• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • কলেজ মাঠের মিটার বক্সে মিলল ডেঙ্গির লার্ভা, দুই পুরকর্মীকে শোকজ

কলেজ মাঠের মিটার বক্সে মিলল ডেঙ্গির লার্ভা, দুই পুরকর্মীকে শোকজ

থিকথিক করছে অ্যানোফিলিস ও এডিস মশাল লার্ভা। চারদিকে আবর্জনার স্তূপ। না দৃশ্যটা, কলকাতার রাস্তার পাশের কোনও ভ্যাট নয়, খাস গড়িয়াহাটের আইটিআই ৷

থিকথিক করছে অ্যানোফিলিস ও এডিস মশাল লার্ভা। চারদিকে আবর্জনার স্তূপ। না দৃশ্যটা, কলকাতার রাস্তার পাশের কোনও ভ্যাট নয়, খাস গড়িয়াহাটের আইটিআই ৷

থিকথিক করছে অ্যানোফিলিস ও এডিস মশাল লার্ভা। চারদিকে আবর্জনার স্তূপ। না দৃশ্যটা, কলকাতার রাস্তার পাশের কোনও ভ্যাট নয়, খাস গড়িয়াহাটের আইটিআই ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: থিকথিক করছে অ্যানোফিলিস ও এডিস মশাল লার্ভা। চারদিকে আবর্জনার স্তূপ। না দৃশ্যটা, কলকাতার রাস্তার পাশের কোনও ভ্যাট নয়, খাস গড়িয়াহাটের আইটিআই ৷ পরিদর্শনে বেরিয়ে এই হাল দেখে মেয়র পারিষদ স্বাস্থ্য অতীন ঘোষের চক্ষু চড়কগাছ । তৎক্ষণাৎ শোকজ ৷

    কর্তব্যে গাফিলতিতে শোকজ পেলেন দু’জন ভেক্টর কন্ট্রোল আধিকারিক। সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেহাল দশার খবরে পরিদর্শনে আসেন এলাকার বিধায়ক সুব্রত মুখোপাধ্যায়েও।

    রাজ্য ডেঙ্গিতে মৃতের সংখ্যা এবং আক্রান্তের সংখ্যা, দুই বাড়ছে পাল্লা দিয়ে ৷ কলকাতার ডেঙ্গি পরিস্থিতি নিয়ে অগ্নিশর্মা অতীন ঘোষ। ডেঙ্গি মোকাবিলায় কয়েকদিন ধরেই বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, হাসপাতাল, বিশ্ববিদ্যালয়, স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পরিদর্শনে যাচ্ছেন মেয়র পারিষদ স্বাস্থ্য। যেখানেই যাচ্ছেন, মিলছে মশার লার্ভা। বুধবার অতীন ঘোষের গন্তব্য ছিল গড়িয়াহাট আইটিআই কলেজ। কলেজের অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ দেখে থ মেয়র পারিষদ।

    প্রশাসনিক ভবনের সামনে জঞ্জালের স্তূপ। কলেজ গ্রাউন্ডের পরিত্যক্ত মিটার বক্স, গ্রুপ ডি স্টাফেদের অফিসরুমের পাশে পরিত্যক্ত বেসিন , মেশিন রুমের ভিতর পরিত্যক্ত ড্রাম , ছাদে টিনের পাত্র, সবেতেই জমে রয়েছে জল। সেই জলে ঘুরে বেড়াচ্ছে লক্ষ লক্ষ মশার লার্ভা।  এডিস মশার লার্ভাও মিলেছে অনেক জায়গায় ।

    অভিযোগ আসছিল অনেকদিন ধরেই। এর আগে পুরসভার তরফে কলেজ কর্তৃপক্ষকে নোটিস পাঠালেও, তা রিসিভ করেনি কলেজ কর্তৃপক্ষ। এবার নিজেই কলেজ পরিদর্শনে এসে হতবাক অতীন ঘোষ। যত জায়গা পরিদর্শন করেছেন, এত খারাপ পরিস্থিতি কোথাও দেখেননি বলে দাবি মেয়র পারিষদের। কলেজ কর্তৃপক্ষের পাশাপাশি নিজের দফতরের গাফিলতিতেও ক্ষুব্ধ অতীন ঘোষ।

    শোকজ করা হয় ৮ নম্বর বরোর ভেক্টর কন্ট্রোল ইনচার্জ গোপাল মহাপাত্র ও ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডের ভেক্টর কনট্রোল অফিসার কল্যাণ কুমার পাত্রকে।

    নিজের বিধানসভা এলাকায় এডিস মশার লার্ভা মেলার খবর পেয়ে চলে আসেন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তাঁর আশ্বাস, প্রয়োজনে বিধায়ক কোটার টাকায় ক্যাম্পাস পরিষ্কার করা হবে।

    বুধবার দ্বিতীয়বার কলেজ কর্তৃপক্ষকে নোটিস দেন অতীন ঘোষ। এবার ডিরেক্টরকে হাতে হাতে নোটিস দেন তিনি । আগামী শনিবার কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যৌথভাবে কলেজ ক্যাম্পাস পরিষ্কার অভিযানে নামবে পুরসভা ।

    First published: