কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ব্রিটেনে সংক্রামিত নয়া করোনা স্ট্রেন কলকাতাতেও? ২ যাত্রীর রিপোর্ট পজিটিভ

ব্রিটেনে সংক্রামিত নয়া করোনা স্ট্রেন কলকাতাতেও? ২ যাত্রীর রিপোর্ট পজিটিভ
প্রতীকী চিত্র ।

ব্রিটেনে সংক্রামিত নয়া করোনা স্ট্রেন কলকাতাতেও? ব্রিটেন থেকে গভীর রাতে যে উড়ান কলকাতায় এসেছে, তার মধ্যে দু'জন যাত্রী কোভিড সংক্রামিত হওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে ।

  • Share this:

SHALINI DATTA 

#কলকাতা: ব্রিটেনে সংক্রামিত হওয়া করোনার নতুন স্ট্রেনের হামলা কি ছড়িয়েছে কলকাতা বা এ রাজ্যেও? ব্রিটেন থেকে গভীর রাতে যে উড়ান কলকাতায় এসেছে, তার মধ্যে দু'জন যাত্রী কোভিড সংক্রামিত হওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে কলকাতায়। আক্রান্ত দুই যাত্রীকে ইতিমধ্যেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি যে সমস্ত যাত্রীরা ওই উড়ানে এসেছিলেন, তাঁদের ওপরে নজরদারি শুরু করেছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। আক্রান্ত দুই ব্যক্তির শরীরে কোভিডের কোন স্ট্রেন হামলা করেছে, তা নিয়ে নিশ্চিত হতে ওই দুই আক্রান্ত ব্যক্তির নমুনা পুণেতে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

বিমানবন্দরের এক কর্তা বলেন, "গত সেপ্টেম্বর থেকে আজ পর্যন্ত ব্রিটেন থেকে যত যাত্রী এসেছে, তাঁদের মধ্যে ছ'জন যাত্রী কোভিড পজিটিভ হয়েছেন। তবে এঁদের মধ্যে নতুন স্ট্রেনে আক্রান্ত হয়নি অন্তত চার জন। তাই এখনও পর্যন্ত চিন্তার কিছু নেই বলেই আশা করা হচ্ছে।"

কোভিডের বাড়বাড়ন্ত রুখতে ব্রিটেন থেকে যাত্রী আসার উপরে নিষেধাজ্ঞা চালু করেছে কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে আজ, ২২ ডিসেম্বর রাত ১১টা ৫৯ মিনিটের পর থেকে ব্রিটেন থেকে কোনও উড়ান এ দেশে আসবে না এবং এ দেশ থেকেও কোনও উড়ান ব্রিটেনে পাড়ি দেবে না। এমনকী, ব্রিটেন থেকে কোনও যাত্রী ভায়া রুটেও ভারতের কোনও শহরে এসে নামতে পারবেন না। তবে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই নিয়ম ২২ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জারি থাকবে। নতুন বছরে কী নিয়ম হবে, তা পরে জানানো হবে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত যে সব যাত্রী ভারতে এসে নামবেন, তাঁদের বাধ্যতামূলক ভাবে আরটিপিসিআর পরীক্ষা করে দেখে নিতে হবে যে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি কোভিড সংক্রামিত কি না। যদি পরীক্ষার ফল ইতিবাচক হয়, তা হলে ওই ব্যক্তিকে এ দেশের স্বাস্থ্যবিধি মেনে যা যা করণীয়, তা করতে হবে।

মন্ত্রকের এক কর্তা বলেন, "ব্রিটেনের দেশগুলিতে যে ভাবে কোভিড সংক্রমণ বাড়ছে, তা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে বিস্তারিত পর্যবেক্ষণের পরেই মন্ত্রক এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পরিস্থিতি অনুকূল হলে ফের উড়ান চালু করে দেওয়া হবে।"

Published by: Simli Raha
First published: December 22, 2020, 6:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर