ব্রিগেডে মোদির সেই 'কথা'ই ঢাল তৃণমূলের, আজ মৌন মিছিল বাংলা জুড়ে

ব্রিগেডে মোদির সেই 'কথা'ই ঢাল তৃণমূলের, আজ মৌন মিছিল বাংলা জুড়ে

মমতার খোঁজ নেননি মোদি

গতকালই পার্থ চট্টোপাধ্যায় অভিযোগ করেছিলেন, 'যারা আঘাত করেছেন মমতার উপর, তাদের খুঁজে বের করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে হবে।'

  • Share this:

    #কলকাতা: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নন্দীগ্রাম পর্বে নিয়ে সুর চড়ানোরই সিদ্ধান্ত নিল তৃণমূল। বৃহস্পতিবারই তৃণমূল কংগ্রেসের নির্বাচন কমিটির বৈঠক হয়েছিল কালীঘাটে। বৈঠকের পর মমতার উপর হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছিলেন সুব্রত বক্সী, সৌগত রায়রা। গতকালই পার্থ চট্টোপাধ্যায় অভিযোগ করেছিলেন, 'যারা আঘাত করেছেন মমতার উপর, তাদের খুঁজে বের করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে হবে। মমতা নিজেই হাসপাতাল থেকে ভিডিও বার্তায় কর্মীদের শান্ত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। কিন্তু বিজেপি যে ঘৃণ্য় রাজনীতি করছে, তার জবাব দেবে বাংলার মানুষ।' এদিনও নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহদের সামান্য রাজনৈতিক শিষ্টাচার নেই বলেও অভিযোগ করেছেন পার্থ। বলেন, 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর যে আক্রমণ করা হয়েছে, সবাই তার প্রতিবাদ জানাচ্ছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা কেউ খোঁজ নিলেন না। এটা কি ধরণের রাজনৈতিক শিষ্টাচার, বুঝতে পারছি না।'

    প্রসঙ্গত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহত হওয়ার ঘটনায় বড়সড় ‘ষড়যন্ত্র’ই দেখছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব। সেই সূত্রেই শুক্রবার দুপুরে দিল্লিতে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের দফতরে অভিযোগ জানালেন ৬ সাংসদের এক প্রতিনিধি দল। নির্বাচন কমিশনের কাছে বেশ কিছু প্রমাণও তাঁরা তুলে দিয়েছেন বলে দাবি। তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও বিজেপির যুব মোর্চার নেতা সৌমিত্র খাঁ-র বক্তব্যকেই তৃণমূল এখন হাতিয়ার করতে চাইছে। সাংসদ সৌগত রায় গতকালই বলেছেন, 'প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ব্রিগেড সমাবেশে বলেছিলেন, ‘ভবানীপুর থেকে মুখ্যমন্ত্রীর স্কুটার যদি নন্দীগ্রামে গিয়ে কোনও দুর্ঘটনায় পড়ে, তবে তার দায় বিজেপি নেবে না।' মোদির সেই মন্তব্যকেও হাতিয়ার করেছে তৃণমূল।

    এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায় আরও অভিযোগ করেন, 'দু'জন বড় পদাধিকারীকে সরিয়ে দিয়েছে কমিশন। নিরাপত্তায় তাই গলদ ছিল। তাই ইসি'র থেকে আমরা উত্তর চেয়েছি৷ জানতে চেয়েছি। আমাদের নেত্রীর ওপর আঘাত হয়েছে।' পার্থর আরও যুক্তি, 'মমতার সভা আছে সবাই জানত। তারপরেও নির্বাচন কমিশন কী দায়িত্ব পালন করেছে? সেই প্রশ্ন আমাদের বরাবর থাকবে।' একইসঙ্গে আজ বিকেলে ৩টে থেকে ৫টা পর্যন্ত সব জায়গায় মৌন মিছিল করবে তৃণমূল, এমনটাও জানিয়েছেন পার্থ।

    তবে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘটনাকে এদিনই 'অরাজনৈতিক' আখ্যা দিয়েছেন নন্দীগ্রামের বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। এদিন তা নিয়ে পালটা শুভেন্দুকে কটাক্ষ করেছেন পার্থ। বলেন, 'নন্দীগ্রামের মানুষ, বাংলার মানুষ নিজেরাই শুভেন্দুকে জবাব দেবেন। ২০১১ সালের পর থেকে মমতা বন্দোপাধ্যায় কী করেছেন, তা বাংলার মানুষ দেখেছেন। শুভেন্দু যা বলছেন, তা সুস্থ মস্তিষ্কের কেউ নয়৷ উনি অসত্য কথা বলছেন। মমতা বন্দোপাধ্যায়ের জমি নিয়ে আন্দোলন মানুষ ভুলে যেতে পারেনি। যে ভাবে মমতা বন্দোপাধ্যায়কে আঘাত করা হল, যে নিরাপত্তা তিনি পান, যে কায়দায় তিনি মানুষের কাছে যান, তাঁর জনপ্রিয়তা দেখেই আঘাত করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের গোটা বিষয়টি তদন্ত করা উচিৎ। শুভেন্দু জামানত ধরে রাখতে পারবেন তো? '

    Published by:Suman Biswas
    First published: