ভাঙা পায়েই খেলা হবে! ভোটের আগে ফের নতুন স্লোগানে চমক দেবাংশুর

ভাঙা পায়েই খেলা হবে! ভোটের আগে ফের নতুন স্লোগানে চমক দেবাংশুর

ভাঙা পায়েই খেলা হবে! ভোটের আগে ফের নতুন স্লোগানে চমক দেবাংশুর

মমতা জানান এবার হুইল চেয়ারে বসে প্রচার করবেন। শুক্রবার হাসপাতাল থেকে ছুটি পান তিনি। সেদিনও হুইল চেয়ারে করেই তাঁকে বেরোতে দেখা যায় হাসপাতাল থেকে। আর এই পরিস্থিতি মাথায় রেখেই এবার তৃণমূলের খেলা হবে স্লোগানকে নতুন রূপ দিলেন দেবাংশু।

  • Share this:

    #কলকাতা: বিধানসভা নির্বাচনের অন্যতম আলোচিত মুখ দেবাংশু ভট্টাচার্য। তৃণমূলের প্রার্থী হওয়ার টিকিট না পেলেও এবারের নির্বাচন তাঁকে ছাড়া অসম্পূর্ণ। কারণ তাঁর তোলা স্লোগান এখন লোকের মুখে মুখে ঘুরছে। এমনকি দিল্লি থেকে খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এসে খেলা হবে স্লোগান উচ্চারণ করেছেন। আর এবার খেলা হবে স্লোগানের নতুন সংস্করণ তৈরি করলেন দেবাংশু- ভাঙা পায়েই খেলা হবে।

    নিজেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের অন্য়তম অনুগামী হিসেবেও পরিচয় দেন দেবাংশু। আর তাই এবার ভাঙা পায়ে খেলা হবে স্লোগান তুলে লোক জড়ো করলেন তিনি। গত বুধবার নন্দীগ্রামে প্রচার করতে গিয়ে পায়ে গুরুতর চোট পান তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে সঙ্গে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। হাসপাতাল থেকেই একটি ভিডিওর মাধ্যমে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের কর্মীদের শান্তি বজায় রাখতে বলেন। সঙ্গে এও বলেন যে তাঁর পায়ের হাড়ে চিড় ধরেছে। লিগামেন্টেও চোট লেগেছে। কিন্তু তাই নিয়েই এবার প্রচারে নামবেন তিনি।

    মমতা জানান এবার হুইল চেয়ারে বসে প্রচার করবেন। শুক্রবার হাসপাতাল থেকে ছুটি পান তিনি। সেদিনও হুইল চেয়ারে করেই তাঁকে বেরোতে দেখা যায় হাসপাতাল থেকে। আর এই পরিস্থিতি মাথায় রেখেই এবার তৃণমূলের খেলা হবে স্লোগানকে নতুন রূপ দিলেন দেবাংশু। সেই ভিডিও নিজের টুইটারেও শেয়ার করেছেন যুবক। দেখা যাচ্ছে অসংখ্য জনতার সামনে তিনি স্লোগান তুলছেন ভাঙা পায়েই খেলা হবে।

    এবারের নির্বাচনে তৃণমূলের খেলা হবে স্লোগানটি তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এমনকি বিরোধীদের মুখেও শোনা যাচ্ছে এই স্লোগান। কিন্তু এর মধ্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পায়ে চোট পান। বিরোধীদের থেকে তির্যক মন্তব্য আসে। ট্রোল করে বলা হয়, খেলতে নামার আগেই পা ভেঙে গেল। তার পরেই দেবাংশু এই ভাঙা পায়েই খেলা হবে স্লোগান তুলেছেন।

    প্রসঙ্গত, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করার আগে অনেকেরই ধারণা ছিল যে এই তালিকায় নাম থাকবে দেবাংশুরও। কিন্তু তাঁর নাম থাকায় সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে কটাক্ষের মুখে পড়তে হয় দেবাংশুকে। অনেকেই ট্রোলিং শুরু করেন তাঁর প্রার্থী টিকিট না পাওয়ার বিষয়টিকে ঘিরে। তবে এর উত্তর নিজের ফেসবুক থেকেই দিয়েছেন দেবাংশু। তিনি জানান প্রার্থী হতে গেলে ২৫ বছর হওয়া আবশ্যিক। কিন্তু এখনও তাঁর ২৫ বছর বয়স হয়নি। আগামী ১ এপ্রিল তাঁর ২৫ বছর পূর্ণ হবে। এছাড়া তিনি বলেন, এই বয়সে এত বড় একটি দলের প্রতিনিধিত্ব করতে পারাই তাঁর কাছে যথেষ্ট। প্রার্থী হওয়ার লোভ তাঁর নেই। দল তাঁকে প্রতিটি কেন্দ্রে প্রচারের কাজে লাগাতে চায় বলেই প্রার্থী না হওয়া নিয়ে তাঁর কোনও আক্ষেপও নেই বলে জানান দেবাংশু।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:
    0