• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • পটল খান, আয়ু বাড়ান ! সুস্থ থাকতে পটলের কোনও বিকল্প নেই

পটল খান, আয়ু বাড়ান ! সুস্থ থাকতে পটলের কোনও বিকল্প নেই

পটল খান, আয়ু বাড়ান ! সুস্থ থাকতে পটলের কোনও বিকল্প নেই

পটল খান, আয়ু বাড়ান ! সুস্থ থাকতে পটলের কোনও বিকল্প নেই

পটল খান, আয়ু বাড়ান ! সুস্থ থাকতে পটলের কোনও বিকল্প নেই

  • Share this:

    #কলকাতা: পটলের দোলমা হোক কী কালিয়া, ট্যালটেলে ঝোল হোক কী কড়কড়ে ভাজা... বাঙলি মানেই পটল! তবে শুধু খেতেই যে ভাল, তা নয়! পটলের গুণও রয়েছে ভুড়িভুড়ি! রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, ভিটামিন বি ১, ভিটামিন বি ২ ও ভিটামিন সি, ক্যালসিয়াম ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট! এককথায়, সু্স্থ থাকতে ডায়েটে রাখুন পটল। কারণ--

    ১)পটলে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফাইবার রয়েছে যা খাবার হজম করতে সাহায্য করে। এছাড়াও, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ও লিভারেরসমস্যা সমাধানে এক্সপার্ট! পাশাপাশি পটলের বীজ কোষ্ঠকাঠিন্য কমায়। পটল ও ধনেপাতা থেঁতলে জলে ভিজিয়ে রাখুন। এই মিশ্রণটিকে ৩ ভাগ করে এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে দিনে ৩ বার খান। হজমের সমস্যা কাছে ঘেঁষবে না!

    ২) পটলে খুব কম ক্যালরি রয়েছে। অথচ, পেট ভর্তি রাখে। কাজেই ওজন কমাতে পটলের বিকল্প মেলা ভার!

    ৩) পটল রক্ত পরিশোধিত করে। কোলেস্টেরল ও ব্লাড সুগার কমায়। আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় ঠান্ডা, জ্বর ও গলা ব্যথায় পটল খেতে বলা হয়।

    ৪) পটল ভিটামিন এ, ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট-এ ভরপুর। কাজেই ত্বকের জন্যও উপকারি! ফ্রি র‍্যাডিকেলের বিস্তার রোধ করে ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না।

    ৫) পটলের রস মাথায় লাগালে মাথা ব্যথা কমে।

    ৬) পটলের পাতার রস ক্ষত নিরাময়ে সাহায্য করে এবং টাকের সমস্যা সমাধানেও কাজে লাগে।

    আরও পড়ুন-অফিসে পদোন্নতি হচ্ছে না? বাড়ছে না মাইনে? নিয়মিত পাঠ করুন এই মন্ত্রগুলো--

    First published: