TMC| Rathin Ghosh|| মধ্যমগ্রাম পুর-প্রশাসক পদ থেকে ইস্তফা দিতে চলেছেন রথীন ঘোষ! প্রশ্ন বাকিদের নিয়ে

পদ ছাড়তে চলেছেন রথীন ঘোষ।

TMC| Rathin Ghosh|| ২০২১ -এর নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণার পরেই তৃণমূলের সাংগঠনিক বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এক ব্যক্তি এক পদ নীতি গ্রহণ করা হবে।

  • Share this:

#কলকাতা: এক ব্যক্তি এক পদ নীতি কার্যকর করার কথা তৃণমূল ঘোষণা করেছিল আগেই। ঘাসফুল শিবিরের এই নয়া নীতি মেনেই এবার মধ্যমগ্রামের পুর প্রশাসক পদ থেকে ইস্তফা দিতে চলেছেন রথীন ঘোষ। রথীন ঘোষ একদিকে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী, অন্য দিকে তিনি মধ্যমগ্রাম পুরসভার প্রশাসক হিসাবে দায়িত্ব সামলান। ২০২১ -এর নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণার পরেই তৃণমূলের সাংগঠনিক বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এক ব্যক্তি এক পদ নীতি গ্রহণ করা হবে। একই ব্যক্তি একাধিক পদগ্রহণ করে থাকায় দল চালাতে কিছুটা হলেও সমস্যা হয়েছিল।  নয়া রাজনৈতিক সমীকরণে তৃণমূল কংগ্রেস চাইছে সবাইকে দায়িত্ব ভাগ করে দিতে।  কিন্তু রথীনের বার্তায় একটি নতুন জল্পনাও উঠে আসছে। এখনও যারা একাধিক পদ আঁকড়ে আছেন বা যাদের দলই একাধিক পদ দিয়েছে দক্ষতার নিরিখেই, তাঁদের নিয়ে কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, তা নিয়েই প্রশ্ন ঘরে বাইরে।

ইতিমধ্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংগঠনিক বৈঠকে এই বিষয়ে তিনি জানিয়ে দিয়েছেন। অনেকেই আছেন যারা একদিকে মন্ত্রী। অন্য দিকে জেলায় সাংগঠনিক দায়িত্বে আছেন। অনেকে আবার পুর-প্রশাসক হিসাবে আছেন। তাই তাদের দায়িত্বভাগ করে দিতে যে কোনও একটি পদ দেওয়া হবে। দীর্ঘ সময় ধরে পুরসভার দায়িত্ব সামলেছেন তিনি।

২০২১-এর বিধানসভা ভোটে জিতে তাঁকে খাদ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। রথীন ঘোষ যখন থেকে মধ্যমগ্রামের বিধায়ক। তখন থেকেই তিনি পুরসভার চেয়ারম্যান। তবে এখন যেহেতু তিনি মন্ত্রী। তাই তিনি পুরসভার পদ ছাড়ছেন।

সূত্রের খবর, ঘনিষ্ঠমহল রথীনবাবু জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি আগামী দু'দিনের মধ্যেই পুর-প্রশাসক পদ থেকে ইস্তফা দেবেন। তিনি ইস্তফা দিলে পুর প্রশাসকের দায়িত্ব কে নেবেন সেটা যদিও এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এই দু'দিনের মধ্যেই সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে দলীয় সূত্রে খবর।

Published by:Arka Deb
First published: