'সরকারের আমাদের ওপর কোনও চাপ নেই', নাম না করে রাজ্যপালকে খোঁচা উপাচার্যদের

'সরকারের আমাদের ওপর কোনও চাপ নেই', নাম না করে রাজ্যপালকে খোঁচা উপাচার্যদের

মঙ্গলবারই উপাচার্যদের নিয়ে নয়া সংগঠন 'উপাচার্য পরিষদ' আত্মপ্রকাশ করেছে

  • Share this:

#কলকাতা: সরকারের চাপে উপাচার্যরা কাজ করছেন না। শুধু তাই নয়, উপাচার্যরা কারও দ্বারা প্রভাবিতও হচ্ছেন না। নাম না করে রাজ্যপালকে খোঁচা দিলেন উপাচার্যরা। মঙ্গলবারই উপাচার্যদের নিয়ে নয়া সংগঠন 'উপাচার্য পরিষদ' আত্মপ্রকাশ করেছে। আত্মপ্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই নাম না করে রাজ্যপালের মন্তব্যের পাল্টা মন্তব্য উপাচার্য পরিষদের। যদিও এই মন্তব্যের পরেও রাজ্যপাল তাঁর মন্তব্যেই অনড় রয়েছেন। তিনি এদিন জানান, উপাচার্যরা ভয় পাচ্ছেন, সরকারের চাপে সে'কথা ফোন করে অনেক উপাচার্য জানিয়েছেন। তিনি এও বলেন, উপাচার্যরা সামনে স্বাধীনভাবে কাজ করার কথা বললেও পিছনে তারা ভয় পাওয়ার কথাই বলছেন। আচার্যের ক্ষমতা সম্পর্কিত নয়া বিধি নিয়েও এদিন ফের সরব হন রাজ্যপাল।

এবার জোট বাঁধছে উপাচার্যরা। মঙ্গলবার, উপাচার্যদের নয়া সংগঠন "উপাচার্য পরিষদ" আত্মপ্রকাশ করল। উপাচার্য পরিষদের আত্মপ্রকাশের  সঙ্গে সঙ্গেই নাম না করে আচার্যকে খোঁচা দিতেও দেরি করলেন না তাঁরা। বুঝিয়ে দিলেন, সরকারের মনোভাবের সঙ্গেই তাঁরা রয়েছেন। শুধু তাই নয়, প্রয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধীকার রক্ষায় একযোগে প্রতিবাদও তাঁরা করবেন। উপাচার্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে মনোনীত হয়েছেন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুবীরেশ ভট্টাচার্য। এদিন তিনি বলেন, 'সরকারের উপাচার্যদের ওপর কোনও চাপ নেই। উপাচার্যরা স্বাধীনভাবে কাজ করছেন। কারওর প্ররোচনা বা অঙ্গুলিহেলনে নয়।'

মূলত গত সোমবার একটি অনুষ্ঠানে তাঁর বৈঠকে উপাচার্যদের যোগ না দেওয়া প্রসঙ্গে রাজ্যপাল বলেন, উপাচার্যরা সরকারের অঙ্গুলিহেলনে কাজ করছেন। নাম না করে কার্যত রাজ্যপালের এই মন্তব্যের উত্তরই দিলেন উপাচার্যরা। যদিও এই প্রসঙ্গে সুবীরেশ ভট্টাচার্য বলেন ' রাজ্যপালের মন্তব্যের উত্তর আমরা দিতে চাইনা। শুধু এটুকুই বলতে চাই, আমাদের স্বাধীনতা দেওয়া হচ্ছে।'

যদিও এই প্রসঙ্গে তাঁর প্রতিক্রিয়া দিতে দেরি করেননি রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। তাঁর পুরনো অবস্থানেই অনড় থেকে উপাচার্যদের এই মন্তব্যের পাল্টা মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন 'উপাচার্যরা সামনে থেকে এই কথা বলছেন। কিন্তু অনেক উপাচার্যই ফোন করে আমাকে বলেছেন সরকারের চাপে তারা ভীত রয়েছেন। আসলে উপাচার্যরা সরকারের চাপে ভীতই আছেন। তাই তাঁদের এই ধরনের কথা বলতে হচ্ছে।' তবে, উপাচার্য পরিষদ গঠনের কথা তাঁর জানা নেই বলেও মন্তব্য করেন রাজ্যপাল।

নয়া এই উপাচার্য পরিষদ শীঘ্রই তাদের সভা ডাকতে চলেছেন। ওই সভায় শিক্ষামন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও রাজ্যপালকে আমন্ত্রণ জানানো হবে নাকি সে বিষয়ে অবশ্য এড়িয়ে গিয়েছেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক। উপাচার্য পরিষদ আগামী দিনে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির সার্বিক মাণ উন্নয়নে কাজ করবেন বলেই দাবি করেছেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুবীরেশ ভট্টাচার্য।

SOMRAJ BANERJEE

First published: 08:59:38 PM Jan 14, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर