corona virus btn
corona virus btn
Loading

৫ লক্ষ যুবযোদ্ধা ৫০ লক্ষ পরিবারের দায়িত্ব নেবে, সেবামূলক কাজই 'হাতিয়ার' অভিষেকের

৫ লক্ষ যুবযোদ্ধা ৫০ লক্ষ পরিবারের দায়িত্ব নেবে, সেবামূলক কাজই 'হাতিয়ার' অভিষেকের
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

তৃণমূল পার্টি সংগঠন ও তার অন্যান্য শাখা সংগঠনের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত অথবা যুক্ত নন এমন যুবকদের নিয়েই তৈরি হয়েছে বাংলার যুবশক্তি। প্রাথমিক ভাবে এই অভিযানে মোট এক লক্ষ যুবক যুবতী টার্গেট করা হয়েছিল ।

  • Share this:

#কলকাতা: টার্গেট বাংলার যুব সমাজ। 'রাজনৈতিক সংকীর্ণতা' বাদ দিয়ে লক্ষ্য 'বাংলার জয়'। আর সে জয় নিশ্চিত করতে "সেবা মূলক কাজ"কে হাতিয়ার করে ৫০ লক্ষ মানুষের কাছে পৌঁছানোর লক্ষ্যমাত্রা স্থির করল তৃণমূল কংগ্রেস। অরাজনৈতিক এই কাজ কতটা গুরুত্বপূর্ণ, তা বোঝাতে শনিবার বাংলার যুবশক্তি অভিযানের ফেসবুক লাইভ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'যোগ্য লোককে জায়গা দিতে নিজের পদও ছাড়তে রাজি তিনি।'

তৃণমূল পার্টি সংগঠন ও তার অন্যান্য শাখা সংগঠনের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত অথবা যুক্ত নন এমন যুবকদের নিয়েই তৈরি হয়েছে বাংলার যুবশক্তি। প্রাথমিক ভাবে এই অভিযানে মোট এক লক্ষ যুবক যুবতী টার্গেট করা হয়েছিল । কিন্তু শনিবার অভিষেক জানান, 'ইতিমধ্যেই পাঁচ লক্ষ্যের ও বেশি যুবক যুবতী এই অভিযানে নাম নথিভুক্ত করেছেন ।' এই প্রত্যেক যুবক-যুবতীদের দ্বিতীয় পর্যায়ের লক্ষ্য ঠিক করে দিলেন অভিষেক। এদিন এই অরাজনৈতিক প্ল্যাটফর্ম নিয়ে বলতে গিয়ে অভিষেক বলেন, 'বিজেপি, কংগ্রেস, সিপিএম-- তৃণমূল যে কোনও পার্টির সঙ্গে যুক্ত থেকেও করা যাবে বাংলার যুবশক্তি৷ বাংলার যুবশক্তি কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি নয়। কোভিড, আমফান পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে দাঁড়ানোই লক্ষ্য।'

অভিষেক জানান, এই কর্মসূচিতে ইতিমধ্যেই লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ৫ লক্ষেরও বেশি রেজিস্টার করেছে। প্রতি যুব যোদ্ধা ১০টি করে পরিবারের দায়িত্ব নিন। ওষুধ, বাজার-দোকান সহ প্রয়োজনীয় নানা সাহায্য করুন পরিবারগুলিকে৷ দশটি পরিবার নিয়ে হোয়াটসআপ গ্রুপ করুন । এই গ্রুপ একটি পোর্টাল এর সঙ্গে যুক্ত থাকবে। যে পোর্টাল তদারকি করবেন স্বয়ং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তৃণমূল, বিজেপি, কংগ্রেস, সিপিআইএম-- যে কোন পার্টির সঙ্গে যুক্ত হতে পারেন। এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণে বাধা নেই৷

তাঁর কথায়, 'আপনি এই কাজে আত্মনিয়োগ করুন । আপনাকে যথাযথ কাজের স্বীকৃতি দেওয়া হবে। আপনি যদি যোগ্য হন। আপনাকে আমি আমার পদটাও ছেড়ে দিতে দ্বিধা করব না। সংকীর্ণতার জায়গা নেই। বাংলা জিতলেই আমরা সবাই জিতবো।'

SOURAV GUHA

Published by: Arindam Gupta
First published: July 18, 2020, 3:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर