প্রায় ৭ বছর ধরে, দিনের পর দিন নাবালিকা ভাগ্নিকে ধর্ষণ করত খোদ মামা

প্রায় ৭ বছর ধরে, দিনের পর দিন নাবালিকা ভাগ্নিকে ধর্ষণ করত খোদ মামা
representative image
  • Share this:

#কলকাতা: দিন দিন বর্বতার কালো অন্ধকারে ড়ুবে যাচ্ছে সমাজ! ৭ বছর ধরে, দিনের পর দিন নাবালিকা ভাগ্নিকে ধর্ষণ করত খোদ মামা! দোষীকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দিল আলিপুরের বিশেষ পকসো আদালত। বুধবার বিচারক সোনিয়া মজুমদার ওই রায় দেন। কারাবাসের পাশাপাশি তার আর্থিক জরিমানাও হয়েছে।

আলিপুর আদালত সূত্রের খবর, ২০১৬ সালের মার্চে মেয়েটির দিদিমা চেতলা থানায় অভিযোগে জানান, তাঁর নাতনিকে দীর্ঘ দিন ধরে ধর্ষণ করা হচ্ছে। তার ভিত্তিতে মগরাহাট থানা এলাকার বাসিন্দা ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১২ সালে বাবা মারা যাওয়ার পর থেকে মায়ের কাছেই থাকত মেয়েটি। দোষী ব্যক্তি ওই মহিলার জেঠতুতো ভাই। পুলিশের কাছে দিদিমার অভিযোগে, মা বাড়িতে না থাকার সুযোগে, দিনের পর দিন বাড়িতে এসে নাবালিকা মেয়েটিকে ধর্ষণ করত ওই ব্যক্তি।

তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, জিজ্ঞাসাবাদে মেয়েটির মা জানিয়েছেন, মেয়ে বহু বার তাঁকে ঘটনাটি জানালেও তিনি লোকলজ্জার ভয়ে বারবার তা এড়িয়ে যেতেন। শেষে ২০১৬ সালের মার্চে কিশোরী আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়ে। তখনই পুরো ঘটনা জানাজানি হয়। এর পরেই ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন কিশোরীর দিদিমা। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরে মা মেয়েটিকে নিজের কাছে রাখতে রাজি হননি। নাতনির পড়াশোনা-সহ আনুষঙ্গিক খরচ বহন করার সামর্থ্য দিদিমারও ছিল না। এই পরিস্থিতিতে আদালতের অনুমতি নিয়ে কিশোরীকে হোমে পাঠায় পুলিশ। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, এখন হোমেই পড়াশোনা করছে মেয়েটি।

First published: 02:02:35 PM Apr 11, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर