• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • WB GOVT TO DISTRIBUTE 50 THOUSAND RUPEES PER CLUB FOR DURGA PUJA AKD

Durga Puja Club donation| সব পুজো কমিটিকে ৫০ হাজার! পুজোর আগে বড় ঘোষণা রাজ্যের

রাজ্যের সব ক্লাবকে দুর্গাপূজার জন্য ৫০ হাজার টাকা দেবে সরকার।

Durga Puja Club donation| বিদ্যুৎ বিল সহ অন্যান্য সমস্ত লাইসেন্স খরচও মুকুব করা হবে।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনার মধ্যে পুজোকমিটি (Durga Puja 2021) গুলোর জন্য বড় ঘোষণা রাজ্যের। গত  বছরের মতো এ বছরও প্রতিটি পুজো কমিটিকে ৫০ হাজার টাকা (Wb Govt Puja Donation) দেওয়া হবে পুজোর খরচ বাবদ। এখানেই শেষ নয়, বিদ্যুৎ বিল-সহ অন্যান্য সমস্ত লাইসেন্স খরচও মুকুব করা হবে, আজ নেতাজি ইন্ডোরে  দুর্গা পূজার গাইডলাইন নিয়ে বৈঠকে এমনটাই জানিয়ে দিলেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

পুজো কমিটিগুলির সঙ্গে করোনা গাইডলাইন নিয়ে এই বৈঠকের পরিচালনার দায়িত্ব ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) নিজেই। করোনাকে মাথায় রেখে কী ভাবে দুর্গা পূজা করা সম্ভব, এই নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দিতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী, তা অনুমেয়ই ছিল।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন শুরুতেই বুঝিয়ে বলেন, নির্বাচন পেরিয়ে যাওয়ার পর এই বৈঠক করলে দেরি হয়ে যেত। যদিও নির্বাচন থাকলে বেশ কিছু বিধিনিষেধ পালন করতে হয় তবুও তিনি অনুমতি নিয়েই এই বৈঠক করেছেন তা স্পষ্ট করে দেন। পুজো কমিটিগুলোকে আশ্বস্ত করে এ দিন রাজ্যের বার্তা, গত বছর রাজ্যের তরফে যা যা করা হয়েছিল এবারও তাই বলবৎ থাকবে।

মুখ্যমন্ত্রী পরিসংখ্যান তুলে ধরে দেখান, সারা রাজ্যে প্রায় ৩৬ হাজার বড় পুজো হয়। এর মধ্যে কলকাতার রেজিস্টার্ড ক্লাবের সংখ্যা ২৫০০। মুখ্যসচিবের ঘোষণা অনুযায়ী, এই সব উদ্যোক্তাই ৫০ হাজার টাকা ও অন্যান্য সুবিধে পাবে।

মুখ্যমন্ত্রীর অনুরোধ পুজো কমিটিগুলোকে ছোট করে সুন্দর করে পুজো করতে হবে। সকলকে মাস্ক ব্যবহার করতে অনুরোধ করেন মুখ্যমন্ত্রী। কার্নিভাল হবে কি হবে না তা নিয়ে ভবিষ্যতে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা বলেন তিনি। এ দিনের বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরামর্শ, ক্লাবগুলোকে কোভিড সচেতনতা প্রচার করতে হবে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দেন, তৃতীয় ঢেউ যদি না আসে তবে এ বছর পূজার বিসর্জন হবে ১৫, ১৬,  ১৭ অক্টোবর অর্থাৎ একাদশী, দ্বাদশী ও ত্রয়োদশীর দিন। গত বছর দুর্গাপুজোর কার্নিভাল বন্ধ ছিল। এ বছর তা ফের চালু হবে কিনা সে নিয়ে প্রশ্ন করলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন , পরিস্থিতি বিচার করে ভোটের পর এই নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

মুখ্যমন্ত্রী এ দিন  বলেন, "দুর্গাপূজাকে বিশ্বের এক নম্বর ফেস্টিভাল বলে মনে করি। কুইন্স ইউনিভার্সিটি এবং আইআইটি খড়গপুর সার্ভে করেছিল গড়ে ৩২ হাজার ৩৭৭ কোটি টাকা খরচ হয় দুর্গাপূজায়।" জেলার পুজোগুলিরও তুমুল প্রশংসা শোনা যায় মুখ্যমন্ত্রীর মুখে। পুজোয় শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য পুলিশকে বাড়তি তৎপরতা নেওয়ার কথা বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এক কথায় আজ পুজোর দামামাটা তিনি বাজিয়েই দিলেন।

এই খবরটি সবেমাত্র ধরানো হয়েছে। বিস্তারিত আসছে...

Published by:Arka Deb
First published: