নতুন অফিসার আসতেই 'গতি' সারদা তদন্তে, ফের কুণালকে ইডি'র ডাক

নতুন অফিসার আসতেই 'গতি' সারদা তদন্তে, ফের কুণালকে ইডি'র ডাক

সোমবার ফের সারদাকাণ্ডের তদন্তে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের মুখোমুখি হতে চলেছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ

সোমবার ফের সারদাকাণ্ডের তদন্তে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের মুখোমুখি হতে চলেছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ

  • Share this:

    #কলকাতা: রবিবারও শিলিগুড়ির সভায় বিজেপির বিরুদ্ধে এজেন্সিকে কাজে লাগানোর অভিযোগ করেছেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিধানসভা নির্বাচনের আর দিন কয়েক বাকি, এর মধ্যেই কেন্দ্রের শাসক দলের বিরুদ্ধে সিবিআই, ইডি-র মতো তদন্তকারী সংস্থাকে নিজেদের ইচ্ছেমতো কাজে লাগানোর অভিযোগ করছেন তৃণমূল নেতারা। এই পরিস্থিতিতে সোমবার ফের সারদাকাণ্ডের তদন্তে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের মুখোমুখি হতে চলেছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। সোমবার সকাল এগারোটায় ফের তাঁকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। এর আগে গত ২ মার্চও ইডি জেরার মুখোমুখি হয়েছিলেন কুণাল।

    এ বিষয়ে ইডি সূত্রে দাবি, সারদাকাণ্ডের তদন্তে নেমে একাধিক নতুন তথ্য পাওয়া গিয়েছে। সেই নিয়েই জিজ্ঞাসাবাদ করতে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষকে ডাকা হয়েছে। ইতিমধ্যেই সারদা মামলায় একাধিক নথিপত্র এবং পেনড্রাইভ সংগ্রহ করেছেন ইডির আধিকারিকরা। সেই নিয়েই ফের কুণাল ঘোষকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চাইছেন ইডি আধিকারিকরা। যদিও এর আগেও একাধিক বার কুণাল ঘোষ বলেছেন, 'আমাকে যখন ডাকা হবে, তখনই আমি আসব। এর আগেও আমি প্রতিবার গিয়েছি। তদন্তে সমস্ত সহযোগিতা করতে আমি প্রস্তুত।'

    কুণাল আরও বলেছিলেন, ‘‌আমার যাবতীয় নথিপত্র ওদের কাছে রয়েছে। তা সত্ত্বেও প্রয়োজন পড়লেই হাজিরা দিতে আসব আমি। হাজারবার চাইলে হাজার বার হাজিরা দেব।’‌ উল্লেখ্য, সারদাকাণ্ডে তদন্তকারী অফিসার বদলের পরেই পরপর দু'বার কুণাল ঘোষকে তলব করল ইডি। আগের তদন্তকারী অফিসার অক্ষয় সিনহার জায়গায় নতুন তদন্তকারী অফিসার হয়েছেন অজয় লাহুচ।

    উল্লেখ্য, সারদা মামলায় ২০১৩ সাল থেকে কুণাল ঘোষকে জেরা করছে ইডি। তা সত্ত্বেও এই কেন্দ্রীয় সংস্থার দাবি, তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও নতুন তথ্য পাওয়া যেতে পারে। ইডি সূত্রের খবর, সারদা কাণ্ডে একাধিকবার টাকার হাতবদল হয়। সেই টাকার লেনদেন সম্পর্কে কুণাল ঘোষকে এখনও তারা জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায়।

    এর আগে সারদা মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন কুণাল ঘোষ। সেই সময় মূলত তিনি তৃণমূল তথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সরব হতেন। তৃণমূল তাঁকে সাসপেন্ডও করেছিল। কিন্তু বর্তমানে রাজ্যের শাসক দলের গুরুত্বপূর্ণ মুখপাত্রের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন তিনি। ইদানীং দলের হয়ে সভা থেকে সংবাদমাধ্যম, সর্বত্র কুণালের নিশানায় বিরোধীরা। এবার ফের ইডির মুখোমুখি হতে হচ্ছে তাঁকে।

    Published by:Suman Biswas
    First published: