• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Weather Alert for South Bengal| Heavy Rainfall: শক্তি বাড়াচ্ছে নিম্নচাপ, রাতে বাড়বে দুর্যোগ! প্রবল বৃষ্টির সঙ্গে বইবে ঝোড়ো হাওয়া

Weather Alert for South Bengal| Heavy Rainfall: শক্তি বাড়াচ্ছে নিম্নচাপ, রাতে বাড়বে দুর্যোগ! প্রবল বৃষ্টির সঙ্গে বইবে ঝোড়ো হাওয়া

প্রায় গোটা দক্ষিণবঙ্গেই দু' দিন দুর্যোগের আশঙ্কা৷

প্রায় গোটা দক্ষিণবঙ্গেই দু' দিন দুর্যোগের আশঙ্কা৷

দুপুর গড়াতেই কলকাতাতেও বৃষ্টি শুরু হয়েছে৷ কলকাতা সহ সংলগ্ন এলাকাগুলির আকাশ কালো মেঘে ঢেকে গিয়েছে (Rainfall in Kolkata)৷

  • Share this:

#কলকাতা: হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস মিলিয়ে দিয়েই বঙ্গোপসাগরের উপরে সৃষ্ট ঘূর্ণাবর্ত নিম্নচাপে পরিণত হল (Weather Alert for South Bengal)৷ আপাতত সেটি উত্তর পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এবং সংলগ্ন উপকূলবর্তী এলাকাগুলির উপরে অবস্থান করছে৷ যার জেরে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা, পূর্ব মেদিনীপুরের মতো উপকূলবর্তী এলাকা তো বটেই, দুপুর গড়াতেই কলকাতাতেও বৃষ্টি শুরু হয়েছে৷ কলকাতা সহ সংলগ্ন এলাকাগুলির আকাশ কালো মেঘে ঢেকে গিয়েছে (Rainfall in Kolkata)৷

আগামী কয়েক ঘণ্টায় এই নিম্নচাপ আরও শক্তি বৃদ্ধি করবে৷ ফলে রাতের দিকে বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়বে (Depression Over South Bengal)৷ একই সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর৷ বুধবার বিকেলের পর থেকে বৃষ্টির পরিমাণ কিছুটা কমতে পারে (West Bengal Weather Report)৷

আরও পড়ুন: টানা দু'দিন কাঁপিয়ে বৃষ্টির পূর্বাভাস! অশনি সংকেতে বুক কাঁপছে কলকাতা-সহ এই জেলাগুলির...

আবহাওয়া দফতরের সতর্কতা মেনেই দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুত রাজ্য প্রশাসন৷ যে এাকাগুলিতে দুর্যোগ এবং বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে, সেখানে প্রতিটি ব্লক এবং পুরসভায় কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে৷ পাশাপাশি দিঘা (Digha), বকখালির মতো উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে তৈরি রাখা হয়েছে উদ্ধারকারী দল৷

নিচু এবং উপকূলবর্তী এলাকাগুলিথেকে মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে৷ দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার ঘোড়ামারা দ্বীপ থেকেও মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে৷ দিঘা থেকে পর্যটকদের ফেরত পাঠানো হয়েছে৷ এনডিআরএফ-এর দলকেও৷ জমা জলের দুর্ভোগ এড়াতে সতর্ক রয়েছে কলকাতা পুরসভাও৷

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, ঘূর্ণাবর্তের জেরে আগামী চব্বিশ ঘণ্টায় রাজ্যের উপকূলবর্তী দুই জেলা পূর্ব মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ চব্বিশ পরগণায় ২০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাত হতে পারে৷ এই দুই জেলার সঙ্গে পশ্চিম মেদিনীপুরেও অতি ভারী বৃষ্টির আশঙ্কায় লাল সতর্কতা (Red Alert) জারি করেছে আবহাওয়া দফতর৷ হাওড়া, হুগলি, ঝাড়গ্রাম এবং উত্তর চব্বিশ পরগণায় কমলা সতর্কতা জারি হয়েছে৷ আর কলকাতা, বাঁকুড়, পূর্ব বর্ধমানের জন্য হলুদ সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর৷ দক্ষিণবঙ্গের এই সমস্ত জেলাতেই আগামী চব্বিশ ঘণ্টায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে৷

হাওয়া অফিসের তরফে আরও জানানো হয়েছে, প্রবল বৃষ্টির সঙ্গে উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ঘণ্টায় ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতে ঘণ্টায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে হাওয়া বইতে পারে৷ কখনও কখনও দমকা হাওয়ার গতিবেগ ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটারেও পৌঁছতে পারে৷

কয়েকদিন আগেই দুর্যোগে জল জমে কার্যত অচল হয়েছিল শহর কলকাতা৷ এবার সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি এড়াতে আগেভাগে সতর্ক কলকাতা পুরসভা৷ বৃষ্টির পর জমা জল দ্রুত বের করে দেওয়ার জন্য পাম্পিং স্টেশনগুলিকে প্রস্তুত রাখা হচ্ছে৷ সারা রাত খোলা থাকবে কলকাতা পুরসভার কন্ট্রোল রুম৷ চালু করা হচ্ছে হেল্পলাইন নম্বরও৷ কলকাতা পুরসভার স্কুল, কমিউনিটি হলগুলিতে ত্রাণ শিবির খোলার ব্যবস্থাও করা হয়েছে৷

কলকাতা পুুরসভার মুখ্যপ্রশাসক ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, 'বৃষ্টির পর যত দ্রুত জমা জল বের করে দেওয়া যায়, সেই ব্যবস্থা করে রাখা হচ্ছে৷' দুর্যোগ মোকাবিলার ব্যবস্থা করতে আজ সারারাত পুরসভা খোলা থাকবে৷ বুধবার বিকেলের পর থেকে নিম্নচাপটি ধীরে ধীরে ঝাড়খণ্ডের দিকে সরে যাবে৷ তার পর দক্ষিণবঙ্গে দুর্যোগ কমবে৷ যদিও তার ফলে পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার মতো জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published: