Home /News /kolkata /
Trinamool Congress: লক্ষ্য ২০২৪, জনসংযোগ বাড়াতে ‘আমার গ্রাম’ অনুভূতি তৃণমূলের

Trinamool Congress: লক্ষ্য ২০২৪, জনসংযোগ বাড়াতে ‘আমার গ্রাম’ অনুভূতি তৃণমূলের

লক্ষ্য ২০২৪, জনসংযোগ বাড়াতে ‘আমার গ্রাম’ অনুভূতি তৃণমূলের

লক্ষ্য ২০২৪, জনসংযোগ বাড়াতে ‘আমার গ্রাম’ অনুভূতি তৃণমূলের

বিভিন্ন গ্রামে ইতিমধ্যেই শুরু জনসংযোগ, কর্মী সম্মেলন। 

  • Share this:

আবীর ঘোষাল, কলকাতা: পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে এবার সংগঠন সাজানোর কাজ শুরু করে দিল তৃণমূল কংগ্রেস। ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচন মূল লক্ষ্য। তার আগে গ্রামাঞ্চলের মানুষের মন বুঝতে পারা যাবে আগামী বছরের পঞ্চায়েত নির্বাচনের মাধ্যমে। ২০২৩-এর পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে তাই সাংগঠনিক ভিত মজবুত করতে জনসংযোগ কর্মসূচি শুরু করে দিল তৃণমূল কংগ্রেস (Trinamool Congress)।

গ্রামাঞ্চলের ভোট লোকসভা নির্বাচনের বাংলার ৪২ আসনে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। তাই গ্রামের মানুষের কাছে ‘আমার গ্রাম’ এই অনুভূতি নিয়ে বুথ স্তর থেকে সংগঠন ঢেলে সাজানোর কাজ শুরু করে দেওয়া হয়েছে। প্রচন্ড তাপপ্রবাহ বা পরীক্ষার জন্যে মিছিল, মিটিং না হলেও জেলায় জেলায় চলছে কর্মী সম্মেলন। সেখানেই গ্রামের প্রতিটি কাজে স্থানীয়দের সংযুক্ত করার কাজ চলছে।

আরও পড়ুন-রবিবারের পর বৃষ্টি আরও বাড়বে কলকাতা ও সংলগ্ন জেলায়, জেনে নিন আবহাওয়ার আপডেট

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী দলীয় পদাধিকারীদের বৈঠকে নির্দেশ দিয়েছিলেন নেতাদের ব্লকে, গ্রামে যেতে হবে।তৃতীয় বার ক্ষমতায় আসার বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষ্যে সেই কর্মসূচি ঘোষণা হবে শীঘ্রই। গ্রামে গিয়ে থাকা, বাজার করা, রান্না করা মানুষের অভাব অসুবিধা বুঝতে হবে। তৃণমূল সুপ্রিমো আগেই এই পরিকল্পনার কথা জানিয়েছিলেন। সেই মোতাবেক এবার প্রস্তুতি শুরু করে দিল তৃণমূল। আর এখানেই লক্ষ্য গ্রাম। কারণ আগামী বছর পঞ্চায়েত ভোট। এই কর্মসূচির উদ্দেশ্য, ‘আমার গ্রাম’ এই অনুভূতিতে আরও একাত্ম হওয়ার সুযোগ থাকছে। রাজ্যের একাধিক প্রকল্প আছে। সেগুলির হাল হকিকত বোঝা যাচ্ছে। বাস্তব চিত্র পরিষ্কার হচ্ছে। কোন কোন বিষয়ে আগ্রহ তৈরি হয়েছে তা বোঝা যাচ্ছে। একই সাথে তৃণমূলের বুথ স্তরের কর্মী-নেতাদের সাথে সম্পর্ক আরও জোরদার হচ্ছে।

আরও পড়ুন-যৌবন ধরে রাখার রহস্যের চাবিকাঠি, প্রতিদিন এক গ্লাস করে নিজের মাসদুয়েকের মূত্র পান করছেন যুবক!

ইতিমধ্যেই একাধিক জেলায় এই কাজ শুরু হয়েছে। জেলা সভাপতিরা গুরুত্ব সহকারে এর রিপোর্ট তৈরি করছেন। পঞ্চায়েতের কাজে যাতে কোনও ফাঁক ফোকর না থাকে সেদিকে নজর থাকছে। কাজ বকেয়া থাকলে তাও মিটিয়ে দেওয়া যাচ্ছে। তৃণমূল কংগ্রেস নেতা কুণাল ঘোষ জানিয়েছেন, আমরা সারাবছর জনসংযোগ করি। মানুষের পাশে থাকি ৷ মানুষের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক রাজনীতির বাইরেও ৷

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: AITMC, Trinamool Congress

পরবর্তী খবর