Home /News /kolkata /
TMC on monsoon session: সোমবার থেকে বাদল অধিবেশন, ২১ জুলাইয়ের পরই যাবেন তৃণমূল সাংসদরা

TMC on monsoon session: সোমবার থেকে বাদল অধিবেশন, ২১ জুলাইয়ের পরই যাবেন তৃণমূল সাংসদরা

একুশে জুলাইয়ের কর্মসূচিকে সফল করাই এখন অগ্রাধিকার তৃণমূলের৷

একুশে জুলাইয়ের কর্মসূচিকে সফল করাই এখন অগ্রাধিকার তৃণমূলের৷

স্পিকারের ডাকা সর্বদল বৈঠকে যোগ দেবে না তৃণমূল। অসংসদীয় শব্দের তালিকা এবং সংসদ চত্বরে ধরনা বিক্ষোভে নিষেধাজ্ঞা জারি করার পর আজ সব দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা। বিকেল ৪টায় সংসদ ভবনে এই বৈঠক হবে। 

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আজ লোকসভার স্পিকারের ডাকা সর্বদল বৈঠকে যোগ দিল না তৃণমূল। অসংসদীয় শব্দের তালিকা এবং সংসদ চত্বরে ধরনা বিক্ষোভে নিষেধাজ্ঞা জারি করার পর আজ সব দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা। বিকেল ৪টায় সংসদ ভবনে এই বৈঠক হয়।

তৃণমূলের তরফে ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে, দলের ২১ জুলাই শহিদ দিবসের অনুষ্ঠানের প্রস্তুতির কারণে আজকের সর্বদল বৈঠকে হাজির থাকতে পারবে না দলের প্রতিনিধিরা। লোকসভায় তৃণমূলের দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় সর্বদল বৈঠকে গরহাজির থাকার কারণ জানিয়ে লোকসভার স্পিকার  ওম বিড়লাকে চিঠি দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: চোখে ধুলো দিচ্ছে মোদি সরকার, অভিযোগ তুলে সর্বদল বৈঠক বয়কট তৃণমূলের

সোমবার শুরু হচ্ছে সংসদের বাদল অধিবেশন। তার আগে আজ সম্প্রতি সংসদের তরফে জারি করা বিভিন্ন নির্দেশিকা নিয়ে আলোচনা করেন স্পিকার। সংসদের সচিবালয় থেকে জারি করা নির্দেশিকার মাধ্যমে জানানো হয়েছে, এবার থেকে সংসদ চত্বরে কোনও বিক্ষোভ, ধরনা, অনশন বা কোনও ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালন করা যাবে না। বিরোধীদের অভিযোগ, সরকারের মুখরক্ষা করতেই এই পদক্ষেপ করেছে মোদি সরকার।

আরও পড়ুন: উপরাষ্ট্রপতি পদে বাংলার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে মনোনীত করল বিজেপি!

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, একদিন আগেই অসংসদীয় শব্দের তালিকা প্রকাশ করেছে সংসদের সচিবালয়। সেই বিতর্ক এখনও থামেনি। সংসদে কিছু শব্দ ব্যবহারের বিষয়ে তৈরি নিষেধাজ্ঞা নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই বিষয়টি নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করেন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা। তিনি স্পষ্ট জানান, সংসদে কোনও শব্দই বাতিল বলে দেওয়া হয়নি। আগে থেকেই নির্দিষ্ট কিছু শব্দ ছিল, যেগুলিকে অসংসদীয় বলা হয়, আগেই সেটি একটি নির্দিষ্ট বই প্রকাশ করে জানানো হয়েছিল। এ বার আমরা কাগজের ব্যবহার কমানোর লক্ষ্য নিয়ে সেই তালিকা তুলে দিয়েছিলাম ইন্টারনেটে। তাই এই বিতর্কের কোনও মানে হয় না।

সংসদে কোনও শব্দই অসংসদীয় নয়।সংসদের তরফে প্রকাশ করা  অসংসদীয় শব্দ তালিকায় রয়েছে অপব্যবহার, লজ্জাজনক, জুমলাবাজি, নাটক, তানাসাহি, দুর্নীতিগ্রস্ত, শকুনি, স্বৈরাচারী, খালিস্তানি। এছাড়াও জয়চাঁদ শব্দটিকেও অসংসদীয় শব্দের তালিকায় রাখা হয়েছে। কোভিড স্প্রেডার শব্দটিকেও রাখা হয়েছে অসংসদীয় শব্দের তালিকায়।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: 21 July, TMC

পরবর্তী খবর