corona virus btn
corona virus btn
Loading

দুর্ঘটনা ঠেকাতে খোলা হল বাসের ছাদের সিঁড়ি, কড়া পদক্ষেপ পরিবহন দফতরের

দুর্ঘটনা ঠেকাতে খোলা হল বাসের ছাদের সিঁড়ি, কড়া পদক্ষেপ পরিবহন দফতরের
Representative Image
  • Share this:

#কলকাতা: বাসের ছাদে যাত্রী ও মালপত্র নিয়ে যাওয়া আটকাতে তৎপর পরিবহণ দফতর। কলকাতার কয়েকটি জায়গায় যৌথ অভিযান চালায় পরিবহণ দফতর ও ট্রাফিক পুলিশ। ছাদে মালপত্র ও গায়ে সিঁড়ি আছে এরকম কয়েকটি বাস চিহ্নিত করে মালিকদের জরিমানা করা হয়। একসপ্তাহের মধ্যে সিঁড়ি ও কেরিয়ার না খুললে আরও কড়া পদক্ষেপ করবে পরিবহণ দফতর।

মাস খানেক আগে লালগড়ে বাস দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় ছ’জনের। আহত হন বহু। মৃতদের মধ্যে কয়েকজন যাত্রী বাসের ছাদে বসেছিলেন। বাসের ছাদে যাত্রী ও মালপত্র দু’টিই নেওয়া বেআইনি হলেও তা মানা হয়নি।

সোমবার কলকাতায় পরিবহণ দফতরের এনফোর্সমেন্ট বিভাগ ও ট্রাফিক পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে কয়েকটি বাস চিহ্নিত করে। দেখা যায়, প্রতিটি বাসেরই পিছনে সিঁড়ি আছে ও ছাদে মালপত্র তোলা হয়েছে। তিন সপ্তাহ আগে পরিবহণ মন্ত্রী দফতরের আধিকারিক ও আরটিও-দের নিয়ে একটি বৈঠক করেন। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয়,

- বাসের পিছনে কোনও সিঁড়ি রাখা যাবে না - বাসের ছাদে কোনও যাত্রী তোলা যাবে না - বাসের ছাদে কোনও পণ্য তোলা যাবে না

আরও পড়ুন 

মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে নয়া মামলা দায়ের হাইকোর্টে

পরিবহণ দফতরের নির্দেশ পেয়ে ২৩ জুলাই থেকে বর্ধমান-সহ কয়েকটি জায়গায় অভিযান চালায় এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ ও ট্রাফিক পুলিশ। সোমবার কলকাতার সেন্ট্রাল বাস টার্মিনাস, হাজরা, বাবুঘাট এলাকায় কয়েকটি বাস চিহ্নিত করা হয়। বাস মালিকদের জরিমানাও করা হয়েছে। তাঁদের থেকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বাসের পিছন থেকে সিঁড়ি খোলার প্রতিশ্রুতিও নেওয়া হয়েছে ।

আরও পড়ুন 

আশঙ্কায় চাকরিপ্রার্থীরা, শিক্ষক নিয়োগে প্রকাশিত তালিকা নিয়ে এবার এসএসসির হলফনামা তলব হাইকোর্টের

গত কয়েকদিন রাজ্য পরিবহণ দফতরে বেশ কিছু অভিযোগ জমা পড়ছিল,

- নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও রেষারেষি বন্ধ হয়নি - কয়েকটি বাসের হাল খারাপ - ভাড়া বৃদ্ধির সুযোগে কয়েকটি রুটে বেশি ভাড়া নেওয়া হচ্ছে

সোমবার এই রুটগুলিও ঘুরে দেখে এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ ও ট্রাফিক পুলিশ। কয়েকটি বাসের নম্বরও নেওয়া হয়েছে। এই রুটগুলো থেকে অভিযোগ এলে লাইসেন্স বা পারমিট বাতিলের মত পথে হাঁটবে পরিবহণ দফতর।

আরও পড়ুন

‘বিজেপি এরাজ্যেও ক্ষমতায় এলে অনুপ্রবেশকারীদের গলা ধাক্কা দিয়ে বের করব’, অসম ইস্যুতে মন্তব্য দিলীপের

পরিবহণ দফতর সূত্রের থবর, এক সপ্তাহের মধ্যে বাসের পিছনে যত সিঁড়ি বা কেরিয়ার আছে সব খুলে দেওয়া হবে। ছাদে যাত্রী ওঠানো আটকানো গেলেও মালপত্র তোলা অনেকাংশেই আটকানো যায়নি। বিশেষ করে দূরপাল্লার বাসগুলিতে এই সমস্যা থেকেই গিয়েছে। তাই সেদিকে বিশেষ নজর দেওয়া হবে।

রিপোর্টার- আবির ঘোষাল

First published: July 30, 2018, 7:22 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर