রাজ্যে আরও ২ জন করোনা আক্রান্ত ! ইংল্যান্ড ফেরত মহিলা এবং মিশর থেকে ফেরা SBI আধিকারিক

রাজ্যে আরও ২ জন করোনা আক্রান্ত ! ইংল্যান্ড ফেরত মহিলা এবং মিশর থেকে ফেরা SBI আধিকারিক

নতুন করে আরও দুজনের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দুজনেই।

  • Share this:

#কলকাতা: বিশ্বজুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন বেড়ে চলেছে। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুসংখ্যাও। আক্রান্ত ও মৃত্যুমিছিলে  সামিল ভারতবর্ষও। দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। মারণ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বেড়ে হয়েছে ৪৯২। পশ্চিমবঙ্গ ব্যতিক্রম নয় এ লজ্জা ৷  সোমবার দমদমের বাসিন্দা ৫৭ বছর বয়সী এক প্রৌঢ়ের মৃত্যু হয়েছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৷  এরই মাঝে নতুন করে আরও দুজনের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দুজনেই।

নিউ আলিপুরের বাসিন্দা ৫২ বছর বয়সী এক মহিলা ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টারে গিয়েছিলেন ছেলের সঙ্গে দেখা করতে। তার ছেলে সেখানে চাকুরিরত। ইংল্যান্ডে করোনা ছড়িয়ে পড়ার খবর শোনা মাত্রই মা এবং ছেলে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেয় বিমানে করে। গত ১৮ ই মার্চ, বুধবার দিল্লি হয়ে কলকাতা ফেরেন। কলকাতায় ফেরার পর নিউ আলিপুরের বাড়িতেই গৃহ পর্যবেক্ষণে ছিলেন ওই মহিলা এমনটাই দাবি তার পরিবারের।

গত শনিবার বাড়িতেই সর্দি কাশি শুরু হওয়ায় রবিবার,২২ মার্চ সকালে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে তাকে নিয়ে আসেন তার পরিবার। আইডি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা ওই মহিলার উপসর্গ দেখে দ্রুত তাকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয় । সোমবার  তার সোয়াব বা লালা রস এর নমুনা পরীক্ষার জন্য বেলেঘাটা নাইসেড এ পাঠানো হয়। সোমবার রাতে নমুনার স্ক্রিনিংয়ে জানা যায় করোনা আক্রান্ত ওই মহিলা। মঙ্গলবার সকালে আবারও পরীক্ষা করানো হয় ওই মহিলার লালা রস। তাতেও রিপোর্ট পজিটিভ আসে।এরপরই স্বাস্থ্য দফতরের তরফ থেকে মহিলার স্বামী এবং পুত্রকে হোম কোয়ারেন্টিনে বা গৃহ পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নোওয়া হয় ৷  আক্রান্ত এই মহিলা কলকাতায় ফেরার পর অন্য কারোর সঙ্গে দেখা করেছিলেন কিনা সে বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর ।

অন্যদিকে দক্ষিণ ২৪ পরগনা গড়িয়া বরাল পঞ্চাননতলা এর বাসিন্দা ৪২ বছর বয়সী স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার উচ্চপদস্থ আধিকারিক গত ২৮ ফেব্রুয়ারি তার অন্যান্য সহকর্মীদের সঙ্গে সপরিবারে ইউরোপ ভ্রমণে যান গত ১৪ ই মার্চ মিশর বা ইজিপ্ট থেকে তিনি সপরিবারে কলকাতা ফেরেন।বাড়িতেই হোম কোয়ারান্টিনে বা গৃহ পর্যবেক্ষণে ছিলেন তিনি।প্রথম দিকে কোন রকম উপসর্গ ছিল না তার এরপর গত ১৯ শে মার্চ শনিবার জ্বর আসায় তাকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই ব্যক্তিরও লালারস পরীক্ষায় ধরা পড়ে করোনা।রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর তরফ থেকে করোনা আক্রান্ত এই ব্যক্তির স্ত্রী এবং শিশু সন্তানকে গৃহ পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।এছাড়াও স্টেট ব্যাঙ্কের যে সব কর্মীরা এই করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সঙ্গে ইউরোপ ভ্রমণে যান,তাদেরকে চিহ্নিত করে গৃহ পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

First published: March 24, 2020, 5:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर