৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের মেয়াদ শেষ, আজ ফের আদালতে তোলা হবে বিক্রমকে

সোমবার ফের আদালতে তোলা হবে বিক্রমকে ৷ ৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ ৷

সোমবার ফের আদালতে তোলা হবে বিক্রমকে ৷ ৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: উচ্ছল নিশিযাপন। সেই রাতের ডাকে সাড়া দিয়েই ধরা পড়েন অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। মাঝরাতে কসবার নামকরা মলের সামনে থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে দুর্ঘটনায় মডেল সনিকা সিং চৌহানের মৃত্যুর ৭০ দিন পর কেন গ্রেফতার? প্রশ্ন উঠেছে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে। বিক্রমকে দশ তারিখ পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ আলিপুর আদালতের।

    সোমবার ফের আদালতে তোলা হবে বিক্রমকে ৷ ৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ ৷ গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে কসবা থেকে সনিকা সিং চৌহানের মৃত্যুকাণ্ডে অভিনেতাকে বিক্রমকে গ্রেফতার করে টালিগঞ্জ থানা ৷ আলিপুর আদালতে তোলা হলে বিক্রম চট্টোপাধ্যায়কে পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয় ৷ প্রথমে বিক্রমের বিরুদ্ধে ৩০৪এ ধারায় মামলা ও পরে পরে ৩০৪ ধারায় অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা করা হয়েছে ৷

    লুকোচুরিতে ইতি। মডেল সনিকা সিং চৌহানের মৃত্যুর ঘটনায় পুলিশের জালে বিক্রম। ২৯ এপ্রিল ভোররাতে লেকমলের সামনে গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যান সনিকা। যে গাড়ির স্টিয়ারিং ছিল বিক্রমের হাতে। তদন্তে নানা প্রশ্ন উঠে এলেও, বার বার বয়ান বদলে পুলিশকে বিভ্রান্ত করার অভিযোগ ওঠে বিক্রমের বিরুদ্ধে। জামিন যোগ্য ৩০৪-এর এ থেকে ৩০৪ ধারায় জামিন অযোগ্য মামলা করে পুলিশ। বিপদ বুঝে গা ঢাকা দেন অভিনেতা।

    ২৯ এপ্রিল, এরকমই এক রাতে সনিকাকে নিয়ে গাড়িতে চেপেছিলেন বিক্রম। কিন্তু দুর্ঘটনার এতদিন পর কেন গ্রেফতার করা হল বিক্রমকে? পুলিশের ভূমিকা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। এরই মধ্যে গ্রেফতারি এড়াতে হাইকোর্টে অন্তবর্তী জামিনের আবেদন করেন অভিনেতা। যার পরবর্তী শুনানি ১৩ জুলাই। তার আগে গ্রেফতারির ঘটনায়, পুলিশের অতিসক্রিয়তাকেই দায়ী করেছেন বিক্রমের আইনজীবী অনির্বাণ গুহঠাকুরতা। যদিও সেই অভিযোগ উড়িয়েছেন সরকারি আইনজীবী।

    First published: