• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • হাইকোর্টের নজিরবিহীন নির্দেশ, উচ্চতর বেঞ্চে যাওয়া যাবে না

হাইকোর্টের নজিরবিহীন নির্দেশ, উচ্চতর বেঞ্চে যাওয়া যাবে না

টেট মামলায় কাটল জটিলতা। হাইকোর্টের নির্দেশে শুরু হয়ে গেল প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া। রাজ্যে সবমিলিয়ে প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে।

টেট মামলায় কাটল জটিলতা। হাইকোর্টের নির্দেশে শুরু হয়ে গেল প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া। রাজ্যে সবমিলিয়ে প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে।

টেট মামলায় কাটল জটিলতা। হাইকোর্টের নির্দেশে শুরু হয়ে গেল প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া। রাজ্যে সবমিলিয়ে প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: টেট মামলায় কাটল জটিলতা। হাইকোর্টের নির্দেশে শুরু হয়ে গেল প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া। রাজ্যে সবমিলিয়ে প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে। এই মামলাতেই নজিরবিহীন রায় কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সিএস কারনানের। রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ। তাই নির্দেশের বিরোধিতা উচ্চতর আদালতে যেতে যেতে পারবেন না কোনও পক্ষই।

    হাইকোর্টের নির্দেশে অবশেষে কাটল জটিলতা। রাজ্যের টেট অবস্থানকে মান্যতা দিয়ে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে রাজ্যের পক্ষেই সায় দিল হাইকোর্ট। বুধবার বিচারপতি সিএস কারনান তাঁর রায়ে, দ্রুত টেটের ফল ঘোষণার নির্দেশ দিয়েছেন। মূলত পাঁচটি বিষয় তুলে ধরেছেন তিনি। দু'টি মামলার ভিত্তিতে তাঁর নির্দেশ,

    হাইকোর্টের টেট-নির্দেশ

    - দ্রুত টেটের ফল প্রকাশ করতে হবে - টেট উত্তীর্ণ প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের অগ্রাধিকার দিতে হবে - যাঁরা প্রশিক্ষণহীন তাঁদের প্রশিক্ষিত করার নির্দেশও দিয়েছেন বিচারপতি কারনান - ২০১৬-র ৩১ মার্চ-এর পর নিয়োগ হবে কিনা তা কেন্দ্র ও রাজ্যের প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত - অপ্রশিক্ষিতদের নিয়োগ করা হবে কিনা তা কেন্দ্র-রাজ্য বোঝাপড়ার ওপর ঠিক হবে

     টেট মামলায় এদিন বিচারপতি কারনান যা নির্দেশ দিয়েছেন তা এক কথায় নজিরবিহীন। সাম্প্রতিক সময়ে হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ এমন নজিরবিহীন নির্দেশ দিয়েছেন, তা মনে করতে পারছেন না কোনও আইনজীবীই।

    হাইকোর্টের নজিরবিহীন নির্দেশ

    - উচ্চতর বেঞ্চে যাওয়া যাবে না - আপিল করতে পারবেন না বাদী-বিবাদী কোনও পক্ষ - গুরুত্বের দিক থেকে শীর্ষে এই মামলা - ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ সবথেকে জরুরি - সেকারণেই আপিল করা যাবে না

    টেটের ফল প্রকাশে দেরির ক্ষেত্রেও এদিন রাজ্যকে ক্লিনচিট দেন বিচারপতি। নির্দেশনামায় তিনি উল্লেখ করেন, বিধানসভা নির্বাচনের জন্য ফলপ্রকাশ করা যায়নি। তাই এক্ষেত্রে রাজ্যের কোনও গাফিলতি ছিল না।

    First published: