন্দামান-নিকোবর এবং আন্দামান সাগর সংলগ্ন এলাকায়।

আন্দামান সাগর ও দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এর সুস্পষ্ট নিম্নচাপ আগামী ২৪ ঘণ্টায় গভীর থেকে অতি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। একটু সরে দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করবে অতি গভীর নিম্নচাপটি। দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরের মধ্যভাগে এই অতি গভীর নিম্নচাপ শনিবার সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। এই সাইক্লোনিক স্ট্রম এর নাম ‘‌আমফান’।‌ দিয়েছে থাইল্যান্ড। এই ঘূর্ণিঝড় ক্রমশ উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে মধ্য ও দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করবে রবিবার পর্যন্ত। সোমবার এটি অভিমুখ পরিবর্তন করবে এবং উত্তর উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করবে।

শুক্রবার গভীর নিম্নচাপ রূপে দক্ষিণ ও মধ্য বঙ্গোপসাগরে এই নিম্নচাপ অবস্থান করবে। সঙ্গে ঝড়ের গতিবেগ ঘন্টায় ৫৫ থেকে ৭৫ কিলোমিটার হবে। ঘূর্ণিঝড় ‘‌আমফান’‌ পরিণত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এর গতিবেগ ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। রবিবার এই ঘূর্ণিঝড়ের অবস্থান হবে মধ্য ও দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর সেখানে ৭৫ থেকে ৯০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় ঝড়ের গতিবেগ থাকবে। সোমবার মধ্য বঙ্গোপসাগরে এটি অবস্থান করবে এবং ঝড়ের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় ৮০ থেকে ১০০ কিলোমিটার। মধ্য বঙ্গোপসাগর থেকে উত্তর বঙ্গোপসাগরে এটি প্রবেশ করবে মঙ্গলবার। সঙ্গে ঝড়ের গতিবেগ ১০০ ছাড়িয়ে ১১০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় হতে পারে বলে আবহাওয়াবিদরা অনুমান।

BISWAJIT SAHA

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: May 15, 2020, 7:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर