• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • UNIQUE SELF MADE SONG SUNG BY BJP MLA ASHIM SARKAR IN BIDHANSABHA COMMITTEE MEETING AKD

বিধানসভার মিটিংয়ে কবিগান! সুরেলা টিপ্পনিকে কুর্ণিশই জানালেন তৃণমূল বিধায়করা

কবিগানে মাতাচ্ছেন হরিণঘাটার বিধায়ক অসীম সরকার।

খোলা মনেই এই সমালোচনা গ্রহণ করে নিলেন তৃণমূলের বিধায়করা। মুখে মুখে একটাই কথা, একেই বলে স্পিরিট।

  • Share this:

#কলকাতা: বিধানসভার কমিটি মিটিং। গুরুগম্ভীর সেই মিটিংই হয়ে উঠল কবিগানের আখড়া! হ্যাঁ, তথ্যসংস্কৃতি  কমিটি কবিগান গাইলেন হরিণঘাটার বিধায়ক অসীম সরকার। গানের তালে মুহূর্তে বদলে গেল বিধানসভার অন্দরের ছবি। অসীম তীক্ষ্ণ কথায় বিঁধলেন তৃণমূলকে। কিন্তু শিল্প বলে কথা, খোলা মনেই এই সমালোচনা গ্রহণ করে নিলেন তৃণমূলের বিধায়করা। মুখে মুখে একটাই কথা, একেই বলে স্পিরিট।

২৫ জুলাই বিধানসভায় কমিটি শুরুর দিনের ঘটনা। মিটিংয়ে না থাকায় নয়না, চিরঞ্জিত, মনোরঞ্জন ব্যাপারীর মতো বাকি তৃণমূলের সদস্যরা বলছেন, আহা রে কী মিস করলাম! পরের মিটিং ওকে আরেকবার আবদার করব শোনাতে।

ওই দিন অনুরোধ মিনতি শুরু করতেই রাজকে উদ্দেশ্য করে অসীম বলেন, "আমরা কবিয়াল। মুখে মুখে গান রচনা করি৷ তবে, গানে আমরা মানুষের কথা বলি, ন্যায়ের পথে চলার কথা বলি। সে গান সকলের ভাল নাও লাগতে পারে। কিন্তু, মানুষের ভাল লাগবে, এই বিশ্বাস থেকেই আমরা গান রচনা করি, গান গাই। এই বলে,  শুরু করেন,  "নদে (নদিয়া, হরিণঘাটা)  থেকে এল কবিয়াল / কবিগান গাইতে এই বিধানসভায়।"

অসীমের গানের পদ ছিল খানিকটা এমন- খৃষ্ট, হিন্দু, মুসলমান / সবার থাকে একই প্রান / মানুষ হয়ে মনুষত্ব ভুলে যেও না / মানুষের প্রানে কেউ ব্যাথা দিও না। বলিতে কে পারে কেহ / আল্লা আর হরিতে / কবে কোথা দেখিয়াছ? / মারামরি করিতে। তবে কেন কর ভেদ / মানুষে - মানুষে কর প্রভেদ। অর্থাৎ ঘুরিয়ে ভোট হিংসা নিয়েই টিপ্পনি ছিল অসীমের গানে।

রাজ্যব্যাপী তৃণৃূমূলের সন্ত্রাসের শিকার, এমনটা আকছার অভিযোগ করে বিজেপি।তিনি নিজেও সেই সন্ত্রাসের মুখে পড়েছেন বলে অভিযোগ। গত ২৯ জুলাই তিনি মোহনপুরে নিজের বিধানসভা এলাকায় দলের বৈঠক সেরে ফেরার সময় আক্রান্ত হন তৃণমূলের হাতে। সালিশি হওয়ার পরেও থানার মধ্যে পুলিশের সামনে তাঁর দলের কর্মীদের তৃণমূলী দুস্কৃতীদের হাত থেকে বাঁচাতে না পেরে বিরোধীদল নেতা শুভেন্দুকে চিঠি লিখে অভিযোগও করেছেন অসীম। রাগে, দুঃখে রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার কথাও বলেছেন।

এই অশান্তি, তাই নিয়ে যুযুধান দুই শিবিরের চাপানউতোরের আবহেই কবিয়াল অসীম বিধানসভায় কমিটি মিটিংয়ে তৃণমূলের চেয়ারম্যান রাজ চক্রবর্তীর অনুরোধে এই গান শোনান। আর, তা শুনে রাজের প্রতিক্রিয়া, এমন একজন গুণী মানুষকে আমাদের মধ্যে পাওয়াটা ভাগ্যের ব্যাপার। গান শুনে মোহিত তৃণমূলের রাজারহাট গোপালপুরের সেলিব্রিটি বিধায়ক, গায়িকা অদিতি মুন্সীও।

সেই বিধানচন্দ্র রায়ের আমল থেকেই বিধানসভায় একে অন্যের বিরোধিতায় মুখর হলেও বাইরে সখ্য রেখেছেন বহু নেতাই। জ্যোতি বসু -বিধান রায় বা জ্যোতি বসু-সিদ্ধার্থশঙ্কর রায়ের সম্পর্কই তাঁর উদাহরণ। সেই স্পিরিটকেই মনে করাল সুরেলা কবিগান।

Published by:Arka Deb
First published: