• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • TMC LEADERSHIP CHANGED MUKUL ROYS SEAT IN WEST BENGAL ASSEMBLY BESIDE SUVENDU ADHIKARI SB

Mukul Roy: আরও 'কাছাকাছি' মুকুল-শুভেন্দু, বিজেপি বিধায়ক হয়েই তৃণমূলের ব্যাটন ধরবেন চাণক্য

'পাশাপাশি'

Mukul Roy: বিধানসভার চলতি অধিবেশনের শুরুর দিন মুকুল রায়ের জন্য আসন নির্ধারণ হয়েছিল ব্লক ৩, আসন নং ৪২। ওইদিন সেই আসনেই বসেছিলেন তিনি। কিন্তু সোমবার তাঁর আসন পরিবর্তন করা হল।

  • Share this:

#কলকাতা: নিজের 'ঘর' তৃণমূলে ফিরে এসেছেন তিনি, কিন্তু খাতায় কলমে এখনও বিজেপি বিধায়ক মুকুল রায়। আর দলত্যাগ বিরোধী আইনের আওতা থেকে বাঁচাতে মুকুলকে 'বিজেপি বিধায়ক' হিসেবেই বিধানসভায় পেতে চাইছে শাসক দল তৃণমূল। স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পর্যন্ত মুকুলকে দলে আনার পরও 'বিজেপি বিধায়ক' বলে পরিচয় দিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে ফের বিধানসভায় আসন পরিবর্তন করা হল রাজ্য রাজনীতির চাণক্যের। আসলে মুকুল রায় যে বিজেপির বিধায়ক, বিধানসভার মধ্যে তা প্রমাণ করতে কৌশল অব্যাহত রেখেছে শাসক দল।

বিধানসভার চলতি অধিবেশনের শুরুর দিন মুকুল রায়ের জন্য আসন নির্ধারণ হয়েছিল ব্লক ৩, আসন নং ৪২। ওইদিন সেই আসনেই বসেছিলেন তিনি। কিন্তু সোমবার তাঁর আসন পরিবর্তন করা হল। আর তা করা হল বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর একদম পাশে। এবার থেকে মুকুল রায় বসবেন শুভেন্দুর ঠিক বাঁ পাশের বেঞ্চে। বিধানসভার নিরিখে যা ব্লক ২, আসন নং ১৫। সোমবার এই নতুন আসনেই বসেন মুকুল রায়।

আসলে দলত্যাগ বিরোধী আইন এড়াতে মুকুল রায়ের বিরোধী আসনে বসা ছাড়া উপায়ও নেই। শুরুতে মুকুলকে বিরোধী আসনেই ঠাঁই দেওয়া হলেও তা ছিল শুভেন্দুর থেকে অনেকটাই দূরে, কিন্তু এদিন থেকে তা হয়ে গেল একেবারে পাশাপাশি। সূত্রের খবর, মুকুলের জন্য জায়গা বাছা হয়েছে সব দিক বিবেচনা করেই। তৃণমূলের একাংশ বলছেন, শুভেন্দুর উপর চাপ তৈরি করতেই এই নয়া কৌশল নেওয়া হয়ে থাকতে পারে।

শুভেন্দুদের জন্য স্থির হওয়া আসনের ঠিক বাঁ দিকের আসনে আগে বসতেন সুজন চক্রবর্তী, অশোক ভট্টাচার্য, আনিসুর রহমানরা। এবার সেখানে বসবেন মুকুল রায়। বিধানসভায় আসন নিয়ে নানা অনুরোধ আসে, নানা জন নানা কারণ দেখিয়ে আগে থেকে আসন সংরক্ষণ করতে চান। কিন্তু, মুকুল রায়ের থেকে কোনও দরবারই আসেনি। তাই কৌশলেই তাঁকে জায়গা করে দেওয়া হল শুভেন্দুর পাশেই। মুকুল রায়কে নিয়ে বিজেপির সমস্যা একাধিক। বিধানসভায় পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির সদস্য করা হয়েছে তাঁকে। এমনকি চেয়ারম্যানও করা হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে। ফলে এখনও 'একই' দলের বিধায়ক হয়েও শুভেন্দু-মুকুল দ্বৈরথ দেখার অপেক্ষায় বিধানসভার অলিন্দ।

Published by:Suman Biswas
First published: