Home /News /kolkata /
TMC 21 July || চাঁদে তোলা যাবে না, ২১ জুলাই নিয়ে ফের কড়া সুর অভিষেকের

TMC 21 July || চাঁদে তোলা যাবে না, ২১ জুলাই নিয়ে ফের কড়া সুর অভিষেকের

২১ জুলাইয়ের প্রস্তুতি শুরু

২১ জুলাইয়ের প্রস্তুতি শুরু

TMC 21 July || কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলে দল যে কড়া অবস্থান নেবে, তার ইঙ্গিত দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Share this:

    আবীর ঘোষাল, কলকাতা:  হলদিয়ার পরে, কলকাতা। ফের কড়া হুঁশিয়ারি শোনা গেল তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের গলায়। ২১ জুলাইয়ের শহিদ সমাবেশ উপলক্ষে কোনওরকম চাঁদা তোলা যাবে না। কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলে দল যে কড়া অবস্থান নেবে, তার ইঙ্গিত দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছেন, অভিযোগ প্রমাণিত হলে দল থেকে বহিষ্কার করাও হতে পারে মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যেই। শুক্রবার তৃণমূল ভবনে আয়োজিত দলীয় সভায় তিনি এ কথা জানান।

    আরও পড়ুন- যাদের চাকরিতে রাখা হবে না সেই অগ্নিবীরদের দক্ষতার শংসাপত্র দেওয়া হবে: কেন্দ্র

    দু’বছর পর ফের তৃণমূলের ২১ জুলাইয়ের সমাবেশ হবে ধর্মতলায়। ইতিমধ্যেই যার পোস্টার রিলিজ করেছে বাংলার শাসক দল। শহীদ সমাবেশ নিয়ে আলোচনা করতেই দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতা, জেলা সভাপতি ও শাখা সংগঠনের প্রধানদের নিয়ে বৈঠকে বসেন তৃণমূল নেতৃত্ব। এই বৈঠকে অভিষেক ছাড়াও হাজির ছিলেন রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী, তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়, কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম, যুব নেত্রী সায়নী ঘোষেরা। সেই বৈঠকেই অভিষেক বলেন,‘‘এ বারের সমাবেশ আমাদের সবাইকে হাতে হাত মিলিয়ে সফল করতে হবে। কিন্তু, সমাবেশের কারণে দলের কেউ কোনও চাঁদা তুলতে পারবেন না। কারও বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠলে বা প্রমাণিত হল, তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

    ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি যে সমস্ত আসনে জয় পেয়েছিল সেই সমস্ত এলাকা থেকে এ বার শহিদ দিবসের সমাবেশে বেশি প্রতিনিধিত্ব চেয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। অভিষেক নির্দেশ দিয়েছেন, উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির সঙ্গে জঙ্গলমহলের জেলাগুলি থেকে এ বারের সমাবেশে বেশি সংখ্যায় কর্মী-সমর্থকদের শহীদ সমাবেশে নিয়ে আসতে হবে। সূত্রের খবর, বৈঠকে অভিষেক বলেছেন, ‘‘উত্তরবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। তার প্রমাণ এ বারের সমাবেশে রাখতে হবে দলের সর্বস্তরের নেতাদের।’’

    আরও পড়ুন- রাজ্যে অগ্নিপথের আঁচ! কলকাতা আসানসোল থেকে কোন কোন ট্রেন বাতিল হল দেখে নিন তালিকা

    প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস ভালো ফল করলেও। ২০১৯ এর লোকসভায় উত্তরের সব আসনেই পর্যদুস্ত হয় জোড়া ফুল শিবির। ২০২১ সালে বাংলার বিধানসভা ভোটে বিপুল জয় পেলেও, হতাশ হতে হয়েছে উত্তরের ফল নিয়ে। এরই মধ্যে উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য গড়তে হবে। এই দাবিতে বারবার সরব হচ্ছে বিজেপির নেতাদের একাংশ। ১৯ এর লোকসভায় জঙ্গলমহলে খারাপ ফল হলেও, ২১ এর বিধানসভায় জমি শক্ত করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। মমতা বন্দোপাধ্যায় নিজে বুথ স্তরের কর্মীদের নিয়ে সম্মেলন করছেন। এই পরিস্থিতিতে অভিষেকের বার্তা রাজনৈতিক ভাবে গুরুত্বপূর্ণ।

    এদিনে দলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, গত দু'বছর করোনার আবহে এই অনুষ্ঠান করা যায়নি। যদিও ভারচুয়ালি বক্তব্য মমতা-অভিষেক রেখেছেন। আমরা শহীদ তর্পণ করেছি। কিন্তু জনসমাগম হয়নি। সেই অর্থে দেখতে গেলে এটা আমাদের দুই বছর পরে প্রথম সমাবেশ। যুব তৃণমূল কংগ্রেস এর প্রধান আয়োজক।

    আগামী ২১ জুলাই আরও বেশি করে কর্মী বিশেষ করে অভিষেক যেটা বলেছেন, তৃণমূলের রাজ্য নেতারাও চাইছেন উত্তরবঙ্গের আরও বেশি সংখ্যক বুথ, ব্লক স্তর থেকে আসতে হবে। উত্তরবঙ্গে আরও জোর। দক্ষিণবঙ্গ অবশ্যই আসবে। প্রস্তুতি সভা হবে সব জেলায়। যুব ও রাজ্য নেতারা তাতে উপস্থিত হতে পারেন। কাল থেকেই পোস্টার, ব্যানার, দেওয়াল লেখা শুরু করে দেব। একত্রিত হয়ে ধর্মতলা চলো স্লোগান। আমরা প্রমাণ করব রেকর্ড সংখ্যক মানুষকে নিয়ে৷

    Published by:Rachana Majumder
    First published:

    Tags: Abhishek Bandopadhyay, TMC

    পরবর্তী খবর